Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১০ ১৪২৮ ||  ১২ জিলক্বদ ১৪৪২

‘মনে হয়েছিল, আমি বিশ্বের সবচেয়ে একা’

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪৮, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২১:২৯, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১
‘মনে হয়েছিল, আমি বিশ্বের সবচেয়ে একা’

২০১৪ সালে ভারত যখন ইংল্যান্ড সফর করেছিল, পাঁচ টেস্টে কোহলির গড় ছিল মাত্র ১৩.৪০! সর্বোচ্চ রান ৩৯। 

এরপর অবশ্য তিনি নিজেকে টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে দুই নম্বর ও ওয়ানডেতে এক নম্বরে নিয়ে গেছেন। তবে ওই সময়টা ছিল তার জীবনের সবচেয়ে কঠিন সময়। নিজেকে তখন ‘বিশ্বের সবচেয়ে একাকী ছেলে’ মনে হতো কোহলির। 

সম্প্রতি সাবেক ক্রিকেটার মার্ক নিকোলাসের নট জাস্ট ক্রিকেট পোডকাস্ট অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে কোহলি সাত বছর আগের তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা ভাগাভাগি করেন। কোহলি বলেন, ‘ঘুম থেকে উঠে আপনার কখনোই ভালো লাগবে না যখন বুঝবেন আপনি রান করতে পারবেন না! আমি কেন, কোনো ব্যাটসম্যানের এরকম একটি পর্যায়ে গিয়ে ভালো লাগে না। নিজের ওপর যখন নিয়ন্ত্রণ থাকে না তখন সময় কাটানো কঠিন। পাশাপাশি আপনি খারাপ সময় কিভাবে পেরিয়ে যাবেন সেই উত্তরও যদি জানা না থাকে আরও কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়। ওই সময়ে মনে হয়েছিল, আমি বিশ্বের সবচেয়ে একাকী ছেলে।’ 

খারাপ সময় কাটিয়ে উঠার জন্য ‘পেশাদার সহায়তার’ প্রয়োজন সবচেয়ে বেশি বলে মন্তব্য করেছেন কোহলি। তার ভাষ্য, ‘বেশিরভাগ ক্রিকেটারই তাদের খারাপ সময় লম্বা সময় ধরে টেনে নেয়। অনেকের জন্য সময়টা এক মাসেরও বেশি হয়। কিংবা একটা মৌসুম। হয়তো ওই মুহূর্তগুলো কাটিয়ে উঠার জন্য পর্যাপ্ত সমর্থণ তারা পান না। আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি, খারাপ সময় কাটিয়ে উঠার জন্য পেশাদার সহযোগিতার প্রয়োজন। সেটা যে কেউ করতে পারে।’ 

কোহলি কিভাবে ইংল্যান্ড সিরিজের ব্যর্থতা ভুলেছেন? কিভাবে নিজেকে তৈরি করেছেন পরবর্তী পর্যায়ের জন্য? উত্তরটা কোহলির মুখ থেকেই শুনুন, ‘আমি আমার হৃদয়ের কথা শুনেছি। দল থেকে পূর্ণ সমর্থণ পেয়েছি। পেশাদারিত্ব দেখিয়েছি। নিজেকে তৈরি করে করেছি। আপনি অবশ্যই পুরোনো ব্যর্থতা মাথায় নিয়ে এগিয়ে যেতে পারবেন না। আমিও ব্যর্থতা ঝেরে ফেলেছি। নিজেকে নতুন উদ্যোমে গড়া শুরু করি।’ 

ঢাকা/ইয়াসিন

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়