Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭ ||  ১৮ রজব ১৪৪২

অজেয়কে জয় করতে চায় বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:১৭, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৯:৫৮, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১
অজেয়কে জয় করতে চায় বাংলাদেশ

তাসমান সাগরের পাড়ের দেশ নিউ জিল্যান্ডে কখনও বিজয়ের পতাকা ওড়ায়নি বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত অর্জনে সাফল্যভাণ্ডার ভারী হলেও দলগত সাফল্য একেবারেই নেই। নিজেদের মাঠে ও নিরপেক্ষ ভেন্যুতে বাংলাদেশ একাধিকবার সীমিত পরিসরে হারিয়েছে কিউইদের। কিন্তু নিজ দেশে নিউ জিল্যান্ড থেকেছে অজেয়। তামিম ইকবালের দল এবার অজেয়কে জয় করতে চায়।

বাংলাদেশ এবার বিজয়ের পতাকা ওড়াতে চায় তাসমান সাগরপাড়ের দেশে। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার কিছু সময় পর বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিউ জিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। এবারের সফরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। উড়াল দেওয়ার আগে তামিম ইকবাল আশাবাদী কণ্ঠে নিজের প্রত্যাশার কথা জানান।

তামিম কোনও কিছুকে অসম্ভব মনে করছেন না, ‘আমরা সবাই জানি যে নিউ জিল্যান্ডের কন্ডিশন আমাদের জন্য কঠিন। কিন্তু অসম্ভব কিছুই না। আমরা চেষ্টা করবো যে জিনিসটা (জয়) নিউ জিল্যান্ডে কোনোদিন অর্জন করিনি, এবার যেন সেটা অর্জন করতে পারি। আমরা আশাবাদী।’

অতিথি হয়ে বাংলাদেশ ১৩ ওয়ানডে খেলেছে নিউ জিল্যান্ডে, প্রতিটিতেই হার। টি-টোয়েন্টি খেলেছে চারটি। জয়ের মুখ দেখেনি। খুব বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করতে পারেনি। অতীত পরিসংখ্যান সুখকর নয়। তবে বাংলাদেশকে আশা দেখাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সীমিত ওভারের পারফরম্যান্স। যেখানে বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে জিতেছে।

অধিনায়কের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন সৌম্য সরকারও। বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান বলেন, ‘অবশ্যই ভালো কিছু হবে। সবাই যেভাবে মানসিক ও ক্রিকেটীয় প্রস্তুতি নিয়েছে, আশা করি সবাই ভালোই করবে। এবার যেন আমরা সেটা (নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে হারের বৃত্ত) ভাঙতে পারি, জিতে ফিরতে পারি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে সবাই ভালো করেছে। সেখানেও আমাদের ওয়ানডে সিরিজ আছে। আশা করি ভালো করবে।’

অতীতের মতো এবারের সফরও বেশ কঠিন হবে। নিউ জিল্যান্ড ধারাবাহিক ক্রিকেট খেলছে বেশ কয়েক বছর ধরেই। অস্ট্রেলিয়াকে গতকাল প্রথম টি-টোয়েন্টিতেও হারিয়েছে। এমন দলের বিপক্ষে তাদের মাটিতে জয় পাওয়া চাট্টিখানি কথা নয়। তবে দলের ছেলেদের ওপর আস্থা রাখছেন বিসিবির প্রতিনিধি হয়ে সফরে যাওয়া পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস, ‘কঠিন সফর। খুবই চ্যালেঞ্জিং একটা সিরিজ। এটাতে কোনও সন্দেহ নেই। ছেলেদের দেখে মনে হয়েছে ওরা প্রস্তুত। আমাদের যেমন করেই হোক, লড়াই করে আসতে হবে। আমাদের সিরিজটা ভালো খেলতেই হবে।’

২০০১ থেকে ২০২০ সাল- এই লম্বা সময়ে নিউ জিল্যান্ডে তিন ফরম্যাটে বাংলাদেশ কোনও ম্যাচ জিততে পারেনি। তামিম কিংবা মাহমুদউল্লাহরা কি পারবেন প্রতিকূল এই ইতিহাস পাল্টে দিতে? উত্তর জানতে অপেক্ষা করতে হবে পহেলা এপ্রিল পর্যন্ত।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়