Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৮ ||  ১৯ সফর ১৪৪৩

মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে সৌম্য-শামীমের প্রশংসা

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:১৩, ২৫ জুলাই ২০২১   আপডেট: ২২:১৯, ২৫ জুলাই ২০২১
মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে সৌম্য-শামীমের প্রশংসা

কী দারুণ একটা সফর কাটলো বাংলাদেশের। টেস্টে জিম্বাবুয়েকে বড় ব্যবধানে হারানোর পর ওয়ানডেতে হোয়াইটওয়াশ, যে সিরিজে ছিলেন না ব্যাটিং স্তম্ভ মুশফিকুর রহিম। এরপর টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে ছিটকে গেলেন তামিম ইকবালও। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে ওপেনিং আর মিডল অর্ডারের এই ঘাটতি পূরণ করলেন তরুণরা। এই সিরিজে নিজেদের জাত চেনালেন সৌম্য সরকার ও দ্বিতীয় ম্যাচে অভিষিক্ত শামীম হোসেন পাটোয়ারি। দলগত প্রচেষ্টায় সফরের ‍তৃতীয় সিরিজ বাংলাদেশ জিতেছে, মাহমুদউল্লাহ এমনটা বললেও প্রশংসা করলেন সৌম্য ও শামীমের।

তিন ওভারে ১৯ রান দিয়ে রেগিস চাকাবা ও সিকান্দার রাজাকে আউট করেন সৌম্য। পরে ব্যাট হাতে ৪৯ বলে ৬৮ রান করে জয়ের ভিত গড়ে দেন। এমন পারফরম্যান্সে হয়েছেন ম্যাচসেরা। সিরিজ সেরার পুরস্কারও উঠেছে প্রথম ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করা এই ওপেনারের হাতে। আর শামীম শেষ দিকে এসে ১৫ বলে ৬ চারে অপরাজিত ৩১ রান করে ম্যাচ জেতান।

দুই সতীর্থকে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ বলেছেন, ‘ছেলেরা তাদের সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছে। সবাই দলের জন্য অবদান রেখেছে। সৌম্য যেভাবে ব্যাটিং করেছে, সাকিব যেভাবে ব্যাটিং করেছে- সবার অবদান ছিল। শেষে শামীম তো দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলল। কুইক ফায়ার ইনিংস! সব মিলিয়ে দারুণ ব্যাটিং হয়েছে এবং এটি সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এসেছে।'

যে পরিকল্পনা করা হয়েছিল, তা সঠিকভাবে প্রয়োগ হয়েছে বললেন অধিনায়ক, 'যখন আপনি ১৯৪ রানের মতো বড় লক্ষ্য পাবেন, তখন আপনাকে বড় জুটি গড়তে হবে এবং নিয়মিত রান বের করে নিতে হবে। আমরা চেষ্টা করেছি যত কম ডট বল দেওয়া যায় এবং প্রতি ওভারেই বাউন্ডারি হাঁকানোর চেষ্টা করেছি। এটি আমাদের পরিকল্পনা ছিল। আমরা জুটি গড়ার চেষ্টা করেছি এবং যতটা পারা যায় দ্রুত লক্ষ্যের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছি।'

সৌম্যর অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের স্বীকৃতিও দিলেন মাহমুদউল্লাহ, 'অবশ্যই, আমার মতে সৌম্য একজন কার্যকরী অলরাউন্ডার। আমি যখন তাকে বোলিংয়ে আনলাম, তখন সে দুইটি উইকেট নিলো এবং রান আটকানোর চেষ্টা করেছে। দলের প্রয়োজনে যখন তার ব্যাট থেকে রান দরকার ছিল, তখন সে ব্যাট হাতেও দাঁড়িয়ে গেছে এবং দারুণ ব্যাটিং করেছে।'

এখন বাংলাদেশের চোখ অস্ট্রেলিয়া সিরিজের দিকে। আগামী মাসে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি খেলতে তাদের স্বাগত জানাবেন মাহমুদউল্লাহরা, ‘এখন আমরা পরের জৈব সুরক্ষা বলয় ও পরের সিরিজের দিকে তাকিয়ে।’

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ