ঢাকা     সোমবার   ২৩ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯ ||  ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

বিপিএলে নানা সংকট, তামিম বললেন ইতিবাচক থাকতে

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:১৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২২  
বিপিএলে নানা সংকট, তামিম বললেন ইতিবাচক থাকতে

নানা ধরনের স্বল্পতা নিয়ে পর্দা নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসরের। ২১ জানুয়ারি থেকে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক এই লিগে থাকছে না ডিআরএস প্রযুক্তি, বিদেশি আম্পায়ারসহ উন্নতমানের প্রোডাকশান। ডিআরএস না থাকলে সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার কথা জানিয়েও মিনিস্টার ঢাকার অন্যতম তারকা ক্রিকেটার তামিম ইকবাল বলেছেন ইতিবাচক থাকতে। 

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) মিনিস্টার ঢাকার জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে ডিআরএস নিয়ে এক প্রশ্নের মুখোমুখি হয়ে তামিম জানান, নেতিবাচক দিক না খুঁজে ইতিবাচক দিকগুলো দেখতে।

‘আমার উত্তরটা আপনারা ইতিবাচকভাবে নেবেন। আমি এখানে বসার পর থেকে প্রথম ৬-৭টা প্রশ্ন হয়েছে, সবই নেতিবাচক। একটাও ইতিবাচক কথা নেই। দল কেন এরকম, ডিআরএস নেই, আম্পায়ারিং এই করবে সেই করবে... দেখুন, ঘাটতি অবশ্যই থাকবে। সব জায়গায়ই ঘাটতি থাকে। কোন পরিস্থিতিতে এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হচ্ছে এটা বুঝতে হবে।’

ইতিবাচক থাকার কথা জানিয়ে তামিমের মন্তব্য বিপিএল থেকে বাংলাদেশ নতুন ক্রিকেটারও পেয়ে যেতে পারে। যেটা এই বছর অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কাজে লাগেব।

‘আমার কাছে মনে হয় এই টুর্নামেন্টের অনেক ইতিবাচক দিক আছে। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে, এখান থেকে এক-দুইটা খেলোয়াড় বাংলাদেশ পেয়ে যেতে পারে। খারাপ আমরা সবসময় খুঁজে বের করতে পারবো। আসুন সেদিকে নজর না দেই। ভালো যা কিছু পাবো তাতে মনোযোগ দেওয়া যাক। নেতিবাচক চিন্তা করলে আপনি সারাদিন বলতে পারবেন। তাই ইতিবাচক থাকা উচিৎ’-এভাবে বলেছেন তামিম।

তামিম যতই ইতিবাচক থাকার কথা বলুন না কেন, ডিআরএস না থাকলে ক্রিকেটারদেরই ক্ষতি। সেটি অবশ্য স্বীকারও করেছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

তিনি বলেন, ‘ডিআরএস তো গত বিপিএলগুলোতে ছিল। আমি নিশ্চিত এবার কোনো না কোনো কারণে ডিআরএস নেই। আমি ব্যক্তিগতভাবে ডিআরএস থাকলে অবশ্যই খুশি হতাম। কারণ, কোনো ডিসমিসালে আমি আউট না হয়ে থাকলে সেখানে আমার সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যাবে। এটা নিয়ে আমরা শুধু নেতিবাচক কথা বলব এর পক্ষে আমি না।’

জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে মিনিস্টার ঢাকার অধিনায়কের নামও ঘোষণা করা হয়। নেতৃত্ব দেবেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এ ছাড়া এই দলে খেলবেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। দেশের ক্রিকেটের তিন অভিজ্ঞ ক্রীড়াবিদ এক সঙ্গে, তামিম জানিয়েছেন এটি তাদের জন্য চ্যালেঞ্জও।

তামিমের মতে, ‘১৪ বছর ধরে একসঙ্গে আছি, নতুন কিছু না। মাশরাফি ভাইয়ের সাথে তো আগের মতো একসাথে এতো সময় কাটানো হয় না। যখনই সুযোগ পাই, আমি, রিয়াদ ভাই ও মাশরাফি ভাই কথাবার্তা বলতে পছন্দ করি। রিয়াদ ভাই উনার বক্তব্যে বলেছেন, আমাদের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ। আশা করি চ্যালেঞ্জটা নিয়ে আমরা ভালো করবো।’

এ ছাড়া মাহমুদউল্লাহর অধিনায়কত্বে দল ভালো করবে বলেও জানান দেশসেরা ওপেনার। ‘রিয়াদ ভাই টি-টোয়েন্টিতে অত্যন্ত ভালো করেছেন। তার অধীনে আমরা নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মত দলের সাথে জিতেছি। তার ব্যাপারে মন্তব্য করার কিছু নেই। উনি কী করেছেন না করেছেন সবাই দেখতে পাচ্ছে। উনি আমাদের বর্তমান টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। ভালো বলেই তো অধিনায়কত্ব করছেন।’

রিয়াদ/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়