ঢাকা, রবিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৬ মে ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

জীবনরক্ষাকারী যেসব টেস্ট করানো উচিত (শেষ পর্ব)

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১১-৩০ ৯:২৮:৩১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-০৮ ৮:৩১:৫৯ পিএম
প্রতীকী ছবি
Walton AC

এস এম গল্প ইকবাল : অধিকাংশ মানুষই আগেভাগে প্রয়োজনীয় মেডিকেল টেস্ট অর্থাৎ স্ক্রিনিং করেন না। যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রতিষ্ঠান সিগনার সিনিয়র মেডিক্যাল পরিচালক ক্রিস্টিনা স্ট্যাসিয়াক বলেন, ‘লোকজন প্রায়সময় ভাবে যে কেন আমি ভালো থাকা সত্ত্বেও ডাক্তার দেখাব?’ অথচ হৃদরোগ, ক্যানসার ও ডায়াবেটিসের মতো ক্রনিক রোগের কারণে প্রতিবছর অনেকের মৃত্যু হয়ে থাকে। স্ক্রিনিং বা স্বাস্থ্য পরীক্ষার মাধ্যমে এসব রোগ প্রতিরোধ করা যেতে পারে যা রোগীদের আগাম ঝুঁকি শনাক্ত করতে সাহায্য করে। এর ফলে মারাত্মক সমস্যা এড়ানোর জন্য জীবনযাপনে পরিবর্তন আনা যায়।

জীবনরক্ষাকারী ১৩টি মেডিকেল টেস্ট নিয়ে দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ থাকছে শেষ পর্ব, এসব স্বাস্থ্য পরীক্ষা আপনার আপনার এড়িয়ে চলা উচিত নয়।

* প্রোস্টেট ক্যানসার স্ক্রিনিং
যেসব পুরুষদের প্রোস্টেট ক্যানসারের গড় ঝুঁকি ও ভালো স্বাস্থ্য আছে তাদের এই স্ক্রিনিং ৫০ বছর বয়স থেকে শুরু করতে আমেরিকান ক্যানসার সোসাইটি পরামর্শ দিচ্ছে। যেসব পুরুষদের উচ্চ ঝুঁকি অথবা প্রোস্টেট ক্যানসারের পারিবারিক ইতিহাস (বাবা, ভাই বা পুত্রের মধ্যে প্রোস্টেট ক্যানসার ধরা পড়া) আছে, তাদের ৪৫ বছর বয়স থেকেই এই টেস্ট করা উচিৎ। যেসব পুরুষদের ঝুঁকির পরিমাণ আরো বেশি (একাধিক ক্লোজ রিলেটিভের মধ্যে প্রোস্টেট ক্যানসার নির্ণীত হওয়া) তাদের ৪০ বছর বয়স থেকেই এই টেস্ট করা উচিৎ। রক্ত পরীক্ষা প্রোস্টেট-স্পেসিফিক অ্যান্টিজেনের (পিএসএ) মাত্রা শনাক্ত করতে পারে। পিএসএ ২.৫ এর কম হলে দুই বছরে একবার এবং ২.৫ বা এর বেশি হলে বার্ষিক স্ক্রিনিংয়ের প্রয়োজন হবে।

* ত্বক পরীক্ষা
চিকিৎসক দ্বারা প্রতিবছর আপনার ত্বক (মাথার স্কাল্পও) পরীক্ষা করান। তিনি সন্দেজনক স্পট বা তিল মূল্যায়ন করবেন, যা ত্বকের ক্যানসারের ইঙ্গিত দিতে পারে। ডা. স্ট্যাসিয়াক বলেন, ‘ত্বক পরীক্ষার পাশাপাশি ডার্মাটোলজিস্টের কাছ থেকে ত্বকের ক্যানসার প্রতিরোধের উপায় জেনে নেওয়া উচিৎ।’

* বিষণ্নতা
ডা. স্ট্যাসিয়াক বলেন, ‘প্রতিরোধমূলক স্ক্রিনিং শুধু শারীরিক স্বাস্থ্য নয়, মানসিক স্বাস্থ্যের সঙ্গেও সম্পর্কযুক্ত। চিকিৎসক প্রশ্নের একটি সিরিজ দিয়ে আপনাকে স্ক্রিন করতে পারেন: রোগীদের অনুভূতি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয় এবং তাদেরকে শক্তির অভাব, ঘুমের সমস্যা অথবা মনোযোগ দিতে সমস্যা হয় কিনা জানতে চাওয়া হয়। চিকিৎসক আপনার সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলাপ করতে পারেন এবং আরো বেশি প্রশ্ন জিজ্ঞেস করতে পারেন। চিকিৎসক আপনাকে কাউন্সেলিং বা ওষুধ রিকমেন্ড করতে পারেন অথবা কোনো মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞের কাছে রেফার করতে পারেন।’

* হেপাটাইটিস সি
বেবি বুমারদের (যাদের জন্ম ১৯৪৫ থেকে ১৯৬৫ সালের মধ্যে) হেপাটাইটিস সি’র জন্য ওয়ান-টাইম স্ক্রিনিং করা উচিত- এই ভাইরাস যকৃত ড্যামেজ করতে পারে এবং এমনকি ক্যানসার সৃষ্টি করতে পারে, ইউএস সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনস (সিডিসি) অনুসারে। একটি রক্ত পরীক্ষা হেপাটাইটিস সি ভাইরাসের অ্যান্টিবডি প্রকাশ করতে পারে। তারপর দ্বিতীয় টেস্ট রক্তে এই ভাইরাসের মাত্রা নির্ণয় করতে পারে। যখন দুটিই একত্রে করা হবে, এই দুই টেস্ট হেপাটাইটিস সি ইনফেকশন আছে কিনা তা নির্ভুলভাবে শনাক্ত করতে পারে। চিকিৎসকরা এই কন্ডিশনের চিকিৎসা করেন অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ দিয়ে। লাইফস্টাইলে পরিবর্তনও যকৃত রক্ষায় সাহায্য করতে পারে।

* পড়ে যাওয়া প্রতিরোধ
পড়ে যাওয়া (যার ফলে হাড় ভেঙ্গে যেতে পারে) প্রতিরোধ করতে চিকিৎসকরা ৬৫ বছর বয়স বা তদোর্ধ্ব বয়সের লোক এবং কিছু রিস্ক ফ্যাক্টর (যেমন- নিম্ন দৃষ্টিশক্তি অথবা নিম্ন ভারসাম্য) আছে এমন রোগীদের স্ক্রিনিং করেন। ডা. স্ট্যাসিয়াক বলেন, ‘এটি হচ্ছে রোগী ও চিকিৎসকের মাঝে কথোপকথন এবং সেই সঙ্গে শারীরিক পরীক্ষা। চিকিৎসক রোগীর হাঁটাচলা ও ভারসাম্য দেখবেন। তারা কি হেলে পড়ছে? তারা কি কোথায় হাঁটছে তা দেখতে পাচ্ছে? তারা কি তাদের পা পর্যাপ্ত ওপরে তুলতে পারছে?’ যদি সমস্যা শনাক্ত হয়, চিকিৎসক রোগীকে ফিজিক্যাল থেরাপির জন্য রেফার করতে পারেন এবং ঘরে মডিফিকেশনের পরামর্শ দিতে পারেন, যেমন- আলো বাড়ানো এবং ধাক্কা খেয়ে পড়ে যেতে পারে এমন প্রতিবন্ধকতা সরানো।

* ইমিউনাইজেশন
টিকা নেওয়া স্ক্রিনিং টেস্ট নয়, কিন্তু ইমিউনাইজেশন আপনার জীবন বাঁচাতে পারে। ডা. স্ট্যাসিয়াক বলেন, ‘টিকা শিশুদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু প্রাপ্তবয়স্কদেরও ফ্লু, নিউমোনিয়া ও শিনগ্লেসের বিরুদ্ধে ইমিউনাইজেশন প্রয়োজন।’ বয়স, লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা, ভ্রমণ পরিকল্পনা এবং পূর্ব ইমিউনাইজেশনের ওপর নির্ভর করছে আপনার কোন ধরনের টিকা প্রয়োজন হবে।

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট

পড়ুন : জীবনরক্ষাকারী যেসব টেস্ট করানো উচিত (প্রথম পর্ব)

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩০ নভেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge