ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৫ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘আমাদের পাওয়ার অনেক কিছু ছিল, পেয়েছিও’

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-১০ ৪:১৪:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-১৭ ৬:২৫:১১ পিএম
Walton AC 10% Discount

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ১৯৯৭ সালের ১৩ এপ্রিল। মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের কিলাত ক্লাব মাঠে উড়েছিল লাল সবুজের পতাকা। দিনটিকে বলা হয় বাংলাদেশ ক্রিকেটের ‘রেড লেটার ডে’। আইসিসি ট্রফি জিতে নতুন পরাশক্তি, বাংলাদেশের উত্থানের জানান বিশ্ব ক্রিকেটকে দিয়েছিলেন আকরাম, পাইলট, রফিকরা।

২১ বছর আগে আইসিসি ট্রফি জিতে নতুন উচ্চতায় উঠেছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট। আজ সেই মালয়েশিয়াতেই রচিত হলো আরেকটি ইতিহাস। মেয়েদের এশিয়া কাপের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট বাংলাদেশের। ছেলেরা যা পারেনি, ছেলেদের কাছে এখনো যা অধরা, সেটাই করে দেখাল বাংলাদেশের মেয়েরা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম শিরোপা জয় বাংলাদেশের। সেটাও মেয়েদের হাত ধরে।

তাইতো পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে আবেগে আপ্লুত সালমা খাতুন। কত বড় অর্জন করেছেন মেয়েরা, তা অধিনায়ক সালমার কন্ঠেও স্পষ্ট হচ্ছিল, ‘আসলে আমাদের দারুণ খুশি লাগছে। আমরা প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের শিরোপা জিতেছি। বলে বোঝাতে পারব না আজকের দিনটা আমাদের জন্য কত বড় পাওয়া ছিল।’

‘আজকের ম্যাচ জিততে আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। ফাইনাল ম্যাচ, আমাদের টার্গেট ছিল ভালো কিছু করব। আমাদের হারানোর কিছু ছিল না, ওদের হারানোর অনেক কিছু ছিল। আমাদের পাওয়ার অনেক কিছু ছিল, আমরা সেটা পেয়েছি’– যোগ করেন সালমা।

টুর্নামেন্ট বাজেভাবে শুরু করেছিল বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাত্র ৬৩ রানে অলআউট হয়ে ম্যাচ হারে টাইগ্রেসরা। এরপর আর বাংলাদেশকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। পাকিস্তান, ভারত, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়াকে হারিয়ে বাংলাদেশ ওঠে ফাইনালে। ভারতকে প্রথম মুখোমুখিতে হারানোয় আত্মবিশ্বাসী ছিল বাংলাদেশ শিবির। ফাইনালেও একই আত্মবিশ্বাস ছিল জাহানারা, রুমানাদের। প্রথমে ভারতকে ১১২ রানে আটকে রাখে বাংলাদেশ। শেষ বলে দুই রান নিয়ে জয় নিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করল মেয়েরা। অসাধারণ, অনন্য, অবিশ্বাস্য।

মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিরা টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই বাংলাদেশকে সমর্থন করে আসছিল। আজও তারা ছিলেন মাঠে। বাংলাদেশ জিততেই ‘বাংলাদেশ-বাংলাদেশ’ স্লোগান দিতে দিতে তারা ঢুকে যান মাঠে। উল্লাসে মেতে ওঠেন সালমাদের সঙ্গে।  প্রবাসী বাংলাদেশিদের ধন্যবাদ দিতে ভুল করেননি অধিনায়ক, ‘সাপোর্টাররা আসলে অনেক ভালো লাগে। আমাদের বাংলাদেশের সাপোর্টার অনেক ছিল। ধন্যবাদ আপনাদের।’

চতুর্থবারের মতো এশিয়া কাপে অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। চতুর্থ আসরেই বাজিমাত করল তারা। ছয় আসরের শিরোপা জিতে ভারত একপ্রকার নিজেদের করে নিয়েছিল এশিয়া কাপ।  আজ টাইগ্রেসরা সেই গেরো ছোটাল।  নিজেদের পুরো সফর নিয়ে সালমা বলেছেন, ‘টুর্নামেন্টে আমাদের প্রথম ম্যাচটি একটু খারাপ ছিল। তারপর আমরা খুব ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছি। প্রত্যেকটি ম্যাচ আমরা জিতেছি। আশা করছি সামনে যে টুর্নামেন্টে আছে, আমরা এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখব। ’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ জুন ২০১৮/ইয়াসিন/পরাগ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge