ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

যেসব লক্ষণে আপনার ব্যাক পেইন আসলে আর্থ্রাইটিস

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-১০-০৬ ৮:০২:৫৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-১৮ ৫:১৯:০৫ পিএম
প্রতীকী ছবি
Walton AC

এস এম গল্প ইকবাল : পিঠ ব্যথায় ভুগছেন? এ থেকে রেহাই পাচ্ছেন না? বুঝতে পারছেন না কেন এ ব্যথা হচ্ছে?

এরকম ব্যথা যে শুধু বেলচা দিয়ে কাজ করা, অতিরিক্ত ভারী জিনিস উত্তোলন করা কিংবা অতিদীর্ঘ হিল জুতো পরার কারণে হচ্ছে তা নয়, আরো অনেক কারণে তা হতে পারে। নিচের লক্ষণগুলো আপনার মধ্যে দেখা দিলে বুঝবেন যে আপনার অস্টিওআর্থ্রাইটিস বা মেরুদন্ডের আর্থ্রাইটিস থাকতে পারে।

১. আপনি ব্যথাসহ জেগে ওঠেন
আপনি সকালে প্রথম যখন বিছানায় জেগে ওঠেন, তখন যদি পিঠ ব্যথা করে তাহলে তা প্রদাহের কারণে হয়, যা আর্থ্রাইটিসের লক্ষণ হতে পারে। ইলিনয়েস বোন অ্যান্ড জয়েন্ট ইনস্টিটিউটের মেডিক্যাল ডাক্তার মার্ক মিকাইল বলেন, যখন প্রদাহ থাকে, তখন আর্থ্রাইটিক পরিবর্তন আপনাকে কষ্ট দেয় না, আপনাকে কষ্ট দেয় স্নায়ু। হার্নিয়েটেড ডিস্কের কারণেও ব্যথা হতে পারে, কারণ এটি স্পাইনাল কর্ডের স্নায়ুকে ঠেলা দেয় এবং আঘাত করে। হার্নিয়েটেড ডিস্কের সঙ্গে ডিস্ক ক্ষয় রোগের সম্পর্ক আছে, যা প্রায়ক্ষেত্রে অস্টিওআর্থ্রাইটিস বা মেরুদন্ডের আর্থ্রাইটিস নির্দেশ করে। সকালে ৩০ মিনিট প্রচণ্ড পিঠ ব্যথা করে চলে যায় কিনা সতর্ক থাকুন। রিহ্যাবিলিটেশন ইনস্টিটিউট অব শিকাগোর মেডিক্যাল ডাক্তার প্রকাশ জয়াবালানের মতে, আর্থ্রাইটিসের ব্যথা দিনে তুলনামূলক ভালো হয়, কিন্তু সন্ধ্যায় অবস্থা একটু খারাপ হয়। সন্ধ্যাকালীন ব্যথা আর্থ্রাইটিসের কারণে নাও হতে পারে, দৈনিক কাজের চাপের জন্য হতে পারে, যেমন- যেমন কর্মস্থলে বসে কাজ করা।

২. শরীরের অন্যান্য অংশে ব্যথা করে
মেরুদণ্ডের আর্থ্রাইটিস বৃদ্ধি পেলে, কশেরুকার ক্ষয় এবং ছিঁড়ে যাওয়ার কারণে স্পাইনাল কর্ড ও স্নায়ুতে পীড়াদায়ক ও সংকোচন অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে। যেহেতু আপনার পিঠের নিম্নস্থ স্নায়ুর সঙ্গে শরীরের বিভিন্ন অংশের সম্পর্ক আছে, সেহেতু আপনি শ্রোণিচক্র ও উর্ধ্বস্থিত উরুর হাড়ের অভিক্ষিপ্ত অংশ, নিতম্ব, পা এবং চরণে ব্যথা, অসাড়তা, রণন ও দুর্বলতা অনুভব করতে পারেন। ড. জয়াবালান বলেন, এসব স্নায়ু পায়ের পেশির নিচে নামে, তাই তারা দুর্বলতার কারণ হতে পারে।

৩. আপনার মেরুদণ্ড অত্যধিক অনমনীয় হতে পারে
ড. জয়াবালান বলেন, এমনকি আপনি ব্যথা না পেলেও সকালে আপনি অনুভব করতে পারেন যে আপনার মেরুদণ্ড অনমনীয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রে, হাঁটাচলা করলে এই অনমনীয়তা মেরুদণ্ড ক্ষয় করবে। রাতে ব্যথা হতে পারে, কারণ দিনে জয়েন্ট চাপে ছিল। সামনের দিকে এবং পেছনের দিকে ঝোঁকা বেদনাদায়ক হতে পারে। ব্যথা একস্থান থেকে অন্যস্থানে যেতে পারে, যেমন- একদিন কাঁধে ব্যথা লাগলে পরেরদিন গলাতে ব্যথা হতে পারে এবং এভাবে ব্যথা অন্যস্থানেও ছড়াতে পারে।

৪. ব্যথা খারাপ অবস্থার দিকে ধাবিত করতে পারে
সবাই বিভিন্নভাবে ব্যথা অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হন এবং এক্ষেত্রে ডাক্তার দেখানোর কোনো সঠিক সময় বা ভুল সময় নেই। ড. জয়াবালান বলেন, কিছু রোগী একেবারে নতুন ব্যথা নিয়ে আসে এবং অন্যান্য রোগী কয়েকমাস বা বছর বা কয়েক বছর শরীরে এখানে ওখানে ব্যথায় ভুগে হাজির হয়। ড. মিকাইল ব্যথা অনুভূত হলে এবং ব্যথা চার থেকে ছয় সপ্তাহের বেশি থাকলে ডাক্তার দেখাতে পরামর্শ দেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, পেশির টান খাওয়া ও ছোটোখাটো ইনজুরি এই সময়ের (৪/৬ সপ্তাহ) মধ্যে সেরে যায়। তাই অবিরাম ব্যথা লাগলে এবং বিশেষ করে অবস্থা খারাপের দিকে যেতে থাকলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন।

৫. ব্যথা আপনার ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে
পিঠ ব্যথা যদি আপনাকে ঘুমুতে না দেয়, তাহলে আপনি ভিশাচ সাইকেল বা দুষ্ট চক্রের মধ্যে আছেন। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে ব্যথা আরো বেড়ে যেতে পারে। যদি ব্যথা আপনাকে ঘুমুতে না দেয়, তাহলে তা উপশম করা ছাড়া কোনো উপায় নেই। ড. জয়াবালান বলেন, ব্যথা যদি খুব উল্লেখযোগ্য হয়, যা আপনার ঘুম এবং কোয়ালিটি অব লাইফে খারাপ ফেলছে, তাহলে আমি বলব ডাক্তার দেখানোর এখনই সময়।

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৬ অক্টোবর ২০১৭/ফিরোজ

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge