ঢাকা, রবিবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৫, ২৪ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

যেসব বিষয়ে চিকিৎসককে মিথ্যা বলা উচিত নয় (শেষ পর্ব)

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২৯ ১১:২৬:০১ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-২৯ ১২:৫২:০৪ পিএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : আপনি কি পরিমাণে ধূমপান করেন, মদ্যপান করেন, ভোজন করেন ও ব্যায়াম করেন, যৌনসহবাসের সময় প্রোটেকশন ব্যবহার করেন কিনা, প্রায়সময় বাইরে সূর্যের আলোতে থাকেন কিনা ইত্যাদি বিষয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে মিথ্যা বলবেন না। আপনার সঠিক তথ্য আপনার চিকিৎসককে সঠিক মূল্যায়নে সাহায্য করবে।

আপনার চিকিৎসককে কখনো মিথ্যা বলা উচিত নয় এমন ১৪টি বিষয় দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ থাকছে শেষ পর্ব।

* আপনার গর্ভপাত
গর্ভপাত এমন একটি সেনসিটিভ টপিক যা নিয়ে আলোচনা করা সহজ নয়, এমনকি চিকিৎসকের সঙ্গেও। রিপ্রোডাক্টিভ স্পেশালিস্ট জেন ফ্রেডেরিক বলেন, ‘কিন্তু যদি আপনি গর্ভবতী হতে চান, তাহলে আপনার চিকিৎসকের আপনার পুরো মেডিক্যাল ইতিহাস জানা প্রয়োজন, যার মধ্যে গর্ভপাতও অন্তর্ভুক্ত।’ তিনি যোগ করেন, ‘জরায়ুতে স্কার টিস্যু ও ড্যামেজ হতে পারে। আইভিএফের সময় কোনো ভ্রুণ ইমপ্লান্ট করার পূর্বে আমরা নিশ্চিত হতে চাই যে ইউটেরিন ক্যাভিটি বা জরায়ু গহ্বর সুস্থ আছে। গর্ভপাত সম্পর্কে জ্ঞান আমাদেরকে সঠিকভাবে জরায়ু মূল্যায়নে সাহায্য করে এবং উপযুক্ত মেডিক্যাল প্রোটোকল অফার করে- গর্ভপাত হয়েছে কিনা জানা থাকলে জরায়ু ইমপ্লান্টেশনের জন্য প্রস্তুত কিনা তা নিশ্চিত হতে আমরা অতিরিক্ত পদক্ষেপ নিতে পারি।’

* আপনার মানসিক অনুভূতি
অল্প জানাশোনা কেউ ‘আপনি কেমন অনুভব করছেন’ জিজ্ঞেস করলে উত্তর দিতে পারেন ‘ভালো’- আপনার মানসিক অবস্থা যেমনই হোক না। কিন্তু চিকিৎসক এমন প্রশ্ন করলে অনুরূপ জবাব দেওয়া উচিত নয়, যদি সত্যিই আপনি মানসিকভাবে ভালো না থাকেন। যদি বিরক্তি অনুভব করেন, চিকিৎসককে তাই বলুন। বিষণ্ন বা উদ্বিগ্ন? চিকিৎসককে বলুন। অনুভূতিকে সংজ্ঞায়িত করতে পারছেন না? চিকিৎসককে খুলে বলুন। বোস্টনের ফার্টিলিটি স্পেশালিস্ট মাইকেল অ্যালপার বলেন, ‘আপনি খারাপ যা-ই কিছু অনুভব করেন না কেন, এসব অনুভূতি আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে শেয়ার করুন। আমরা আপনার আবেগ বুঝি। অনুভূতি যেমনই বাজে হোক না কেন, সত্য বলুন, এটি আপনাকে ভালো অনুভব করতে সাহায্য করবে। আপনার অনুভূতির প্রকাশ আমাদেরকেও সাহায্য করে। কোনো চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলার সময় সত্য কথন আপনার মনকে উন্মুক্ত করবে, এটি চিকিৎসকদেরকে প্রয়োজনীয় তথ্য পেতে সাহায্য করবে এবং আপনাকে আত্মবিশ্বাস ও নিয়ন্ত্রণের নতুন অনুভূতি দেবে।’

* আপনার যৌন ইতিহাস
আপনি কি অনিরাপদ যৌনসহবাস করেন? আপনার কি কোনো যৌনবাহিত রোগ আছে?- এসব হচ্ছে ব্যক্তিগত প্রশ্ন, কিন্তু এই প্রশ্নগুলোর উত্তর চিকিৎসকদের অবশ্যই জানা থাকা প্রয়োজন। চিকিৎসকরা এসবের মীমাংসা করবে না, আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করবে। এ প্রসঙ্গে সিসিআরএম-এনওয়াই’র ফার্টিলিটি প্রিজারভেশনের পরিচালক জিমি এম. নপম্যান বলেন, ‘আমরা জানার চেষ্টা করি যাতে আপনাকে নিরাপদে রাখতে পারি এবং নিরাপদ যৌন চর্চা সম্পর্কে শিক্ষা দিতে পারি। যদি আমরা না জানি যে আপনি কি করছেন তাহলে আপনার প্রকৃত শারীরিক সমস্যা নির্ণয় বিলম্ব হতে পারে এবং আপনার রিপ্রোডাক্টিভ অর্গানকে সুস্থ রাখতে সর্বোত্তম উপায় নির্বাচন কঠিন হতে পারে।’

* আপনার সর্বশেষ চিকিৎসকের কাছে যাওয়া
যদি আপনি পূর্বে কোনো চিকিৎসকের কাছে গিয়ে থাকেন, তাহলে নতুন চিকিৎসকের কাছে তা প্রকাশ করুন। এ বিষয়ে নতুন চিকিৎসকের কাছে সত্য এড়িয়ে যাবেন না, যাতে তিনি সঠিকভাবে আপনার চিকিৎসা করতে পারেন। ডা. নপম্যান বলেন, ‘যদি আপনি নতুন ফিজিশিয়ানের কাছে যান, তাহলে তারা জানে না যে কি হয়েছিল এবং পূর্বে এর অবস্থা কেমন ছিল। রুটিন স্ক্রিনিং আপনাকে নিরাপদে রাখে। আপনি সর্বশেষ কবে চিকিৎসকের কাছে গিয়েছেন এবং তারা কি পরীক্ষা করেছিলেন বা করেননি তা সম্পর্কে মিথ্যা বলবেন না। এ বিষয়ে আপনার সত্য প্রকাশ আমাদেরকে আপনাকে ভবিষ্যতে সর্বোত্তম চিকিৎসা সেবা দিতে সাহায্য করে।’

* আপনার নার্ভাসনেস
এমনকি আপনার আইয়াট্রোফোবিয়া (কোনো চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার ভয়) না থাকলেও এটি খুব কমন যে আপনি অসুস্থ হলে নার্ভাস অনুভব করবেন। যদি আপনি গুগলে আপনার লক্ষণ বা উপসর্গ সম্পর্কে সার্চ করেন, তাহলে আপনি ভাবতে পারেন যে মারাত্মক কোনোকিছু হয়েছে, কিন্তু অযথা দুশ্চিন্তা না করে চিকিৎসকের কাছে যান- তিনি আপনাকে স্বস্তি ও স্বাচ্ছন্দ্য অনুভব করতে সাহায্য করবেন। সর্বোত্তম সেবা পাওয়ার একটি উপায় হচ্ছে, আপনি যা নিয়ে ভীত তা চিকিৎসকের কাছে প্রকাশ করা। কলোরাডোর ডেন্টিস্ট ন্যান্সি ই. গিল বলেন, ‘আমরা আপনার উদ্বেগ বা নার্ভাসনেস উপশম করার জন্য অপশন দিতে ভালোবাসি। আপনি যা নিয়ে ভীত তা সম্পর্কে প্রকাশ আমাদেরকে সাহায্য করে।’

* আপনার সূর্যের নিচে কাটানো সময়ের পরিমাণ
এমনকি শীতের শীতলতম দিন অথবা মেঘাচ্ছন্ন বা বৃষ্টির দিনেও আপনার ত্বককে ক্ষতিকর ও বিপজ্জনক রশ্মি থেকে রক্ষা করতে ডার্মাটোলজিস্টরা সানস্ক্রিন বা সান প্রোটেকশনের অন্যান্য ফর্ম ব্যবহার করতে পরামর্শ দেন। আপনার চিকিৎসক আপনি বাইরে বা সূর্যের নিচে কতটুকু সময় ব্যয় করেন তা জানতে চাইবেন, যাতে তারা আপনার শখ, অভ্যাস ও সান ড্যামেজের ঝুঁকির পরিমাণ সম্পর্কে জানতে পারেন। টেনেসির ডার্মাটোলজিস্ট পুরভিশা প্যাটেল বলেন, ‘অধিকাংশ লোক অনুধাবন করে না যে তারা গাড়ির বাইরে থাকা অবস্থায় অথবা বাইরে কাজ বা খেলাধূলা করার সময় নিয়মিত ভিত্তিতে সান এক্সেোজার পেয়ে থাকে।’ তিনি যোগ করেন, ‘সূর্যের কারণে স্কিন ক্যানসার হয়ে থাকে, তাই রোগীদের সান প্রোটেকশন ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ এবং তাদের জীবনযাপন সম্পর্কে চিকিৎসকদের জ্ঞান সর্বোত্তম প্রতিরোধ ব্যবস্থা সাজেস্ট করতে সাহায্য করে।’

* আপনার মদ্যপানের পরিমাণ
আপনি এক সপ্তাহে কি পরিমাণ মদ্যপান করেন? ফ্যামিলি বা বেস্ট ফ্রেন্ডদের সঙ্গে আনন্দে মাতার ওপর ভিত্তি করে এ প্রশ্নের বিভিন্ন উত্তর হতে পারে, কিন্তু আপনার চিকিৎসক যা জানতে চান তা হচ্ছে আপনার অভ্যাস। নিউরোলজি গ্রুপ আইজিইএ ব্রেইন অ্যান্ড স্পাইনের সদস্য নিউরোসার্জন ডেভিড পৌল্যাড বলেন, ‘এটি জানা বিশেষভাবে অপরিহার্য যদি আপনার সার্জারি প্রয়োজন হয়, কারণ অ্যালকোহলের অপব্যবহার আপনার যকৃতে স্থায়ী ড্যামেজিং ইফেক্ট সৃষ্টি করতে পারে যা রক্তপাত বৃদ্ধি করতে পারে।’ অত্যধিক অ্যালকোহন পান করা রোগীদের চিকিৎসার সময় বিভিন্ন জটিলতা বা সমস্যা দেখা দিতে পারে। যদি চিকিৎসকরা অ্যালকোহল অপব্যবহারের ইতিহাস জানেন, তাহলে তারা সম্ভাব্য জটিলতা এড়ানোর জন্য ব্যবস্থা নিতে পারেন।

পড়ুন : যেসব বিষয়ে চিকিৎসককে মিথ্যা বলা উচিত নয় (প্রথম পর্ব)




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৯ মে ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
   
Walton AC