RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৭ ||  ১১ সফর ১৪৪২

শোক দিবস: প্রস্তুতিসভায় হামলার অভিযোগ উপজেলা আ. লীগ সভাপতির 

হিলি সংবাদাদতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৩৫, ১৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
শোক দিবস: প্রস্তুতিসভায় হামলার অভিযোগ উপজেলা আ. লীগ সভাপতির 

দিনাজপুরের হাকিমপুরে হিলিতে অস্থায়ী দলীয় কার্যালয়ে হামলার অভিযোগ করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী। ওই অভিযোগ তিনি এনেছেন খোদ ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়নে নির্বাচিত পৌর মেয়র ও উপজেলা পরিষদের চেয়াম‌্যানের বিরুদ্ধে। তবে অভিযুক্ত নেতারা মারপিটের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। 

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) রাত সাড়ে ৯টায় হিলি থানা মোড়ে শহিদুল ইসলামের বাসায় অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা অধ্যাপক সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমান, সাবেক হাকিমপুর পৌর মেয়র কামাল হোসেন রাজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন শাদো, পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

হাকিমপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত মোতাবেক, মাসব্যাপী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসটি উদযাপন হবে। এই উপলক্ষে গত ৯ আগস্ট বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত পত্রের আলোকে দলের উপজেলা সংগঠনিক প্রধান হিসাবে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে গত ১১ আগষ্ট থানা রোড অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের পত্রটি পাঠ করে শুনাই। এসময় নেতাদের মতামত দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাই।’

‘উপস্থিত সকল নেতৃবৃন্দ সভাপতিকে কাছে আওয়ামী লীগের নিজস্ব কার্যালয় ভেঙে ফেলার পর তা গত ১ বছর যাবত নির্মিত না হওয়ার কারণ জানতে চান। তারা জানতে চান, অদ্যবধি দলীয় কার্যালয় না থাকায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি কোথায় পালিত হবে? সে পরিপ্রেক্ষিতে আমি উপজেলা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে হিলি-ঘোড়াঘাট রোডের থানা মোড়ে অস্থায়ী দলীয় কার্যালয়ে শোক দিবসের যাবতীয় কার্যক্রম পালন করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের আহ্বান জানাই। যথাযথ মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি পলিনের লক্ষ্যে আমি সভাপতি এবং উপস্থিত নেতৃবৃন্দের সর্বসম্মতিক্রমে অধ্যাপক সৈয়দ মোস্তাফিজুর রহমানকে আহ্বায়ক ও নুরুল ইসলামকে সদস্য সচিব করে ১৭ সদস‌্যের জাতীয় শোক দিবস উদযাপন কমিটি গঠন করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘কমিটির আহ্বায়ককে ১৩ আগস্ট সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সরকারি নিয়ম-নীতির মাধ্যমে যথাযথ মর্যাদায় দলীয় কর্মসূচি পালনের জন্য প্রস্তুতিসভা আহ্বানের জন্য নির্দেশ দিই। সেই সিদ্ধান্তের আলোকে ১৩ আগস্ট বিকেল ৪টায় আহ্বায়ক কমিটির উপস্থিতিতে সভা চলার সময় আকস্মিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান লিটন, হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনুর রেজা এবং পৌর মেয়র জামিল হোসেন চলন্তের নেতৃত্বে ২৫ থেকে ৩০ জন ভাড়াটে সন্ত্রাসী শোক দিবসের প্রস্তুতিমুলক সভায় উপস্থিত নেতৃবৃন্দের ওপর আকস্মিকভাবে আক্রমন করে দলীয় সাইনবোর্ড ভাঙচুর করে পদদলিত করে সাইন বোর্ডটি নিয়ে চলে যায়। বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও বোয়ালদাড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদৎ শাদোকে সভাকক্ষের সামনে চড়াও হয়ে মারধর করে এবং তার মোটরসাইকেলটি ভাঙচুর করে। এই ঘটনায় ১৩ আগস্ট রাতেই হাকিমপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এহেন ন্যাক্কার জনক ঘটনার আমি তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই এবং সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে বলে আশা রাখছি।’

এ বিষয়ে হাকিমপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান লিটন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের সিপি রোডের দলীয় কার্যালয়টি সংস্কারের জন্য ভেঙ্গে ফেলায় হিলি বাজারে অস্থায়ীভাবে একটি কার্যালয় ব্যবহার করা হচ্ছে। তারপরও দলীয় কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই থানা রোডে আরও একটি অস্থায়ী কার্যালয়ের সাইনবোর্ড তুলে অফিস করার চেষ্টা করলে দলীয় নেতাকর্মীরা তাদের প্রতিহত করেছেন। তবে কোন মারপিটের ঘটনা ঘটেনি।’

মোসলেম/সাজেদ 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়