ঢাকা     সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩ ১৪৩১

৪-৫ নভেম্বর বরিশালে বাস চলাচল বন্ধের আল্টিমেটাম

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৪৩, ২৬ অক্টোবর ২০২২   আপডেট: ২১:১৭, ২৬ অক্টোবর ২০২২
৪-৫ নভেম্বর বরিশালে বাস চলাচল বন্ধের আল্টিমেটাম

আগামী ৩ নভেম্বরের মধ্যে মহাসড়কে নসিমন-করিমনসহ অন্যান্য অবৈধ যান চলাচল বন্ধ না হলে ৪ নভেম্বর সকাল থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত বরিশাল নগরীর উত্তর ও দক্ষিণাংশের সকল স্থানীয় ও দূরপাল্লা রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখার হুঁশিয়ারি দিয়েছে মালিকরা। 

লঞ্চ মালিক-শ্রমিক সংগঠনগুলোর পূর্বের বিভিন্ন দাবিতে একই সময়ে লঞ্চ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে যেতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন লঞ্চ মালিকরা। 

বিএনপির ৫ নভেম্বরের বরিশালে বিভাগীয় গণসমাবেশ সামনে রেখে বাস বন্ধের ঘোষণা ‘নাটক’ বলে দাবি করেছেন মহানগর বিএনপির শীর্ষ নেতারা। কোনো বাধা বিএনপির জনসমূদ্র রুখতে পারবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন তারা। তবে আওয়ামী লীগ এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।  

বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে বলে বিভাগীয় কমিশনার জানিয়েছেন। 

গত ২৪ অক্টোবর বিভাগীয় কমিশনারকে দেওয়া জেলা বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি গোলাম মাসরেক বাবলু ও সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার দে সাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, মহাসড়কে থ্রি হুইলার, নসিমন-করিমনসহ অন্যান্য অবৈধ যান চলাচল দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। পদ্মা সেতু চালুর পর দক্ষিণবঙ্গে বাস চলাচল বেড়েছে। মহাসড়কে অবৈধ যান চলাচল করায় প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। এমতাবস্থায় যাত্রী সাধারণের নিরাপদ চলাচলের লক্ষ্যে মহাসড়কে অবৈধ যান বন্ধে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ২০২০ সালের ২৯ মের সিদ্ধান্ত কার্যকর করার দাবি জানানো হয় চিঠিতে। 

অন্যথায় ৪ নভেম্বর সকাল থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে নগরীর উত্তরাংশে আঞ্চলিক ও দূরপাল্লা রুটে বাস ও মিনিবাস চলাচল বিরত থাকবে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বিভাগীয় কমিশনারকে অনুরোধ জানানো হয় চিঠিতে।  

গত ২২ অক্টোবর বিভাগীয় কমিশনার বরাবর বরিশাল-পটুয়াখালী বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন স্বাক্ষরিত অনুরূপ চিঠিতে ৩ নভেম্বরের মধ্যে দক্ষিণের মহাসড়কে অবৈধ যান বন্ধ না হলে ৪ ও ৫ নভেম্বর বাস চলাচল বিরত রাখার কথা জানানো হয়। 

৫ নভেম্বর বরিশালে বিএনপির পূর্বঘোষিত বিভাগীয় গণসমাবেশ সামনে রেখে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বিএনপি নেতারা। 

মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান ফারুক বলেন, বিভাগীয় গণসমাবেশের প্রাক্কালে বরিশালের উত্তর ও দক্ষিণাংশে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা ক্ষমতাসীনদের নাটক। এটা খুলনার পুনরাবৃত্তি। তবে কোনো বাধা বিএনপির গণস্রোত রুখতে পারবে না। ৫ নভেম্বর বরিশালে স্মরণকালের সর্ববৃহত গণসমাবেশ হবে বলে আশা করেন তিনি। 

কোনো দলীয় দৃষ্টিকোণ থেকে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন বরিশাল-পটুয়াখালী বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন। তিনি বলেন, মহাসড়কে অবৈধ যান বন্ধের দাবি দীর্ঘদিনের। ধারাবাহিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে এই আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে। ৩ নভেম্বরের মধ্যে মহাসড়কে অবৈধ যান বন্ধ হলে রুটের বাস চলাচল বন্ধের প্রয়োজন হবে না। 

৪ ও ৫ নভেম্বর বাস চলাচলে বন্ধের ঘোষণা ক্ষমতাসীনদের ‘নাটক’ বিএনপির এমন অভিযোগের বিষয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম বলেন, আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক এমন কোনো সিদ্ধান্ত নেই। বাস মালিকদের আভ্যন্তরীণ কোনো বিষয় আছে কি-না, তা তারা জানেন না। 

এ বিষয়ে বিভাগীয় কমিশনার মো. আমিন উল আহসান বলেন, বাস মালিক-শ্রমিকদের দাবি ন্যায্য। মহাসড়কে অবৈধ যান চলা উচিত না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মহাসড়কে অবৈধ যান আটক করে। আবার ফাঁক গলে চলাচল করে। গত সোমবার আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় মহাসড়কে নসিমন-করিমসহ অবৈধ যান বন্ধে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বাস মালিকদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান।

নগরীর নথুল্লাবাদ টার্মিনাল থেকে উত্তরাংশের স্থানীয় বাস ও ঢাকা-খুলনাসহ সারা দেশে দূরপাল্লা বাস চলাচল করে। এ ছাড়া রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে সমূদ্র সৈকত কুয়াকাটাসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অন্তত ১৭টি রুটে বাস চলাচল করে। বাস বন্ধ হলে এসব রুটে চলাচলকারী যাত্রীরা পড়েন দুর্ভোগে। 
 

স্বপন/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ