ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৮ ১৪৩১

নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন অভিযোগের জবাব দিলেন সাকিব

মাগুরা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫৩, ১ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ২০:৪২, ১ ডিসেম্বর ২০২৩
নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন অভিযোগের জবাব দিলেন সাকিব

নির্বাচনি আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশের জবাব দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। আজ শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) বিকেলে মাগুরা জেলা দায়রা জজের আদালতে হাজির হয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) গঠন করা মাগুরা-১ নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির নোটিশের জবাব দিয়েছেন তিনি।

বিকাল ৩টা ৪৫মিনিটে সাকিব কমিটির প্রধান মাগুরার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ সত্যব্রত শিকদারের খাস কামরায় হাজির হয়ে লিখিত জবার দেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার পর বুধবার (২৯ নভেম্বর) ঢাকা থেকে মাগুরা আসার পথে জনসমাগম, শোডাউন ও সংবর্ধনা নেন সাকিব। এতে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।

তাকে আজ শুক্রবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) গঠন করা মাগুরা-১ নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির কাছে উপস্থিত হয়ে ওই নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়।

বৃহস্পতিবারের ওই নোটিশে বলা হয়, ঢাকা থেকে মাগুরায় আসার সময় কামারখালী এলাকা থেকে শোডাউন করে গাড়িবহর নিয়ে মাগুরা শহরে প্রবেশ করেন। তাতে জনগণের চলাচলের পথে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়। যা গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশিত হয়েছে। এটির মাধ্যমে আপনি সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন। নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে আপনার বিরুদ্ধে কেন আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, সেই বিষয়ে লিখিত জবাব দিতে বলা হয়।

এ বিষয়ে সাকিব আল হাসানের আইনজীবী সাজেদুর রহমান সংগ্রাম বলেন, সাকিব মাগুরায় আসেন। তখন কামারখালী এলাকায় জমা হয় তার ভক্ত ও উৎসুক জনতা। সেখানে ভক্ত ও সাধারণ জনতা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। সেখানে রাজনৈতিক কর্মসূচি ছিল না। কিংবা দলীয় কাউকে তিনি ডাকেননি। নোটিশের জবাবে এসব কথা উল্লেখ করা হয়েছে। 

মাগুরা-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আচরণবিধিমালায় বলা হয়েছে, কোনো নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল কিংবা এর মনোনীত প্রার্থী বা স্বতন্ত্র প্রার্থী কিংবা তাদের পক্ষে অন্য কোনো ব্যক্তি ভোট গ্রহণের জন্য নির্ধারিত দিনের তিন সপ্তাহ সময়ের আগে কোনো প্রকার নির্বাচনী প্রচার শুরু করতে পারবে না।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে আগামী ৭ জানুয়ারি। সেই হিসাবে ১৫ ডিসেম্বরের আগে কেউ নির্বাচনী প্রচার চালাতে পারবে না।

আদালত থেকে বের হয়ে সাকিব আল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত ২৯ তারিখে আমি ঢাকা থেকে মাগুরায় আসলে আমার ভক্তসহ শহরবাসী আমাকে শুভেচ্ছা জানান। এটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। এ ঘটনার জন্য আমি দুঃখিত। আমি নির্বাচনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তবে নির্বাচনে আমি প্রথম ও নতুন। আগামীতে যেন এ রকম ঘটনা না ঘটে, সেদিকে আমি দৃষ্টি রাখব।’
 

শাহীন/বকুল 

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়