ঢাকা     শনিবার   ২০ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

আচরণবিধি লঙ্ঘন

আদালতে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজ

পাবনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৫০, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৬:৫৪, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩
আদালতে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজ

‘পাবনা-৩ আসনে মকবুল হোসেন চাচা ছাড়া কেউ ভোট করতে পারবে না। যারা নৌকার বিপক্ষে অবস্থান করবে আমরা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলাম’ এমন বক্তব্য দেওয়ার জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজ।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে পাবনা যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালতে স্বশরীরে হাজির হয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে তিনি তার লিখিত ব্যাখ্যা উপস্থাপন করেন।

মিজানুর রহমান সবুজের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মকিবুল ইসলাম লাভলু এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অ্যাডভোকেট মকিবুল ইসলাম লাভলু বলেন, আদালতে দেওয়া ব্যাখ্যায় সবুজ তার বক্তব্য ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন। তিনি আদালতের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমতা চেয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২ ডিসেম্বর পাবনার চাটমোহরে এক পথসভায় ‘পাবনা-৩ আসনে মকবুল হোসেন চাচা ছাড়া কেউ ভোট করতে পারবে না। যারা নৌকার বিপক্ষে অবস্থান করবে আমরা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলাম’ এমন বক্তব্য দেন ছাত্রলীগ সভাপতি সবুজ। ৩ ডিসেম্বর বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর নজরে আসে আদালতের। পরে স্ব-প্রণোদিত হয়ে ‘নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা ভঙ্গের কারণে কেন সবুজের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না’ তা জানতে চেয়ে নোটিশ দেন আদালত। পাবনা-৩ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধানী কমিটির সদস্য, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ তাজউল ইসলাম সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে তলবের নোটিশ জারি করেন। মঙ্গলবার মিজানুর রহমান সবুজকে স্বশরীরে অথবা তার প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিত জবাব দাখিলের নিদেশ দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোনো মন্তব্য করতে রাজী হননি পাবনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজ।

আদালত সূত্র জানায়, ছাত্রলীগ সভাপতির ব্যাখ্যা পাওয়া গেছে। সেটি নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হবে। সেখান থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শাহীন/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়