ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৬ ১৪৩১

মৎসজীবী লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৪৪, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
মৎসজীবী লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

আলোচিত শাকিল হত্যা মামলার প্রধান আসামি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান (ইউপি) রফিকুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঠাকুরগাঁও স্থানীয় সরকার এর উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) রামকৃষ্ণ বর্মন। 

এর আগে, গত মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব পুরবী গোলদার স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ দেওয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৬ নম্বর ভানোর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগপত্র বিজ্ঞ আদালত স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইনে জেলা প্রশাসক ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন। রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে উল্লিখিত অভিযোগে তার দ্বারা ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয় মর্মে সরকার মনে করে। সেহেতু, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে স্বীয় পদ হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো। এ আদেশ যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে জনস্বার্থে জারি করা হলো এবং তা অবিলম্বে কার্যকর হবে।

এর আগে, ভানোর ইউনিয়ন মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি শাকিল হত্যাকাণ্ডে তার ভাই যুবলীগ নেতা সাঈদ আলমের করা মামলায় ২০২২ সালের ৩ নভেম্বর দুই শতাধিক লোকের শোডাউন নিয়ে আদালতে আত্মসমার্পন করে জামিন চাইতে গেলে জামিন না মঞ্জুর করে রফিকুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। চেয়ারম্যানকে কারাগারে নেওয়ার সময় আদালতে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীরা ছবি তুলতে গেলে তাদের ওপর হামলার চেষ্টা করেন চেয়রাম্যানের লোকজন। পরে ৩০ নভেম্বর একই আদালতে পুনরায় জামিনের আবেদন করলে জামিন পান ওই চেয়ারম্যান। পরে কারামুক্ত হন তিনি। এরই প্রেক্ষিতে গত বছরে ২৪ জানুয়ারি নিম্ন আদালতের আদেশ চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে রিট করেন মামলার বাদী সাঈদ আলম। পরে ওই রিট শুনানিতে রুল জারি করে উচ্চ আদালত জানতে চান ইউপি চেয়ারম্যানের জামিন কেন বাতিল করা হবে না।

গত ১২ মার্চ উচ্চ আদালতের বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি মো. বজলুর রহমানের জারি করা রুল আদেশের ওপর গত ১৪ জুন শুনানি হয় বিচারপতি ফাতেমা নজীব ও বিচারপতি ফাহমিদা কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে। সেখানে আদালত ইউপি চেয়ারম্যানের জামিন বাতিল করেন এবং একই সঙ্গে জামিন স্থগিতের আদেশ হাতে পাওয়ার দুই সপ্তাহের মধ্যে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন উচ্চ আদালত।

ঠাকুরগাঁও স্থানীয় সরকার এর উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) রামকৃষ্ণ বর্মন বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ৩ সেপ্টেম্বর তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম ও যুবলীগ নেতা সাঈদ আলম পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে সাঈদ আলমের ভাই মৎস্যজীবী লীগ নেতা শাকিল আহমেদ মারা যান। ওই ঘটনার পরদিন বালিয়াডাঙ্গী থানায় ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামসহ ২০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন যুবলীগ নেতা সাঈদ আলম। সেই মামলায় তিন আসামি পলাতক রয়েছেন। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠালেও তারা জামিনে মুক্ত হন।

মঈনুদ্দীন/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়