ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ১২ ১৪২৮ ||  ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কেমন আছেন সেই আল আমিন!

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৩৮, ২ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৪:৪৬, ২ ডিসেম্বর ২০২১
কেমন আছেন সেই আল আমিন!

সন্তান কোলে গুরুতর আহত হয়ে বেঁচে ফেরা আল-আমিন

১০ বছর আগে সাভারের আমিন বাজারে ছয় ছাত্রকে ডাকাত সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় নিহতদের বন্ধু আল-আমিন গুরুতর আহত হলেও বেঁচে যান। তবে ভালো নেই সেই আল আমিন।

এই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইসমত জাহান রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ১৩ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড এবং ১৯ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় ২৫ জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

রায় শুনতে আদালতে উপস্থিত হন ভূক্তভোগী সেই পরিবারের সদস্যরা। আদালতে আসেন আল-আমিনের বাবা, চাচা, ভাই।

রায় শেষে আল-আমিনের বাবা হবি ব্যাপারীর সঙ্গে কথা হয়। কেমন আছে আল আমিন জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘ওর তো কিছু নাই। ওরে এমনভাবে মারছে যে স্বাভাবিক জীবনে আর ফিরতে পারে নাই। ওরে পিঠে, মাথায় এমনভাবে কোপাইছে যে ১০ বছরেও পুরোপুরি সুস্থ হয়নি। ওই সময় তো ভেবেছিলাম মারাই গেছে।’

দুই ছেলে এক মেয়ে আর স্ত্রীকে নিয়ে হবি ব্যাপারীর সংসার। বছর চারেক আগে আল-আমিন বিবাহ করেছে। আরাফাত রহমান নামে একটি ছেলে সন্তান রয়েছে আল-আমিনের। কোনোমতে অটো চালিয়ে সংসার চলছে তাদের।

হবি ব্যাপারী বলেন, ‘আশা ছিল ছেলেকে আইনজীবী বানাবো। কিন্তু সেই আশা আর পূরণ হলো না। ও এখন অটো চালায়। ওকে এমনভাবে মারছে সেই ঘটনা মনে পড়লে সে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। এখনো ঘুমের ঘরে আঁতকে ওঠে। জানি না কবে যে ছেলেটা স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে।’

আল-আমিন মামলার রায় শুনেছে কি না জানতে চাইলে হবি ব্যাপারী বলেন,‘ফোনে বলছি। এ রায়ে সে খুশি।’

আল-আমিনের চাচা বলেন,‘ঘটনার পর খবর পেয়ে আমি থানায় যাই। ভেবেছিলাম তো মরেই গেছে। আল্লাহর রহমতে এখনো সে বেঁচে আছে। সবাই ওর জন্য দোয়া করবেন।’ 

আরও পড়ুন: সাভারে ৬ ছাত্র হত্যা: ১৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড

সাভারে ৬ ছাত্র হত্যা: রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি 

রায়ে সন্তোষ রাষ্ট্রপক্ষ, নাখোশ আসামিপক্ষ

আদালত পাড়ায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের স্বজনের আহাজারি

ঢাকা/মামুন/টিপু  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়