RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৩ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ৮ ১৪২৭ ||  ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

স্বাস্থ্য সুরক্ষায় স্টক এক্সচেঞ্জের বিশেষ গুরুত্ব

নুরুজ্জামান তানিম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০০:৫৫, ৩০ মে ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
স্বাস্থ্য সুরক্ষায় স্টক এক্সচেঞ্জের বিশেষ গুরুত্ব

করোনা পরিস্থিতিতেই বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সম্মতিতেই আগামী ৩১ মে থেকে পুঁজিবাজারে লেনদেন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে কর্তৃপক্ষ।

দুই মাসেরও বেশি সময় পর ফের লেনদেন চালু হতে যাচ্ছে। তবে এ পরিস্থিতিতে লেনদেন চালুর ক্ষেত্রে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষ।

এইকইসঙ্গে বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষার্থে সকল ব্রোকারেজ হাউজকে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য উভয় স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষ অনুরোধ জানিয়েছে। সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছে ব্রোকারেজ হাউজ কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, ডিএসই বিল্ডিং এবং ডিএসই এনেক্স বিল্ডিং এর প্রবেশের ক্ষেত্রে সরকারে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যবিধি মেন ট্রেকহোল্ডার, ট্রেকহোল্ডার কোম্পানির কর্মকর্তা কর্মচারী ও বিনিয়োগকারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার, থার্মাল স্ক্যানার এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে।

এছাড়া স্টক এক্সচেঞ্জের যেসব কর্মীরা গণপরিবহনে যাতায়াত করেন এবং যারা নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছেন, তাদের পার্সেনাল প্রটেক্টিভ ইক্যুইপমেন্ট (পিপিই) সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষ।

এদিকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের লক্ষ্যে ডিএসই’র চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) এম সাইফুর রহমান মজুমদারকে আহ্বায়ক করে ছয় সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটি এ বিষয়গুলো সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবে। স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করতে টপ লেভেল কর্মকর্তাদের দপ্তর নিজেরাই পরিচ্ছন্ন রাখবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কর্মক্ষেত্রে রোস্টারভিত্তিক কর্মীদের দায়িত্ব পালনের বিষয়টিও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

একইভাবে সিএইতে স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত করা হবে। আগে সিএইসিতে প্রবেশাধিকার সকলের জন্য উন্মুক্ত ছিল। এখন তা সংরক্ষিত করা হয়েছে। এছাড়া কাগজপত্র যেন অনলাইনে পাঠানো হয়, সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। কাজের ক্ষেত্রে কর্মক্ষেত্রে সবাইকে একসঙ্গে দায়িত্বে না রেখে রোস্টারভিত্তিক দায়িত্ব পালনের বিষয়টিও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে সকল ব্রোকারেজ হাউজকে করোনা পরিস্থিতিতে সতর্কতার অংশ হিসেবে হ্যান্ডশেক ও আলিঙ্গন না করা, পরিমিত দূরত্ব বজায় রাখা, কর্মকর্তা-কর্মচারী অথবা ক্লায়েন্টের হাঁচি বা কাশি বা সন্দেহজনক লক্ষণ থাকলে তাদের সনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া, অফিস প্রাঙ্গণে প্রবেশের জন্য প্রতিবার হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা, ব্রোকারেজ হাউজে কর্মচারী এবং ক্লায়েন্টদের মাস্ক সরবরাহ করা, দর্শনার্থীদের অফিসে প্রবেশ করতে নিরুৎসাহিতকরণ, কর্মীদের শিফটিং অফিসের ব্যবস্থা করা এবং অফিসে মুখোমুখি বৈঠক থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছে ডিএসই ও সিএসই কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী সানাউল হক রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘স্টক এক্সচেঞ্জের সঙ্গে সাধারণ মানুষের সম্পৃক্ততা তেমন বেশি নয়। তবুও স্টক এক্সচেঞ্জের স্বাস্থ্য সুরাক্ষার বিষয়টি খুবই গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। কারণ, স্টক এক্সচেঞ্জের কেউ করোনা আক্রান্ত হলে পুরো মার্কেটে প্রভাব পড়তে পারে। তাই কর্মীদের স্বস্থ্য সুরক্ষার বিষয়ে বিশেষভাবে গুরুত্ব দিয়েছে। পাশপাশি ব্রোকারেজ হাউজগুলোকেও সতর্কতা অবলম্বনের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।’

সিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মামুন-উর-রশিদ রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘সিএসই’র কর্মকর্তা ও কর্মচারী, ব্রোকারেজ হাউজ এবং বিনিয়োগকারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।’

 

ঢাকা/সনি

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়