ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৯ ১৪২৯

গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়লে প্রভাব পড়বে জনজীবনে

আসাদ আল মাহমুদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৩০, ৪ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ১২:৩০, ৪ ডিসেম্বর ২০২২
গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়লে প্রভাব পড়বে জনজীবনে

ফাইল ফটো

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির পর থেকে দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম। এবার  পাইকারি  পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ার পর এবার গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর তোরজোর চলছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোস্পানিগুলোতে। গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়লে সব কিছুতে এর প্রভাব পড়বে বলে আশংকা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশ মূল্যস্ফীতির সঙ্গে টিকে থাকার যুদ্ধ করছে। এর মধ্যে গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়লে জীবনযাত্রায় এর কঠোর প্রভাব পড়বে।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী এম আহম্মদ  বিন আজিজ বলেন,  বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন অজুহাতে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ায়। এবার গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ালে আবারো প্রতিটি পণ্যের দাম বাড়বে। বিদ্যুৎ বিল বাড়ানোর ফলে জীনবযাত্রার ব্যয় বহুগুণে বেড়ে যাবে। এতে একজন চাকরিজীবীর পক্ষে পরিবার নিয়ে জীবন অতিবাহিত করা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

বাংলাদেশ সচিবালয়ের তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মনির হোসেন বলেন, গ্রাহক পর্যায়ে  বিদ্যুতের  দাম বাড়ানোর তৎপরতা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে খুচরা বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোস্পানিগুলো। করোনা মহামারি এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পর পণ্যের দাম এমনিতেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এখন আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি। এর মধ্যে গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ালে সাধারণ মানুষের  অবস্থা কি হবে তা আল্লাহ ভালো জানেন।

জানতে চাইলে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সাবেক সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, বিদ্যুতের দাম বাড়লে জনগণের মধ্যে বৈষম্য সৃষ্টি হবে। দেশে লুটপাটের নতুন প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। আমরা এটা মেনে নেবো না। জনগণকে  সাথে নিয়ে এ সিদ্ধান্ত প্রতিহত  করবো।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. শাকিল আহম্মেদ বলেন, গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলে মানুষের ব্যয় ও দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাবে। বিভিন্ন সময়ে বিদ্যুৎ, পানি ও গ্যাসের দাম নানা অজুহাতে বাড়ানো হয়েছে। দাম বাড়ানো হলেও জনগণ কি পেয়েছে? সে হিসাব সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়নি। জনগণের প্রতিবাদ ছাড়া এই প্রবৃত্তি বন্ধ হবে না। 

কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সহ-সভাপতি এম শামসুল আলম বলেন, ‘পাইকারি পর্যায়ে বিইআরসির দাম বৃদ্ধির বিষয়ে আপত্তি জানিয়েছিলাম। এরপরও দাম বাড়ানো হয়েছে। এই মুহূর্তে গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই। খুচর পর্যায়ে দাম বাড়ানো হলে এর প্রভাব বিভিন্ন সেক্টরে পড়বে। 

মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়