ঢাকা, সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

দ্বিতীয় দিন শেষে ভারত ৪৯৩/৬

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৫ ৯:৫৫:২৬ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-১৫ ৮:২৫:১৭ পিএম
ছবি: মিলটন আহমেদ

১ উইকেট হারিয়ে ৮৬ রান তুলে প্রথম দিন শেষ করেছিল ভারত। আজ দ্বিতীয় দিনে তারা আরো ৫টি উইকেট হারায়। আর দলীয় সংগ্রহে যোগ করে ৪০৭ রান। ৬ উইকেট হারিয়ে ৪৯৩ রান তুলে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা। লিড নিয়েছে ৩৪৩ রানের। ক্রিজে আছেন রবীন্দ্র জাদেজা (৬০) ও উমেশ যাদব (২৫)।তারা দুজন আগামীকাল শনিবার সকালে আবার ব্যাট করতে নামবেন।

বল হাতে বাংলাদেশের আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী ৪টি উইকেট নিয়েছেন। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও এবাদত হোসেন। ভারতের মায়াঙ্ক আগারওয়াল ক্যারিয়ার সেরা ২৪৩ রানের ইনিংস খেলেছেন। এ ছাড়া চেতেশ্বর পূজারা ৫৪ ও আজিঙ্কা রাহানে ৮৬ রানের ইনিংস খেলেছেন।

দ্বিতীয় দিন শেষে: ৪৯৩/৬ (১১৪ ওভার)।

সাহাকে ফেরালেন এবাদত :

মেহেদী হাসান মিরাজ মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে ফিরিয়ে প্রথম উইকেট নিলেন। এরপর এবাদত হোসেনও নিলেন প্রথম উইকেট। তিনি সরাসরি বোল্ড করলেন ঋদ্ধিমান সাহাকে। ১১ বল খেলে ২ চারে ১২ রান করে ফিরেন সাহা।

মায়াঙ্ককে ফেরালেন মিরাজ :

ক্যারিয়ার সেরা ২৪৩ রানের ইনিংস খেলা মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে ফিরিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দলীয় ৪৩২ রানের ইনিংসের মাথায় মেহেদী হাসান মিরাজকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ডি মিডউইকেটে আবু জায়েদ রাহীর হাতে ধরা পড়েন আগারওয়াল। ৩৩০ বল খেলে ২৮টি চার ও ৮ ছক্কায় ক্যারিয়ার সেরা ২৪৩ রান করে আউট হন।

মায়াঙ্কার দ্বিশতক :

এক মাসের মধ্যে দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি ছুঁলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। গেল অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভিসাখাপত্তনমে ২১৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। আজ বাংলাদেশের বিপক্ষেও ছুঁলেন দ্বিশতক। পানি পানের বিরতির পর ফিরে এসেই মেহেদী হাসান মিরাজের করা ৯৯তম ওভারের পঞ্চম বলটিকে লং অন দিয়ে ছক্কা হাঁকিয়ে ডাবল সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। ৩০৪ বল খেলে ২৫টি চার ও ৫ ছক্কায় ২০২ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন তিনি।

রাহীর চতুর্থ শিকার রাহানে

চা বিরতির পর দ্বিতীয় ওভারে বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিয়েছেন আবু জায়েদ রাহী। ডানহাতি পেসার সেঞ্চুরির পথে থাকা অজিঙ্কা রাহানেকে ফিরিয়ে ১৯০ রানের বড় জুটি ভেঙেছেন।

অফ স্টাম্পের বাইরের লেংথ বল কাট করেছিলেন রাহানে। ডিপ পয়েন্টে ক্যাচ নেন তাইজুল ইসলাম। ভারতের পতন হওয়া চারটি উইকেটই নিলেন রাহী। ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ টেস্ট খেলতে নামা রাহী প্রথমবারের মতো ইনিংসে তিনটির বেশি উইকেট পেলেন।

রাহানে ১৭২ বলে ৯ চারে ৮৬ করে ফেরার সময় ভারতের রান ৪ উইকেটে ৩০৯। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১৫৮ রানে অপরাজিত আছেন। নতুন ব্যাটসম্যান রবীন্দ্র জাদেজা।

 

 

বাংলাদেশের হতাশার সেশন

দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে দুই দল ছিল সমানে সমান। প্রথম ঘণ্টায় বাংলাদেশ তুলে নিয়েছিল ভারতের দুই উইকেট। পরের ঘণ্টা পার করে দেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল ও অজিঙ্কা রাহানে। দ্বিতীয় সেশনে বাংলাদেশের বোলারদের শুধুই হতাশা উপহার দিয়েছেন এই দুজন।

এই সেশনে ৩০ ওভারে বিনা উইকেটে ১১৫ রান তুলেছে ভারত। এরই মধ্যে ভারতের লিড ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসের মোট রানকে। মায়াঙ্ক পেরিয়েছেন দেড়শ। রাহানে পাচ্ছেন সেঞ্চুরির সুবাস।

চা বিরতির সময় ৮৪ ওভারে ভারতের রান ৩ উইকেটে ৩০৩। লিড ১৫৩ রানের। মায়াঙ্ক ১৫৬ ও রাহানে ৮২ রান নিয়ে দিনের শেষ সেশন শুরু করবেন।

ভারতের তিনশ

বাংলাদেশ দ্বিতীয় নতুন বল নেওয়ার ওভারে তিনশ ছুঁয়েছে ভারতের সংগ্রহ। দেড়শ ছুঁয়ে মায়াঙ্ক আগারওয়াল এগোচ্ছেন ডাবল সেঞ্চুরির দিকে। অজিঙ্কা রাহানে আছেন সেঞ্চুরির কাছে। ভারত ছুটছে বড় লিডের পথে।

৮২ ওভার শেষে ভারতের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৩০১ রান। লিড ১৫১ রানের। মায়াঙ্ক ১৫৫ ও রাহানে ৮১ রানে অপরাজিত আছেন।

 

 

দ্বিতীয় নতুন বল

৮২তম ওভারে দ্বিতীয় নতুন বল নিয়েছে বাংলাদেশ। নতুন বলে বোলিং শুরু করেছেন আবু জায়েদ রাহী। এখন পর্যন্ত ভারতের পতন হওয়া তিনটি উইকেট নিয়েছেন তিনিই। ডানহাতি পেসার বাংলাদেশকে আবার সাফল্য এনে দিতে পারেন কি না, সেটাই দেখার।

ভারতের আড়াইশ, লিড একশ

তাইজুল ইসলামের ফুলটস বল মিড অনের ওপর দিয়ে তুলে মারলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। এক ড্রপ খেয়ে হয়ে গেল চার। আর এই চারে ভারতের দলীয় রান পূর্ণ করল আড়াইশ, একই সঙ্গে লিড ছুঁয়ে ফেল একশ।

৭১ ওভার শেষে ভারতের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ২৫০ রান। লিড ১০০ রানের। মায়াঙ্ক ১২৯ ও রাহানে ৫৭ রানে অপরাজিত আছেন।

রাহানের ফিফটি

মায়াঙ্ক আগারওয়ালের সেঞ্চুরির পর ফিফটি তুলে নিয়েছেন অজিঙ্কা রাহানে। ১০৫ বলে ৬ চারে মাইলফলক স্পর্শ করেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এটি রাহানের ক্যারিয়ারের ২১তম ফিফটি, শেষ নয় ইনিংসে ষষ্ঠ।

 

 

মায়াঙ্ক-রাহানে জুটির সেঞ্চুরি

দ্রত দুই উইকেট হারানোর পর তারা বেঁধেছিলেন জুটি। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ও অজিঙ্কা রাহানের সেই চতুর্থ উইকেট জুটি স্পর্শ করেছে শতরান। জুটির সেঞ্চুরি ছুঁয়েছে ঠিক ২০০ বলে। ব্যক্তিগত সেঞ্চুরির পর ইনিংস বড় করছেন মায়াঙ্ক। ফিফটির পথে আছেন রাহানে। ভারত ছুটছে বড় লিডের পথে।

৬৫ ওভার শেষে ভারতের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ২২২ রান। লিড ৭২ রানের। মায়াঙ্ক ১১১ ও রাহানে ৭ রানে অপরাজিত আছেন।

মায়াঙ্কের সেঞ্চুরি

দুবার জীবন পেয়ে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। ১৮৩ বলে ১৫ চার ও এক ছক্কায় ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ডানহাতি ওপেনার।   

আগের দিন ৩২ রানে মায়াঙ্কের সহজ ক্যাচ ফেলেছিলেন ইমরুল কায়েস। আজ ৮২ রানে আম্পায়ার এলবিডব্লিউ দিলেও রিভিউ নিয়ে টিকে যান মায়াঙ্ক।

 

 

প্রথম সেশনে ২ উইকেট

দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে ২৮ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১০২ রান তুলেছে ভারত। লাঞ্চ বিরতির সময় ৫৪ ওভারে ভারতের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৮৮ রান। স্বাগতিকরা এগিয়ে আছে ৩৮ রানে। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ৯১ ও অজিঙ্কা রাহানে ৩৫ রানে অপরাজিত আছেন। চতুর্থ উইকেটে দুজনের অবিচ্ছিন্ন জুটির রান ৬৯।

এদিন নিজের পরপর দুই ওভারে চেতেশ্বর পুজারা ও বিরাট কোহলিকে ফেরান আবু জায়েদ রাহী। পুজারা আউট হয়েছেন ৫৪ রানে। অধিনায়ক কোহলি মেরেছেন ডাক।

রিভিউ নিয়ে বাঁচলেন মায়াঙ্ক

মেহেদী হাসান মিরাজকে প্যাডল সুইপের চেষ্টায় বল মিস করেছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। বল আঘাত হানে তার প্যাডে। এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার। নন স্ট্রাইকার অজিঙ্কা রাহানের সঙ্গে আলোচনা করে মায়াঙ্ক চান রিভিউ। তাতে পাল্টে সিদ্ধান্ত। রিপ্লেতে দেখা যায়, বল স্টাম্প মিস করে যেত। তখন ৮২ রানে ব্যাট করছিলেন মায়াঙ্ক।

ভারতের লিড

মেহেদী হাসান মিরাজের লেংথ বলে মিড অফ দিয়ে চার মারলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। তার এই চারে বাংলাদেশের ১৫০ পেরিয়ে ভারত নিল লিড।

ভারতের সংগ্রহ তখন ৩ উইকেটে ১৫২ রান। লিড ২ রানের। আগারওয়াল ৬৮ ও অজিঙ্কা রাহানে ২২ রানে অপরাজিত আছেন।

মাঠে ফিরলেন মিরাজ

ক্যাচ নেওয়ার চেষ্টায় আঙুলে ব্যথা পেয়ে মাঠ ছেড়ে গিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে কয়েক ওভার পরই মাঠে ফিরেছেন এই অফ স্পিনার।

 

 

শূন্যতে কোহলিকে ফেরালেন রাহী

রিভিউ নিয়ে বিরাট কোহলিকে ফিরিয়েছে বাংলাদেশ। ভারত অধিনায়ক মেরেছেন ডাক। আবু জায়েদ রাহী পেয়েছেন তৃতীয় উইকেট।   

রাহীর অফ স্টাম্পে পিচ করে ভেতরে ঢোকা বল ফ্রন্টফুটে খেলতে গিয়ে মিস করেন কোহলি। বল লাগে তার প্যাডে। এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার।

রিভিউ নেবেন কি না, এ নিয়ে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে চলছিল আলোচনা। স্টাম্প মাইকে শোনা যাচ্ছিল উইকেটকিপার লিটন দাস বলছেন, ‘ইম্প্যাক্টটা বাইরে কি না বুঝতেসি না।’ অধিনায়ক মুমিনুল হক তখন বলেন, ‘নিব? নিব?’ এরপরই তিনি নেন রিভিউ।

রিপ্লেতে দেখা যায়, ইম্প্যাক্ট লাইনেই ছিল, বল আঘাত হানত লেগ স্টাম্পে। তাতে পাল্টে মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত। বাংলাদেশ পায় সাফল্য।

কোহলির আউটের সময় ভারতের রান ৩ উইকেটে ১১৯। ফিফটি করা মায়াঙ্ক আগারওয়ালের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন অজিঙ্কা রাহানে।

 

 

রাহীর শিকার পুজারা

নিজের আগের ওভারেই চেতেশ্বর পুজারার উইকেট পেতে পারতেন আবু জায়েদ রাহী। কিন্তু স্লিপে কঠিন ক্যাচ নিতে পারেনি মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে নিজের ওভারে এসে ঠিকই পুজারাকে ফিরিয়েছেন রাহী।

মিরাজ ক্যাচ নেওয়ার চেষ্টায় আঙুলে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়ে যান। তার বদলি হিসেবে ফিল্ডিংয়ে নামেন সাইফ হাসান। সেই সাইফই নিয়েছেন দারুণ এক ক্যাচ।

অফ স্টাম্পের বাইরের বলে ড্রাইভ করেছিলেন পুজারা। এজ হয়ে ক্যাচ যায় গালিতে। বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে দারুণভাবে বল তালুবন্দি করেন সাইফ।

অবশ্য আঙুলে চোট পাওয়ায় মাঠ ছেড়ে যান সাইফও। বদলি খেলোয়াড়ের বদলি হিসেবে নামেন নাঈম হাসান!

৭২ বলে ৯ চারে পুজারা করেন ৫৪ রান। ভারতের সংগ্রহ তখন ২ উইকেটে ১০৫ রান। মায়াঙ্ক আগারওয়ালের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন বিরাট কোহলি।

 

 

মাঠ ছাড়লেন মিরাজ

দিনের দ্বিতীয় ওভারের চতুর্থ বলে স্লিপে ক্যাচ নেওয়ার চেষ্টায় আঙুলে ব্যথা পান মেহেদী হাসান মিরাজ। ওভার শেষে মাঠ ছেড়ে ড্রেসিংরুমে চলে গেছেন তিনি।  

পুজারার ফিফটি

আবু জায়েদ রাহীকে টানা দুই চারে ফিফটি পেয়ে গেছেন চেতেশ্বর পুজারা। ৬৮ বলে ফিফটি করতে ৯টি চার মারেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

শুরুতেই সুযোগ হাতছাড়া

দিনের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেটের সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন আবু জায়েদ রাহী। ডানহাতি পেসারের অফ স্টাম্পের বাইরের লেংথ বল কাট করতে চেয়েছিলেন চেতেশ্বর পুজারা। ব্যাটের কানায় লেগে ক্যাচ যায় তৃতীয় স্লিপে।

মাথার ওপর দিয়ে খুব দ্রত যাওয়া বলে হাত লাগিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু ধরতে পারেননি। আগের দিন রাহীর বলে স্লিপে মায়াঙ্ক আগারওয়ালের সহজ ক্যাচ ফেলেছিলেন ইমরুল কায়েস।

 

 

প্রথম দিনে অসহায় বাংলাদেশ

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের শুরুর দিনটা কেটেছে চরম হতাশায়। ভারতের পেস বিষে নীল হয়েছে বাংলাদেশের ব্যাটিং। প্রথম দিন সফরকারীদের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে যায় মাত্র ১৫০ রানে। পরে মায়াঙ্ক আগারওয়াল ও চেতেশ্বর পুজারার দৃঢ়তাপূর্ণ ব্যাটিংয়ে ভারত পৌঁছে গেছে দারুণ অবস্থানে।

প্রথম দিন শেষে ভারতের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৮৬ রান। মায়াঙ্ক ৩৭ ও পুজারা ৪৩ রান নিয়ে হোলকার স্টেডিয়ামে আজ দ্বিতীয় দিন শুরু করবেন। দিনের খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল দশটায়।

 

ঢাকা/পরাগ 

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন