Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||  চৈত্র ৩০ ১৪২৭ ||  ২৯ শা'বান ১৪৪২

ওয়ালটন প্রথম বিভাগ দাবা লিগ: ৭ রউন্ড শেষেও শীর্ষে রূপালী ব্যাংক

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৩৯, ৩ মার্চ ২০২১  
ওয়ালটন প্রথম বিভাগ দাবা লিগ: ৭ রউন্ড শেষেও শীর্ষে রূপালী ব্যাংক

‘ওয়ালটন প্রথম বিভাগ দাবা লিগ-২০২১’ এ আজ বুধবার (৩ মার্চ) সপ্তম রাউন্ডের খেলা জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের দাবা ক্রীড়া কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

সাত রাউন্ড শেষে রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ পূর্ণ ১৪ পয়েন্ট নিয়ে এককভাবে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে রয়েছে। ম্যানহা’স ক্যাসল ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে এবং সুলতানা কামাল স্মৃতি পাঠাগার ১০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। সাত পয়েন্ট করে নিয়ে মীর চেস ক্লাব, ঢাকা চেস ক্লাব ও অগ্রনী ব্যাংক দাবা দল মিলিতভাবে চতুর্থ স্থানে রয়েছে।

আজ সপ্তম রাউন্ডের খেলায় রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ ৪-০ গেম পয়েন্টে অগ্রণী ব্যাংক দাবা দলকে পরাজিত করে। ম্যানহাস ক্যাসেল ৩-১ গেম পয়েন্টে ইসফট এরিনা চেস ক্লাবকে পরাজিত করে। সুলতানা কামাল স্মৃতি পাঠাগার ৩.৫-০.৫ গেম পয়েন্টে ঢাকা নাইট’স চেস ক্লাবকে পরাজিত করে।

মর্নিং গ্লোরি চেস ক্লাব, কুষ্টিয়া ২.৫-১.৫ গেম পয়েন্টে মীর চেস ক্লাবকে পরাজিত করে। ঢাকা চেস ক্লাব ৩.৫-০.৫ গেম পয়েন্টে বসির মেমোরিয়াল চেস ক্লাবকে পরাজিত করে। খেলাঘর দাবা সংঘ, গোপালগঞ্জ ২.৫-০.৫ গেম পয়েন্টে ক্যাসপারভ চেস ক্লাবকে পরাজিত করে।

আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) বেলা ৩-০০ (তিন) টা হতে একই স্থানে অষ্টম রাউন্ডের খেলা শুরু হবে। ৯ রাউন্ড সুইস লিগ পদ্ধতিতে এই প্রতিযোগিতা চলবে ৫ মার্চ পর্যন্ত।

এবারের এই ওয়ালটন প্রথম বিভাগ দাবা লিগে ১২টি দল অংশ নিয়েছে। যার মধ্যে ২টি দল ২০২০ সালের দ্বিতীয় বিভাগ দাবা লিগ হতে উন্নীত হয়েছে এবং ২টি দল প্রিমিয়ার ডিভিশন থেকে রেলিগেটেড হওয়া। 

প্রতিটি দলে ৪ জন নিয়মিত ও ২ জন অতিরিক্ত খেলোয়াড় রয়েছে। লিগের খেলা রাউন্ড-রবিন লিগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম বিভাগ দাবা লিগ চ্যাম্পিয়ন এবং রানার্স আপ দল ২০২১ সালের প্রিমিয়ার বিভাগ দাবা লিগে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে এবং সর্বনিম্ন স্থান পাওয়া দুটি দল দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যাবে।

এবারের ওয়ালটন প্রথম বিভাগ দাবা লিগের চ্যাম্পিয়ন, রানার্স-আপ ও তৃতীয় স্থান অধিকারী দলকে অর্থ পুরস্কার, ট্রফি, মেডেল ও ওয়ালটন সামগ্রী প্রদান করা হবে। চ্যাম্পিয়ন দল ৫০ হাজার, রানার্স-আপ দল ৩০ হাজার এবং তৃতীয় স্থান প্রাপ্ত দল ২০ হাজার টাকা প্রাইজমানি পাবে। এছাড়া প্রত্যেক বোর্ডের পারফমেন্সের উপর ভিত্তি করে খেলোয়াড়দের বোর্ড পুরস্কার দেয়া হবে।  

অংশ নেওয়া দলগুলোর মধ্যে রয়েছে- ১. মানহাস ক্যাসল চেস ক্লাব, ২. সুলতানা কামাল স্মৃতি পাঠাগার, ৩. ঢাকা নাইটস্ চেস ক্লাব, ৪. খেলাঘর দাবা সংঘ, গোপালগঞ্জ, ৫. বসির মেমোরিয়াল চেস ক্লাব, ৬. মীর চেস ক্লাব, ৭. অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড দাবা দল, ৮. ক্যাসপারভ চেস ক্লাব, ৯. ঢাকা চেস ক্লাব ১০. রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ, ১১. ইসফট এরিনা চেস ক্লাব (দ্বিতীয় বিভাগ হতে উন্নীত) এবং ১২. মনির্ং গ্লোরী চেস ক্লাব, কুষ্টিয়া (দ্বিতীয় বিভাগ দাবা লিগ হতে উন্নীত)।
 
এই প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও আরটিভি। রেডিও পার্টনার রেডিও টুডে। অনলাইন পার্টনার জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি.কম।

ঢাকা/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়

শিরোনাম

Bulletলকডাউন: ১৪-২১ এপ্রিল। যা যা চলবে: ১. বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিস। ২. পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা ও জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না ৩. শিল্প-কারখানা ৪. আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন, কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পরিবহন, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্যসেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস/জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরগুলোর (স্থল, নদী ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া), বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বর্হিভূত থাকবে। ৫. ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ৬. খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবল খাদ্য বিক্রয়/সরবরাহ করা যাবে। ৭. কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে || যা যা বন্ধ থাকবে: ১. সব সরকারি, আধাসরকারি, সায়ত্ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ২. সব ধরনের পরিবহন (সড়ক, নৌ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে ৩. শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে