ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ৫ ১৪২৮ ||  ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ভারতের কর্তৃত্বে আজাজের ইতিহাসের দিনে কিউইদের লজ্জা

ক্রীড়া ডেস্ক  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫৩, ৪ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৯:৫৩, ৪ ডিসেম্বর ২০২১
ভারতের কর্তৃত্বে আজাজের ইতিহাসের দিনে কিউইদের লজ্জা

ভারতের বিপক্ষে দিনটি হতে পারতো নিউ জিল্যান্ডের। টেস্ট ক্রিকেটে তৃতীয় বোলার হিসেবে কিউই স্পিনার আজাজ প্যাটেল এক ইনিংসে একাই নিয়েছিলেন ১০ উইকেট। সেটিকে ছাপিয়ে উলটো লজ্জার রেকর্ডের সামনে কিউইরা। দিন শেষে কর্তৃত্ব দেখিয়ে ম্যাচের নাটাই নিজেদের হাতে নিয়েছে বিরাট কোহলির দল। 

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) মুম্বাই টেস্টে দ্বিতীয় দিন শেষে ভারত লিড নিয়েছে ৩৩২ রানের। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে দুই ওপেনার মাত্র ২১ ওভার ব্যাটিং করে ৬৯ রান তুলে ফেলে। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ৩৮ ও চেতশ্বর পূজারা অপরাজিত আছেন ২৯ রানে। ২৬৩ রানে এগিয়ে থেকে তারা দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমেছিল। 

মায়াঙ্কের ১৫০ রানে ভর করে ভারত প্রথম ইনিংসে ৩২৫ রান করে। এ ছাড়া অক্ষর প্যাটেল ৫২ রান করেন। কিউই স্পিনার আজাজ একাই নেন ১০ উইকেট। তখনই বোঝা গেছে ভারতের অভিজ্ঞ স্পিনে ধস হতে পারে নিউ জিল্যান্ডের ব্যাটিংয়েও। ঠিক তাই হলো। পুরো নিউ জিল্যান্ড দল এক মায়াঙ্কের রানের অর্ধেকও করতে পারেনি। তারা অলআউট হয়েছে ৬২ রানে। ভারতের বিপক্ষে যে কোনো টেস্ট দলের এটি সর্বনিম্ন রান। ভারতের মাটিতেও এর আগে কখনো এত কম রানে অলআউট হয়নি কোনো দল। টেস্ট ক্রিকেটে নিউ জিল্যান্ড সর্বনিম্ন ২৬ রানে অলআউট হয়েছিল ১৯৫৫ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। 

মাত্র ২৮.১ ওভারে অলআউট হয়ে যায় সফরকারীরা। ব্যাটিং করতে নামলে অবশ্য উইকেটের সূচনা করেন পেসার মোহাম্মদ সিরাজ। শুরুর তিনটি উইকেটই তিনি নিয়েছেন ওপেনার টম লাথাম ১০ ও উইল ইয়ং ৪ রানে সিরাজের শিকার হয়ে ফেরেন সাজঘরে। রস টেলরও ১ রানে আউট হয়েছেন সিরাজের আগুনঝরা বোলিংয়ে। এরপর শুরু হয় রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও অক্ষর প্যাটেলদের রাজত্ব। 

পেস আক্রমণে ১৭ রানে তিন উইকেট হারানোর পর স্পিন আক্রমণে আরও বেসামাল হয়ে ওঠে কিউইরা। মুড়ি-মুড়কির মতো পড়তে থাকে। শেষ পর্যন্ত থামে ৬২ রানে। দলের মাত্র দুজন ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘর পেরোতে পেরেছেন। অধিনায়ক লাথাম ১০ ও কাইল জেমিসন ১৭ রান ছাড়া আর কেউ দুই অঙ্কের মুখ দেখেননি। অশ্বিন মাত্র ৮ ওভার বোলিং করে নেন সর্বোচ্চ ৪ উইকেট। এ ছাড়া সিরাজ ৩ ও অক্ষর নেন ২ উইকেট। 

ঢাকা/রিয়াদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়