ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৯ ||  ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

শাখতারকে হারাতে ঘাম ছুটলো রিয়ালের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৬:৩৮, ৬ অক্টোবর ২০২২  
শাখতারকে হারাতে ঘাম ছুটলো রিয়ালের

ওসাসুনার বিপক্ষে লা লিগায় আগের ম্যাচে ড্র করা রিয়াল মাদ্রিদ চ্যাম্পিয়নস লিগে টানা তৃতীয় ম্যাচ জিতলো। তবে শাখতার দোনেৎস্কের বিপক্ষে জিততে ঘাম ছুটেছে তাদের। বুধবার রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ২-১ গোলে ইউক্রেনিয়ান দলকে হারালো বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

১৫ মিনিটের মধ্যে স্বাগতিকরা লিড নেয়। রদ্রিগো পেনাল্টি এরিয়ার বাইরে থেকে শাখতার কিপার আনাতোলি ট্রুবিনকে পরাস্ত করেন। ব্রাজিলিয়ানের অ্যাসিস্টে জাতীয় দলের সতীর্থ ভিনিসিউস জুনিয়র ব্যবধান ২-০ করলে সহজ জয়ের আভাস দেয় রিয়াল। কিন্তু ওলেক্সান্দার জুবকোভ বিরতির আগে গোল শোধ দিলে বাকি সময় চাপে ছিল মাদ্রিদ ক্লাব। সেট পিস ও কাউন্টার অ্যাটাক থেকে বেশ কয়েকবার তাদের ভয় দেখায় শাখতার। অবশ্য রিয়ালও সুযোগ নষ্ট করে কয়েকবার।

এই জয়ে রিয়াল ‘এফ’ গ্রুপে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে। ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে শাখতার। গ্রুপের আরেক ম্যাচে আরবি লাইপজিগ ৩-১ গোলে হারায় সেল্টিককে।

ভিনিসিউসের পাস থেকে ১৩তম মিনিটে জাল কাঁপান রদ্রিগো। চ্যাম্পিয়নস লিগে এটি ছিল তার ১১তম গোল। ২১ বা তার কম বয়সে এই প্রতিযোগিতায় রিয়ালের হয়ে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডে তিনি বসলেন কিংবদন্তি রাউল গঞ্জালেসের পাশে।

১৫ মিনিট পর দলগত প্রচেষ্টার সাফল্য পায় রিয়াল ভিনিসিউসের গোলে। পরে এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড আরও দুটি সুযোগ নষ্ট করেন। তাতে ব্যবধান বাড়াতে পারেনি রিয়াল, আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে পাল্টা জবাব দেয় শাখতার। বিরতির ছয় মিনিট আগে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে চমৎকার ভলিতে ২-১ করেন জুবকোভ।

বিরতির পর দারুণ সব সেভে রিয়ালকে হতাশ করতে থাকেন ট্রুবিন। একের পর এক আক্রমণ ব্যর্থ করে দেন তিনি। রিয়ালের আক্রমণাত্মক মানসিকতার সুযোগ নিয়ে কাউন্টার অ্যাটাকে যায় শাখতার। ৫১ মিনিটে মিখাইলো মুদ্রিক সমতা ফেরাতে পারতেন। কিন্তু চোটাক্রান্ত থিবো কোর্তোয়ার বদলে গোলপোস্টে জায়গা পাওয়া আন্দ্রি লুনিন প্রতিহত করেন তার শট।

ভিনিসিউস, বেনজেমা, রদ্রিগো ও ভালভার্দে তাদের সুযোগ নষ্ট করেন ট্রুবিনের বীরত্বে। বদলি নামা মার্কো আসেনসিওর একটি শক্তিশালী শট দূরের পোস্টে আঘাত করে। ম্যাচ শেষে রিয়াল মিডফিল্ডার টনি ক্রুস হতাশ কণ্ঠে বললেন, ‘এই ম্যাচ আমাদের জেতা উচিত ছিল ৭-১ গোলে। আমরা এত সুযোগ পেয়েও ২-১ গোলে জিতলাম বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে।’

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়