ঢাকা     সোমবার   ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ২ ১৪৩১

বাংলাদেশের হতাশার দিন, বড় লক্ষ্যের দিকে এগোচ্ছে শ্রীলঙ্কা

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:০০, ১ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৮:৪৯, ১ এপ্রিল ২০২৪
বাংলাদেশের হতাশার দিন, বড় লক্ষ্যের দিকে এগোচ্ছে শ্রীলঙ্কা

চট্টগ্রামে আরও একটি হতাশার দিন দেখতে হলো বাংলাদেশকে। প্রথমে ব্যাটিংয়ে দুইশর আগে গুটিয়ে যাওয়ার পর বোলিংয়ে নেমেও দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কাকে অলআউট করতে পারলো না নাজমুল হোসেন শান্তর দল। বরং লঙ্কানদের লিড এগিয়ে যাচ্ছে তরতর করে।

তৃতীয় দিনে বাংলাদেশকে প্রথম ইনিংসে ১৭৮ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট হারিয়ে ১০২ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। প্রথম ইনিংসে তারা করেছিল ৫৩১ রান। এগিয়ে আছে ৪৫৫ রানে।

আগামীকাল সকালে শ্রীলঙ্কাকে যত দ্রুত সম্ভব অলআউট করে ব্যাটিংয়ে লড়ে যেতে হবে বাংলাদেশকে। না হয় চাপা পড়তে হবে আরেকটি পরাজয়ের নিচে।

ধনাঞ্জয়াকে ফেরালেন হাসান, শ্রীলঙ্কার পঞ্চম উইকেটের পতন

হাসান মাহমুদের বোলিংয়ের কোনো জবাব দিতে পারছে শ্রীলঙ্কা। পরপর তিন ওভারে শ্রীলঙ্কার তিন উইকেট তুলে নিলেন এই পেসার। এবার তিনি ফেরালেন ছন্দে থাকা ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে। অফ স্টাম্পের বাইরের ডেলিভারি খেলতে গিয়ে ১ রানে কট বিহাইন্ড হলেন লঙ্কান অধিনায়ক।

দুই ইনিংস মিলে এরই মধ্যে ৬ উইকেট নিয়েছেন হাসান। বাংলাদেশের দ্বিতীয় পেসার হিসেবে অভিষেক টেস্টে ৬ উইকেট নিলেন তিনি। প্রথমজন সাবেক বাঁহাতি পেসার মঞ্জুরুল ইসলাম, ২০০১ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৮১ রানে ৬ উইকেট নেন তিনি।

১৭ ওভারে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৫ উইকেটে ৮২ রান। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান কামিন্দু মেন্ডিস। ৩৩ বলে ২৭ রানে খেলছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ।

হাসানের আঘাত, ফিরলেন মাদুশকা

আবার শ্রীলঙ্কার ইনিংসে আঘাত হেনেছেন হাসান মাহমুদ। এবার তার শিকার নিশান মাদুশকা। হাসানের অফ স্টাম্পের বাইরে শর্ট ডেলিভারিতে কভারে থাকা মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে ক্যাচ দেন মাদুশকা। ৫ চারে ৪৫ বলে ৩৪ রান করেন তিনি।

১২.৫ ওভারে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৬০ রান। তাদের লিড এখন ৪১৩ রানের।

ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান দিনেশ চান্দিমাল। ২৫ বলে ১৯ রানে খেলছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ।

আবারও ক্যাচ মিস, জীবন পেলেন ম্যাথুজ

ক্যাচ মিসের মহড়া চালিয়েই যাচ্ছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসে আটটি ক্যাচ মিসের পর এবার দ্বিতীয় ইনিংসেও একই চিত্র। এবার ক্যাচ মিস করলেন শাহাদাত হোসেন দিপু। অষ্টম ওভারে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজকে জীবন দিয়েছেন তিনি।

হাসান মাহমুদের অফ স্টাম্পের বাইরের ডেলিভারি ড্রাইভ করতে গিয়ে প্রথম স্লিপে ক্যাচ দেন ম্যাথুজ। ডান দিকে নিচু হয়ে পুরোপুরি নাগাল পেলেও হাতে রাখতে পারেননি দিপু। ৭ রানে জীবন পেলেন ম্যাথুজ।

৮ ওভারে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ২ উইকেটে ৩৫ রান।

কুশলকে ফেরালেন খালেদ

বাংলাদেশকে ফলোঅন না করিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপর্যয়ে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। শুরুতে হাসান মাহমুদের আঘাতের পর এবার আঘাত হেনেছেন খালেদ আহমেদ। কুশল মেন্ডিসকে ২ রানে বোল্ড করে ড্রেসিংরুমে ফিরিয়েছেন এই পেসার।

ডেলিভারিটা অফ স্টাম্পের অনেক বাইরে করেছিলেন খালেদ। ড্রাইভ করতে গিয়ে স্টাম্পে টেন এনে বোল্ড হন লঙ্কান কিপার-ব্যাটসম্যান। ২ বলে ২ রান করেছেন কুসাল। চার নম্বরে নেমেছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ১০ বলে ৯ রানে খেলছেন ওপেনার নিশান মাদুশঙ্কা।

৩ ওভারে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ২ উইকেটে ১৫ রান।

এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতে দিমুথ কারুনারাত্নেকে বোল্ড করেন হাসান মাহমুদ। প্রথম ইনিংসের মতোই ব্যাটের ভেতরের কানায় লেগে বোল্ড হলেন অভিজ্ঞ ওপেনার। ৫ বলে ৪ রান করে ফিরলেন কারুনারাত্নে।

বাংলাদেশকে ফলোঅন না করিয়ে ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা

শ্রীলঙ্কার করা ৫৩১ রানের জবাবে বাংলাদেশ তাদের প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ১৭৮ রানে। তাতে পড়ে ফলোঅনে। কিন্তু বাংলাদেশকে ফলোঅন না করিয়ে আবার ব্যাট করতে নেমেছে শ্রীলঙ্কা।

১৭৮ রানে অলআউটে ফলোঅনে বাংলাদেশ:

শ্রীলঙ্কার করা ৫৩১ রানের জবাবে মাত্র ১৭৮ রানে অলআউট হলো বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার থেকে এখনও বাংলাদেশ পিছিয়ে ৩৫৩ রানে। তাতে ফলোঅনে পড়েছে বাংলাদেশ। এখন দেখার বিষয় চা বিরতির পর শ্রীলঙ্কা বাংলাদেশকে ফলোঅন করায় নাকি আবার ব্যাট করতে নামে তারা।

ইনজুরিতে পড়া কাসুন রাজিথার পরিবর্তে একাদশে আসা আসিথা ফার্নান্দো ৪টি উইকেট নিয়েছেন। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন বিশ্ব ফার্নান্দো, লাহিরু কুমারা ও প্রবথ জয়সুরিয়া।

ব্যাট হাতে বাংলাদেশের জাকির হাসান সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৩ রান করেন মুমিনুল হক। এছাড়া তাইজুল ইসলাম ২২ ও মাহমুদুল হাসান জয় করেন ২১ রান। সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ১৫ রান। বাকিদের কেউ দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে পারেননি।

প্রথম সেশনে ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর দ্বিতীয় সেশনে ৬ উইকেট হারিয়ে চা বিরতির আগেই অলআউট হয়।

মুমিনুলের বিদায়ে অল্পরানেই অলআউটের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ:

একপ্রান্ত আগলে লড়াই করা মুমিনুল হকও বিদায় নিলেন। দলীয় ১৭৫ রানের মাথায় আসিথা ফার্নান্দোর বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরেন তিনি। ৮৪ বল খেলে ৩ চারে ৩৩ রান আসে তার ব্যাট থেকে। যা বাংলাদেশের ইনিংসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এই রান করার পথে চতুর্থ বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে ৪০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন মুমিনুল।
৬৭ ওভার শেষে বাংলাদেশে সংগ্রহ ১৭৭/৯।

ফিরলেন মিরাজ, লড়ছেন কেবল মুমিনুল:

চা বিরতিতে যাওয়ার আগে বিদায় নিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রবথ জয়সুরিয়ার বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি। রিভিউ নিয়েও নিজের উইকেটটি বাঁচাতে পারেননি। ৩১ বল খেলে ৭ রান আসে তার ব্যাট থেকে। ৬৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৭৫। মুমিনুল ৩৩ ও খালেদ আহমেদ শূন্যরানে ব্যাট করছেন।

সাত উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে বাংলাদেশ:

মধ্যাহ্ন বিরতি থেকে ফিরেই সাকিব আল হাসান ও লিটন দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর মুমিনুল হক ও শাহাদাত হোসেন দীপু টেনে নিতে থাকেন দলীয় সংগ্রহকে। তবে বেশিদূর যেতে পারেননি তারা। ১৪৮ রানের মাথায় লাহিরু কুমারার বলে দ্বিতীয় স্লিপে কামিন্দু মেন্ডিসের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন দীপু। তাতে ১৪৮ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে দারুণ বিপাকে পড়ে বাংলাদেশ।

মুমিনুলের সঙ্গে এসে যোগ দিয়েছেন নতুন ব্যাটসম্যান মেহেদী হাসান মিরাজ।

এক ওভারেই সাকিব-লিটনের বিদায়, বিপাকে বাংলাদেশ:

মধ্যাহ্ন বিরতি থেকে ফিরেই জোড়া উইকেট হারালো বাংলাদেশ। সাজঘরে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান ও লিটন কুমার দাস। আসিথা ফার্নান্দোর করা ৪৪তম ওভারের দ্বিতীয় বলে এলবিডব্লিউ হন সাকিব আল হাসান। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি। ২৩ বলে ১ চারে ১৫ রান আসে তার ব্যাট থেকে।

এরপর পঞ্চম বলে আউট হন চার মেরে রানের খাতা খোলা লিটন কুমার দাস। বল তার ব্যাট ছুঁয়ে উইকেটের পেছনে কুসল মেন্ডিসের গ্লাভসবন্দি হয়। ৩ বলে ১ চারে ৪ রান করে ফেরেন লিটন। তাতে ৪৫ ওভার শেষে ১৩০ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ।

প্রথম সেশনে তিন উইকেট হারিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে বাংলাদেশ:

তৃতীয়দিনের শুরুটা ভালোই করেছিলেন তাইজুল ইসলাম ও জাকির হাসান। তারা দুজন ৯৬ রান পর্যন্ত নিয়ে যান দলীয় সংগ্রহকে। এরপর দ্রুত তিনটি উইকেট হারায় স্বাগতিক শিবির। ৯৬ রানের মাথায় ফিফটি করে ফিরেন জাকির। এরপর ১০১ রানের মাথায় অধৈর্য্য হয়ে ফিরেন নাজমুল হোসেন শান্ত। আর ১০৫ রানের মাথায় নাইটওয়াচম্যান তাইজুল বিশ্ব ফার্নান্দোর দ্বিতীয় শিকার হন। সেখান থেকে মুমিনুল হক ও সাকিব আল হাসান ১০ রানের জুটি গড়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যান। সাকিব ৬ ও মুমিনুল ২ রানে অপরাজিত আছেন। মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১১৫। শ্রীলঙ্কার চেয়ে পিছিয়ে আছে ৪১৬ রানে।

লড়াই করে ফিরলেন নাইটওয়াচম্যান তাইজুল:

দ্বিতীয়দিন বিকেলে মাহমুদুল হাসান জয় আউট হওয়ার পর নাইটওয়াচম্যান হিসেবে মাঠে নামেন তাইজুল ইসলাম। এরপর ৬১ বল খেলে ১ চারে ২২ রান করে বিশ্ব ফার্নান্দোর বলে বোল্ড হন। মুমিনুল হকের সঙ্গে নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে যোগ দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। ৪০ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১১৩/৪।

অধৈর্য্য হয়ে শান্তর বিদায়:

জাকির হাসান ফিফটি করে ফেরার পর মাঠে নামেন নাজমুল হোসেন শান্ত। কিন্তু শুরুতেই তার ধৈর্য্যচ্যুতি ঘটে। এলোমেলো ব্যাট চালাতে থাকেন। বল মারার জন্য উশখুশ করতে থাকেন। প্রবথ জয়সুরিয়ার ওভারের শুরু থেকেই কেমন যেন এলোমেলো ব্যাটিং করছিলেন। তরা করা ৩৬তম ওভারের চতুর্থ বলে শট মিডউইকেটে দিমুথ করুণারত্নের হাতে সহজ ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন ১১ বল খেলে ১ রান করেই অধৈর্য্য হয়ে ওঠা শান্ত।

ফিফটির পরই ফিরলেন জাকির:

দেশে-শুনে বেশ সতর্কতার সাথে ব্যাট করছিলেন জাকির হাসান। তুলে নিয়েছিলেন টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি। কিন্তু ফিফটির পর সাজঘরে ফিরেন তিনি। দলীয় ৯৬ রানের মাথায় বিশ্ব ফার্নান্দোর বলে দুর্ভাগ্যজনকভাবে বোল্ড হয়ে যান জাকির। ১০৪ বল খেলে ৮ চারে ৫৪ রান আসে তার ব্যাট থেকে। নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছে নাজমুল হোসেন শান্ত। ৩৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৯৯ রান।

জাকিরের ফিফটিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ:

ফিফটি তুলে নিয়েছেন জাকির হাসান। ৯৮ বল খেলে ৮টি চারে তিনি অর্ধশত রানে পৌঁছান। এটা তার টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি। এর আগে ভারত, আফগানিস্তান ও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ফিফটি করেছিলেন তিনি। ২০২২ সালের ডিসেম্বরে করেছিলেন টেস্ট ক্যারিয়ারের একমাত্র সেঞ্চুরিটি। আজ দ্বিতীয়টির দেখা পান কিনা দেখার বিষয়।

জাকির হাসানের ফিফটিতে ভর করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ১০০ রানের দিকে। ৩২ ওভার শেষে ১ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৯৫ রান। জাকির ৫৪ ও তাইজুল ১৩ রান নিয়ে ব্যাট করছেন।

তৃতীয় দিনের খেলা শুরু:

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শুরু হয়েছে। চট্টগ্রামে প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার করা ৫৩১ রানের জবাব দিতে নেমে ১ উইকেট হারিয়ে ৫৫ রান তুলে দ্বিতীয়দিন শেষ করেছিল বাংলাদেশ। জাকির হাসান ৫ চারে ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। তার সাথে ৯ বল খেলে শূন্যরানে অপরাজিত ছিলেন তাইজুল ইসলাম। তারা দুজন আজ সোমবার সকালে আবার ব্যাট করতে নেমেছেন।

বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার চেয়ে এখনও পিছিয়ে আছে ৪৭৬ রানে। এই ব্যবধান ঘোচানোর পথে আজ তৃতীয়দিনে কতোদূর যেতে পারে দেখার বিষয়।

ঢাকা/আমিনুল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়