ঢাকা, বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

ছেলের সন্ধানে দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন বাবা

হাসান উল রাকিব : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-০৭ ৬:৪২:১৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-০৭ ৬:৪২:১৬ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি এলাকায় তারপিন কেমিক্যাল কারখানায় কর্মরত অবস্থায় নিখোঁজ সামাদ মিয়ার সন্ধান পেতে দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন তার বাবা শাহাদাৎ হোসেন।

শাহাদাৎ হোসেন ছেলের সন্ধান পেতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় গিয়ে প্রতিকার না পেয়ে আজ বৃহস্পতিবার নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে আবেদন করেছেন। তারপিন কেমিক্যাল কারখানার মালিকের সঙ্গে দেখা করে ছেলের বিষয়ে জানতে চাইলে তারা থানা পুলিশ না করার জন্য হুমকি দিয়েছেন। মালিক পক্ষ উল্টো থানায় জিডি করে সামাদের বাবা-মাকে হয়রানি করছে।

বাবা শাহাদাৎ হোসেন জানান, গত ৩ ডিসেম্বর তার শাশুড়ির মোবাইল ফোনে মালিক পক্ষের লোকজন জানান, সামাদ মিয়াকে পাওয়া যাচ্ছে না। এ খবর পেয়ে ৪ ডিসেম্বর শাহাদাৎ হোসেন তার স্ত্রীকে নিয়ে ময়মনসিংহ থেকে নারায়ণগঞ্জের কারখানার মালিকের সঙ্গে দেখা করে ছেলের সন্ধান চাইলে মালিকপক্ষ তালবাহানা শুরু করেন। সেখানে কর্মরত কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে তারা জানতে পারেন, তার ছেলেকে কাজের সময় মারধর করতেন মালিকের লোকজন।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে এই বিষয়ে ডিবি পুলিশ দিয়ে তদন্তের আবেদন করেছেন শাহাদাৎ হোসেন। 

পুলিশ সুপারের কাছে আবেদনে উল্লেখ করেছেন, শাহাদাৎ হোসেন ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার ভয়রা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব আলীর ছেলে। তিনি ময়মনসিংহ জেলার স্থানীয় দৈনিক আজকের খবরের রিপোর্টার। তার ছেলে সামাদ মিয়া (১৩) বেশি পড়াশুনা করেনি। তারপিন কেমিক্যাল কারখানার মালিক দুলাল মিয়া তার ছেলে সামাদ মিয়াকে তাদের কারখানায় কয়েক মাস কাজ করায়। তিনি জানতে পারেন, কাজ করার সময় সামাদকে মারধর করা হতো। কারখানায় কর্মরত অবস্থায় তার ছেলেকে পাওয়া যাচ্ছে না।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার মঈনুল হক জানিয়েছেন, যে আবেদন করা হয়েছে, এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে তাকে সব রকমের সহযোগিতা দেওয়া হবে। সামাদ মিয়াকে উদ্ধারে সব রকমের পদক্ষেপ নেওয়া হবে।



রাইজিংবিডি/নারায়ণগঞ্জ/৭ ডিসেম্বর ২০১৭/হাসান উল রাকিব/বকুল

Walton
 
   
Marcel