RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৩ ১৪২৭ ||  ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

গাজীপুরে হত্যা মামলার ৪ আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৩৯, ৭ নভেম্বর ২০২০  
গাজীপুরে হত্যা মামলার ৪ আসামি গ্রেপ্তার

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বাহাদুরপুর এলাকায় বসবাসকারী সাগর (১৮) হত্যা মামলার চার আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১।

শুক্রবার (৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় র‌্যাব-১ এর গাজীপুরের পোড়াবাড়ি ক্যাম্প এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

গ্রেপ্তাররা হলেন— একই সিটি করপোরেশনের বাহাদুরপুর এলাকার মো. আবুল হাসেমের ছেলে মো. লিটন (২৩), আব্দুল আলীর ছেলে শরীফুল ইসলাম (৩৮), আমিরুলের ছেলে আরমান (১৯) এবং ভাওরাইদ দক্ষিণপাড়ার জহিরুল ইসলামের ছেলে শাহীন (২২)।

র‌্যাব জানায়, ময়মনসিংহের ইশ্বররগঞ্জ থানার চরনীখলা এলাকার ইদ্রিস আলী পরিবার নিয়ে বাহাদুরপুর এলাকায় বসবাস করেন। তার ছেলে সাগর গত ১৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় নিখোঁজ হয়। তাকে খোঁজাখুজির করে না পেয়ে তার পরিবার জিএমপি সদর থানায় জিডি এবং  ছেলেকে উদ্ধারে গত ৩ নভেম্বর র‌্যাব -১ এর গাজীপুর ক্যাম্পে আইনি সাহায্য কামনা করে।

এদিকে, গত ১৯ অক্টোবর দুপুরে গাজীপুর সিটির নান্দুয়াইন চাতুরাপাড়া এলাকার একটি ধান খেত থেকে এক অজ্ঞাত যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে র‌্যাব এবং পুলিশ। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে জিএমপি সদর থানায় অজ্ঞাতনাম আসামি করে মামলা দায়ের করে। পরে গত ৫ নভেম্বর সাগরের পরিবারের লোকজন র‌্যাব ক্যাম্পে গিয়ে উদ্ধার করা লাশের গায়ের পোষাক, বেল্ট, পায়ের স্যান্ডেলের ছবি দেখে লাশটি নিখোঁজ সাগরের লাশ বলে শনাক্ত করে। এরই ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন তথ্যউপাত্ত বিশ্লেষণ করে শুক্রবার (৬ নভেম্বর) রাত দেড়টার দিকে র‌্যাব-১ জিএমপির সদর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ওই আসামিদের গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাব আরও জানায়, গ্রেপ্তার আসামিদের ভাষ্যমতে তারা পেশায় মাদক কারবারি। তাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আগে বিভিন্ন মামলায় তাদের আটক করেছিল। তাদের আটকের পিছনে সোর্স সাগরের ভূমিকা রয়েছে বলে তাদের ধারণা। জেলে থাকাবস্থায় তারা পরিকল্পনা করে জেল থেকে বের হয়ে সাগরকে হত্যা করার। ঘটনার আনুমানিক এক মাস আগে তারা জেল থেকে জামিনে মুক্তি পায় এবং সোর্স সাগরের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে তোলে। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় তারা ভিকটিম সাগর নিয়ে ভীমবাজার এলাকায় একসঙ্গে চোলাইমদ পান করে। পরে তাকে ন্যাশনাল পার্কের গহীন বনের মধ্যে নিয়ে যায়। সেখানে সাগরকে পিটিয়ে, জবাইসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথারী ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে লাশ ওই ধান খেতে ফেলে দেয়। এসময় ঘাতকরা লাশটিকে অজ্ঞাত করার জন্য লাশের মুখে এসিড দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

গাজীপুর/হাসমত/বুলাকী

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়