Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২১ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ৯ ১৪২৮ ||  ০৯ জিলক্বদ ১৪৪২

করোনায় ভালো নেই বেদেপল্লীর ভাসমান পরিবারগুলো

নেত্রকোনা সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:১৪, ১০ মে ২০২১   আপডেট: ১৩:২৪, ১০ মে ২০২১
করোনায় ভালো নেই বেদেপল্লীর ভাসমান পরিবারগুলো

করোনায় ভাল নেই নেত্রকোনায় বসবাসরত ভাসমান বেদেপল্লীর পরিবারগুলো। কোনো কাজ না থাকায় বসে বসে অলস সময় কাটাতে হচ্ছে তাদের। এছাড়াও বসবাসের স্থায়ী জায়গা না থাকায় ভাসমান অবস্থায় যেখানে খুশি সেখানেই থাকতে হয় তাদের। এতে করে দুর্বিসহ জীবন যাপন করছেন তারা।

সরেজমিনে দেখা যায়, সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের চল্লিশা বাজার সংলগ্ল রেল গেইট এলাকায় বেদে পল্লীর ১৫ পরিবার বসবাস করছেন। তাদের মধ্যে পুরুষরা বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে কবজ, তাবিজসহ কবিরাজি করে যা পায় তাই দিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে দিনযাপন করে। এছাড়াও নারীরা বিভিন্ন ম‌্যাজিক দেখিয়ে অর্থ উপার্জন করে দিনাতিপাত করছেন। কিন্তু বর্তমানে করোনায় বাইরে যেতে না পেরে খেয়ে না খেয়ে কোনো রকমে দিনযাপন করতে হচ্ছে তাদের। এতে বিপাকে পড়েছেন পরিবারগুলো। শুধু তাই নয়, জেলার বিভিন্ন উপজেলায় বসবাসরত ভাসমান বেদে পরিবারগুলোর একই অবস্থা।

ওই বেদে পল্লীর মারুফা বেগম জানান, গ্রামের বিভিন্ন বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিভিন্ন ধরনের ম্যাজিক খেলাসহ বানর নাচ দেখাতেন। এতে অনেকেই খুশি হয়ে ধান, চালসহ নগদ টাকা দিতেন। কিন্তু করোনায় এখন তারা গ্রামেগঞ্জে যেতে পারছেন না। ঘরে বসেই দিন কাটাতে হচ্ছে। এতে করে সংসার চালাতে খুবই কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি সরকারি সহযোগিতার দাবি জানান।

সদর উপজেলার চল্লিশায় বসবাসরত বেদেপল্লীর সর্দার মো. ফরহাদ মিয়া জানান, ঢাকার সাভার থেকে নেত্রকোনায় প্রায় তিন মাস ধরে বসবাস করছেন তারা।  বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে কবজ, তাবিজসহ কবিরাজি করে কিছু অর্থ উপার্জন করে পরিবার পরিজনয় নিয়ে চলত তাদের। কিন্তু করোনায় তারা কোথাও যেতে না পারছেন না। এতে করে খেয়ে না খেয়ে কষ্টে কোনমতে দিনযাপন করতে হচ্ছে তাদরে। সরকারি সহযোগিতাসহ স্থায়ীভাবে বসবাস করার দাবি জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক কাজি আব্দুর রহমান জানান, করোনাকালীন জেলার অসহায়দের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী ও নগদ টাকা বিতরণ করা হচ্ছে। তারই আলোকে বেদে পল্লীর লোকজনের মাঝেও খাদ্য সামগ্রীসহ নগদ এক হাজার টাকা প্রণদনা করা হয়েছে। অন্যান্য উপজেলার বেদে পল্লীর লোকদেরকেও সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান তিনি।

দেবল/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়