Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ৩ ১৪২৮ ||  ০৯ সফর ১৪৪৩

হিলিতে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপাকে খুচরা ব্যবসায়ীরা

দিনাজপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:০২, ২ জুন ২০২১   আপডেট: ১৩:১৭, ২ জুন ২০২১
হিলিতে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপাকে খুচরা ব্যবসায়ীরা

৩ দিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলি বন্দর বাজারে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে কেজিতে ১২ টাকা।

হঠাৎ দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। আবার অনেক ব্যবসায়ীরা দোকানে পেঁয়াজ রাখা বন্ধ করে দিয়েছেন। এদিকে, দাম বৃদ্ধিতে নাভিশ্বাস সাধারণ ক্রেতাদের।

বুধবার (২ জুন) সকালে হিলি পেঁয়াজ বাজার ঘুরে দেখা যায়, গত ৩ দিন আগে ভারতীয় পেঁয়াজের পাইকারি বাজার ছিলো কেজি প্রতি ৩২ থেকে ৩৩ টাকা। তা খুচরা বাজারে বিক্রি হয়েছিল ৩৫ টাকা কেজি দরে। আবার দেশি পেঁয়াজের পাইকারি দাম ছিলো ৪২ টাকা, খুচরা বিক্রি হয়েছে ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা।

আজ সেই ভারতীয় পেঁয়াজ পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৪৬ টাকা দরে। খুচরা ব্যবসায়ীরা তা বিক্রি করছেন ৪৭ থেকে ৪৮ টাকাতে। এদিকে, দেশি পেঁয়াজ আজ পাইকারি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫২ টাকা কেজি দরে। তা ব্যবসায়ীরা খুচরা বিক্রি করছেন ৫৪ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে।

হিলি বাজারের সবজি ব্যবসায়ী চঞ্চল কুমার রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘ভারতের পেঁয়াজ ৪৫ টাকা দরে পাইকারি কিনেছি, তা বিক্রি করছি ৪৬ টাকা কেজি দরে। দেশি পেঁয়াজ ৫২ টাকা ক্রয় করে তা ৫৫ টাকা দামে বিক্রি করছি।’

সবজি ব্যবসায়ী সোহেল মিয়া রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘পেঁয়াজ বিক্রি জন্য দোকানে আজ এক  কেজিও কিনিনি। কয়েক দিন ধরে পেঁয়াজের বাজার বেপরোয়াভাবে বেড়ে চলছে। সকালে এক দাম আবার বিকেলে আরেক দাম। এভাবে পেঁয়াজ দোকানে রাখলে মানুষের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হচ্ছে। আবার ইউএনও বাজার মনিটরিং করতে আসলে জরিমানা করে। তাই বাজার স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত পেঁয়াজ তুলবো না।’

পেঁয়াজ কিনতে আসা লুৎফর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আজ পেঁয়াজের দাম উল্টাপাল্টা। গত ৪ দিন যে পেঁয়াজ কিনেছিলাম ৩৫ টাকা, আজ সেই পেঁয়াজের দাম চাচ্ছে ৪৮ টাকা কেজি। এভাবে দাম বাড়াটা কি ঠিক?’

গোলাম রাব্বানী নামে এক রিকশাচালক রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘পরশু দিন হাফ কেজি পেঁয়াজ নিয়ে গেলাম সাড়ে ১৭ টাকা। আজ হাফ কেজি পেঁয়াজের দাম নিলো ২৪ টাকা। দুই এক দিনের মধ্যে এতো দাম বেড়ে গেলো? আমরা গরীব মানুষ, দিন দিন দাম বাড়লে চলবো কি করে?’

হিলি বাজারের পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ী রাশেদুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে জানান, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ আছে, আবার দেশি পেঁয়াজও আমদানি কম হচ্ছে। যার কারণে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক মনোয়ার চৌধুরী রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘অনেক দিন ধরে ভারত থেকে পেঁয়াজের আমদানি বন্ধ রয়েছে। সরকার পেঁয়াজ আমদানির পারমিট দিচ্ছে না। সরকার যদি পেঁয়াজ আমদানির পারমিট দেয় তাহলে আমরা পেঁয়াজ আমদানি করবো। তখন আবার পেঁয়াজের বাজার আগের মতো ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজিতে আসবে।’

মোসলেম/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়