ঢাকা     শনিবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১১ ১৪৩০

লক্ষ্মীপুরের চারটি আসনে নৌকা চান ৩৫ জন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:২৭, ২৩ নভেম্বর ২০২৩  
লক্ষ্মীপুরের চারটি আসনে নৌকা চান ৩৫ জন

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের চারটি আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ৩৫ জন। তারা ইতোমধ্যে দলীয় মনোয়নপত্র সংগ্রহের পর তা জমা দিয়েছেন। এ তালিকায় বর্তমান সংসদ সদস্য আছেন তিন জন। এছাড়া, সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য আছেন একজন ও সাবেক সংরক্ষিত নারী সদস্যও আছেন একজন। একই সঙ্গে কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতারাও রয়েছেন।

লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসন থেকে ১০ জন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন। তারা হলেন- বর্তমান সংসদ সদস্য ও রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন খান, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সফিকুল ইসলাম, রামগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আবুল খায়ের পাটওয়ারী, রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফিক মাহমুদ পিন্টু, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক এমএ মমিন পাটওয়ারী, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শহীদ উল্যাহ, রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শামছুল হক মিজান, সাবেক কর কমিশনার সুলতান মাহমুদ ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ব্যারিস্টার তৌহিদুল ইসলাম বাহার।

লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদরের একাংশ) আসন থেকে আটজন আওয়ামী লীগের মনোয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন। তারা হলেন- বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন, ‘আমরা ক’জন মুজিব সেনা’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সাবেক ছাত্রনেতা এএফ জসিম উদ্দিন আহমেদ, এসেনসিয়াল ড্রাগস-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এহসানুল কবীর জগলুল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শামছুল ইসলাম পাটওয়ারী, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য নেওয়াজ শরীফ, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সেলিনা ইসলাম (মানবপাচারের অভিযোগে কুয়েতে সাজাপ্রাপ্ত সাবেক সাংসদ শহিদুল ইসলাম পাপুলের স্ত্রী), উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মিরাজ মুক্তাধির, ঢাকার আদাবর থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সহিদ হোসেন পাটওয়ারী (মক্কা সহিদ)।

লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসন থেকে ১০ জন আওয়ামী লীগের মনোয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন। তারা হলেন- ঢাকার মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ এমএ সাত্তার, বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য এম এ হাসেম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য খোকন চন্দ্র পাল, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি নুরুল হুদা পাটওয়ারী, প্রয়াত সংসদ সদস্য একেএম শাহজাহান কামালের স্ত্রী ফেরদৌসী কামাল, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শিল্প বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য শওকত হায়াত, জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন বেলাল ও চন্দ্রগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আইনুল আহমেদ তানভীর।

লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি ও কমলনগর) আসন থেকে সাতজন আওয়ামী লীগের মনোয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল মামুন, রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ, ঢাকা উত্তর যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তাসবীরুল হক অনু, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ইস্কান্দার মির্জা শামীম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য আব্দুজ্জাহের সাজু ও আওয়ামী লীগ নেতা শরীফ উদ্দিন। এর মধ্যে ফরিদুন্নাহার লাইলী এই আসনটির সাবেক সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য।

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, আওয়ামী লীগ একটি গণতান্ত্রিক দল। মনোনয়ন চাওয়ার অধিকার সবার আছে। দলীয় সভাপতি ও মনোনয়ন বোর্ড যাকে মনোনয়ন দেবেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তার জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন বলেন, আওয়ামী লীগ একটি ঐতিহ্যবাহী দল। এখানে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা রয়েছে। যারা দলীয় কর্মীদের পাশে ছিলেন এবং আছেন, তারাই মনোনয়ন পাবেন বলে বিশ্বাস করি। 

জাহাঙ্গীর/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়