ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৮ ১৪৩১

সুষ্ঠু নির্বাচনে সামান্যতম ছাড় নয় : নির্বাচন কমিশনার আনিছুর

রাঙামাটি প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৫৩, ২৭ নভেম্বর ২০২৩  
সুষ্ঠু নির্বাচনে সামান্যতম ছাড় নয় : নির্বাচন কমিশনার আনিছুর

অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য পক্ষপাতমূলক আচরণ করা যাবে না, কোনো রকমের নিরপেক্ষহীনতার প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার মো. আনিছুর রহমান। তিনি বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের ক্ষেত্রে কমিশন সামান্যতম ছাড় দেবে না।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) দুপুর ২টায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে রাঙামাটিতে মতবিনিময়সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি নির্বাচনে আসতে চাইলে তফসিল পেছানো হবে কি-না সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কমিশনার বলেন, যদি নির্বাচনে আসে এখনো সুযোগ আছে, বিবেচনা করা হবে।

রাঙামাটিতে নির্বাচন কমিশনার মো. আনিছুর রহমান বলেছেন, ‘অতীতের সব নির্বাচনের মতো এবারের নির্বাচনেও সারা দেশে সেনাবাহিনী মোতায়েনের পরিকল্পনা আছে এবং আমরা তা করব। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিশেষ অঞ্চল হিসেবে এখানে আগে থেকে সেনাবাহিনী আছে। পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দেওয়া আছে। একইসঙ্গে কেউ যাতে বৈধ অস্ত্রের অবৈধ ব্যবহার করতে না পারে, সেজন্য সেনাবাহিনীসহ সব বাহিনীকে নজরদারি বাড়াতে হবে।’

নির্বাচন কমিশনার আরও বলেন, ‘আমরা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছি। নিবন্ধিত ৪৪ দলের মধ্যে ২৬ দল অংশ নিয়েছে। বাকি দলগুলোর নির্বাচনে অংশ নিতে অনুরোধ করা হয়েছে।’

আনিছুর রহমান বলেন, ‘আমরা নিবাচনে দেশি-বিদেশি কোনো চাপ অনুভব করছি না। নির্বাচনে ৫০টির মতো বিদেশি পর্যবেক্ষক সংস্থা জাতীয় নিবাচন পর্যবেক্ষণ করার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আবেদনের সময় ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।’

আনিছুর বলেন, ‘যত বেশি দেশি-বিদেশি পর্যটক আসবে, আমরা তত উৎসাহিত করব। তারা নিবাচন ভালো-কি মন্দ হচ্ছে তা বিশ্লেষণ করুক।’ 

সকাল ১১টায় আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. আনোয়ার পাশার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মো. মোশারফ হোসেন খান, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো. সহিদুজ্জামান, রাঙামাটি পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ, খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মুক্তা ধরসহ প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তারা। 
 

বিজয়/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়