ঢাকা     সোমবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৪ ১৪৩০

শ্বশুর জাপার মনোনয়ন না পেলেও পেয়েছেন জামাতা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:১৩, ২৮ নভেম্বর ২০২৩   আপডেট: ২২:২২, ২৮ নভেম্বর ২০২৩
শ্বশুর জাপার মনোনয়ন না পেলেও পেয়েছেন জামাতা

জিয়াউল হক মৃধা ও রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জাতীয় পার্টির মনোনয়ন মানেই আলোচনায় শ্বশুর ও জামাতা। দুই জনই দলের হেভিওয়েট প্রার্থী হওয়ায় আলোচনা চলে আসে।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এবার দলের মনোনয়ন পাননি ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জিয়াউল হক মৃধা। তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর-বিজয়নগর) আসন থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে তার মেয়ের স্বামী রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়াকে। বিগত সংসদ নির্বাচনে শ্বশুর ও জামাতার মনোনয়ন নিয়ে নাটকীয়তা হয়। 

জাতীয় পার্টি দেশব্যাপী ৩০০ সংসদীয় আসনের মধ্যে ২৮৯ আসনে প্রার্থী ঘোষণা করেছে সোমবার (২৭ নভেম্বর)। ওই দিন বিকেলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে প্রার্থীদের তালিকা ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬টি সংসদীয় আসনেও প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এ সব আসনে প্রার্থীরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) মো. শাহানুল করিম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আব্দুল হামিদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর-বিজয়নগর) মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) তারেক আহমেদ আদেল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ (নবীনগর) মো. মোবারক হোসেন দুলু ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ (বাঞ্জারামপুর) আমজাদ হোসেন।

এর মধ্যে আব্দুল হামিদ সম্প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উপনির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন। নির্বাচনে তার জামানত বাজেয়াপ্ত হয়। তিনি নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে ভোট পান ৩ হাজার ১৮৬ ভোট। এ আসনে ৫০ বছর পর আওয়ামী লীগের প্রার্থী জয়লাভ করে।

রুবেল/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়