ঢাকা     সোমবার   ১৫ জুলাই ২০২৪ ||  আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

মনোনয়ন বাতিল, কান্নায় বুক ভাসালেন স্বতন্ত্র প্রার্থী

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৪২, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩  
মনোনয়ন বাতিল, কান্নায় বুক ভাসালেন স্বতন্ত্র প্রার্থী

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মানিকগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল আলী বেপারীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। আর এর পরপরই মাটিতে শুয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন টানা তিনবার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ফেল করা এই প্রার্থী।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে আব্দুল আলী বেপারীর প্রার্থিতা বাতিল করেন জেলা প্রশাসক ও রির্টানিং অফিসার রেহেনা আকতার।

প্রার্থীতা বাতিলের কথা শুনে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মাটিতে শুয়ে কান্নায় লুটিয়ে পড়েন আব্দুল আলী বেপারী। এসময় তিনি প্রার্থীতা ফেরত পাওয়ার জন্য দাবি জানান। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য এসে তাকে শান্তনা দেয় এবং প্রার্থীতা ফিরে পেতে আপিলের পরার্মশ দেন।

হলফনামাপত্রে জানা যায়, মানিকগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মো.আব্দুল আলী বেপারী মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বেড়াডাংগা এলাকার কিয়ামুদ্দিনের ছেলে। পেশায় তিনি একজন কৃষক। কৃষিকাজের মাধ্যমে বার্ষিক আয় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং তার কাছে নগদ ২ লাখ টাকা ও এক ভরি স্বর্ণালংকার রয়েছে। মো.আব্দুল আলী বেপারীর শিক্ষাগত সার্টিফিকেট না থাকলেও তিনি স্বশিক্ষিত।

পরিবারিক সূত্রে জানা যায়, মো. আব্দুল আলী বেপারী ২০২১, ২০১৬ ও ২০২১ সালে ঘিওর উপজেলার সিংজুরি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করেন। প্রতিবারই তিনি পরাজিত হন। এবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মানিকগঞ্জ-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি।

আব্দুল আলী বেপারী বলেন, ‌‘আমি এখন আমার ভোটারদের মুখ দেখাবো কেমনে, আমি আর বাচুম না। আমি ভোট দিতে না পারলে মরুম, আমার জীবন রাখুম না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার আবেদন, আমার ভোট আমাকে দিয়ে যেন মরতে পারি। আমার বিশ্বাস আছে, মানুষ আমাকে ভোট দিবে। আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে সংসদে যাবো। যে কোনো চক্রান্তের মাধ্যমে আমার নমিনেশন বাদ দেওয়া হয়েছে। আমাকে আমার ভোট (প্রার্থীতা ফিরে পাওয়ার) দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হোক।’

চন্দন/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়