ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৪ ১৪২৯ ||  ০২ রবিউল আউয়াল ১৪১৪

আফিফের ব্যাটিং পজিশন নিয়ে আর হবে না ‘টানা-হ্যাঁচড়া’

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:১০, ১৫ আগস্ট ২০২২  
আফিফের ব্যাটিং পজিশন নিয়ে আর হবে না ‘টানা-হ্যাঁচড়া’

গত বিশ্বকাপের পর খুব আক্ষেপ করেই এক ক্রিকেটার বলেছিলেন, ‘সিনিয়র ক্রিকেটাররা নিজেদের জায়গায় ভালো করছে বলে আমরা আমাদের স্বাচ্ছন্দ্যের জায়গায় যেতে পারছি না।’ স্বাচ্ছন্দ্যের জায়গা বলতে ঘরোয়া ক্রিকেটে যে পজিশনে খেলে পারফর্ম করে আলো ছড়িয়েছেন সেখানে যেতে পারছেন না। বাস্তববাদী হয়েই ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে সেই ক্রিকেটার। 

অপেক্ষার ফল সুমিষ্ট হয়, মেলে সাফল্য তা আরও একবার প্রমাণিত। ব্যাটিং পজিশনে উন্নতির জন্য আফিফ হোসেন অপেক্ষায় ছিলেন। লেট অর্ডারে নিজের সামর্থ্য বোঝানোর পর তাকে লম্বা সময়ের জন্য ক্রিজে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এজন্য ব্যাটিং অর্ডারে প্রমোশন পাচ্ছেন এ ক্রিকেটার। বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে সীমিত পরিসরে চারে খেলাতে ইচ্ছুক দল। এই জায়গায় দীর্ঘদিন খেলে আসছেন মুশফিকুর রহিম। 

দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন সোমবার গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘আমরা ওখানেই (চার) ওকে খেলাবো। আমরা যেটা চাই, সেটা হলো আমরা সুনির্দিষ্ট ভূমিকায় আফিফকে নিয়ে চিন্তা করছি। সে একটা ডায়নামো। আমার মনে হয় আত্মবিশ্বাসী একটা ছেলে, দারুণ ব্যাটিং করেছে টি-টোয়েন্টিতে। ওয়ানডেতেও ভালো করেছে। সবচেয়ে বড় কথা, ও আক্রমণাত্মক।’ 

খালেদ মাহমুদ বাংলাদেশ ক্রিকেটের পরিবর্তন মাঠে থেকে দেখেছেন। আফতাব আহমেদ, খালেদ মাসুদ পাইলট, হাবিবুল বাশারদের জায়গা মুশফিক, সাকিবরা যেভাবে নিয়েছেন, আফিফ তাদের উত্তরসূরি হয়ে একই কাজ করবেন বলে বিশ্বাস তার, ‘আমরা মনে করি আফিফকে ওই জায়গাতেই খেলানো উচিত। কারণ সে আমাদের ভবিষ্যৎ, সে আমাদের পরবর্তী খুব গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার, যে তৈরি হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে। অবশ্যই আমরা ওকে ওই সুযোগটা করে দিতে চাই, এটা আমাদের দায়িত্ব।’ 

মুশফিক না থাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচে আফিফকে পাঁচ ও চারে দেখা গিয়েছিল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও প্রথম ম্যাচে তিনি নামেন পাঁচে, পরেরটায় চারে। শেষ ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ একাদশে আসার পর আফিফকে নামানো হয় ছয়ে। এশিয়া কাপের দলে ফিরেছেন মুশফিক। আছেন মাহমুদউল্লাহ। তবে তাদের দুজনকে ছাপিয়ে আফিফ চারে ব্যাটিং করবেন সেই নিশ্চয়তা খালেদ মাহমুদ দিয়ে রেখেছেন, ‘এবার আর আফিফকে নিয়ে টানা হ্যাঁচড়া হবে না।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়