ঢাকা     রোববার   ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৬ ১৪২৯

প্রথম দিনে রেকর্ড রান ‘ভাইরাসে কাবু’ ইংল্যান্ডের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০৯, ১ ডিসেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৯:৫৯, ১ ডিসেম্বর ২০২২
প্রথম দিনে রেকর্ড রান ‘ভাইরাসে কাবু’ ইংল্যান্ডের

১৭ বছরে প্রথম টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে গেছে ইংল্যান্ড। ম্যাচের আগের দিন ১৬ জনের স্কোয়াডের অর্ধেকই অজানা ভাইরাসে আক্রান্ত, তাদের ক্যাম্প যেন হাসপাতাল। ট্রফি নিয়ে ফটোসেশনও বাতিল করা হয়। কিন্তু ২৪ ঘণ্টা পার হতেই সুস্থ বেন স্টোকসরা। এতটুকুও কাহিল হননি, বরং ভাইরাস যেন আরও শক্তিশালী করে তুলেছিল তাদের।

প্রথম দিন শেষে স্কোরই বলছে সেই কথা। কোনও টেস্ট দল প্রথম দিনে যা করতে পারেনি, সেটাই করেছে তারা। ১৯১০ সালে সিডনিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম দিন অস্ট্রেলিয়া করেছিল ৪৯৪ রান। সেটাকে পেছনে ফেলে পাঁচশ অতিক্রম করে বৃহস্পতিবারের খেলা শেষ করেছে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

দিন শেষে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৫০৪ রান। এর আগে কোনও দল প্রথম দিনে পাঁচশ রান করতে পারেনি। প্রথমবার শুরুর দিনেই হলো এক ইনিংসে চার সেঞ্চুরি। জ্যাক ক্রলি ৮৬ বলে যৌথভাবে ইংল্যান্ডের চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি করেন, হ্যারি ব্রুক পরে তাকে ছাপিয়ে যান ৮০ বলে শতক ছুঁয়ে এখন তৃতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরির মালিক। জ্যাক ক্রলি ও ওলি পোপ তাদের তৃতীয় সেঞ্চুরির ধেখা পেয়েছেন।

পাকিস্তানের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল জাহিদ মাহমুদ। অভিষেকে ২৩ ওভার বল করে ১৬০ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। অনভিজ্ঞ বোলিং বিভাগের ভোগান্তির দিনে কেবল মোহাম্মদ আলী ওভারপ্রতি ছয় রানের কম দিয়েছেন।

টস হেরে বোলিং করতে নামা পাকিস্তান এদিন টেস্ট ক্যাপ দেয় আরও দুজনকে- সৌদ শাকিল ও হারিস রউফ।

সকালের সেশনে ইংল্যান্ড করে ১৭৪ রান। দুপুরের সেশনে আসে ১৫৮ রান এবং বিকেলের সেশনে আরও ১৭৪ রান। শেষ সেশনের রানটি এসেছে মাত্র ২১ ওভারে। 

বোলারদের জন্য নিষ্প্রাণ উইকেটে ক্রলি ও বেন ডাকেট ১৩.৫ ওভারেই শতরান তুলে ফেলেন। ডাকেট ১০৭ রানে ফিরলে ভাঙে ২৩৩ রানের উদ্বোধনী জুটি। ১২২ রান ক্রলি পরের ওভারেই ফিরে যান। জো রুট আগ্রাসী খেলতে গিয়ে থামেন ২৩ রান করে। পরে পোপ ১০৮ রানে থামলে ব্রুক ইংল্যান্ডের জার্সিতে চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি করেন। আলোকস্বল্পতায় দিনের সমাপ্তি ঘোষণার আগে ব্রুক ৮১ বলে ১৪ চার ও ২ ছয়ে ১০১ রানে অপরাজিত। স্টোকসও খেলেছেন আগ্রাসী ইনিংস, ১৫ বলে ৬ চার ও ১ ছয়ে ৩৪ রানে অপরাজিত ছিলেন অধিনায়ক।

প্রথম দিনে হলো যত রেকর্ড

* টেস্টের প্রথম দিনে সর্বোচ্চ রান (৫০৬)

* প্রথমবার কোন টেস্টের প্রথম দিনে হলো চারটি সেঞ্চুরি।

* টেস্ট ম্যাচে ওপেনিং সেশনে সর্বোচ্চ রান (১৭৪)।

* টেস্ট ইতিহাসে দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির জুটি।

* ইংল্যান্ড ওপেনারের দ্রুততম টেস্ট শতক (জ্যাক ক্রলি, ৮৬ বলে)।

* ইংল্যান্ডের পক্ষে তৃতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরি (হ্যারি ব্রুক, ৮০ বল)।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়