ঢাকা     বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৫ ১৪৩১

ফাইনালে বাবাকে না পেয়ে বিমর্ষ জোকোভিচ

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৪৬, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩  
ফাইনালে বাবাকে না পেয়ে বিমর্ষ জোকোভিচ

করোনাভাইরাসের টিকা না নেওয়ার কারণে গত বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলতে এসে অস্ট্রেলিয়া থেকে বিতাড়িত হয়েছিলেন। এক বছর বাদে রাজসিক প্রত্যাবর্তন হলো। দশম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতলেন নোভাক জোকোভিচ। স্টেফানোস সিসিপাসকে সরাসরি সেটে হারালেন ফাইনালে। কিন্তু ট্রফি জেতার পরও বিমর্ষ ছিলেন সার্ব তারকা, কারণ ফাইনালে স্ট্যান্ডে ছিলেন না তার বাবা।

রড লেভার অ্যারেনায় ফাইনাল ম্যাচ জেতার পরপরই আনন্দ অশ্রুতে ভাসেন জোকোভিচ। পরিবার ও দলের সঙ্গে আলিঙ্গন করেন। কিন্তু তাদের মধ্যে ছিলেন না তার বাবা সরদান জোকোভিচ। সম্প্রতি একটি রাশিয়ান পতাকার পাশে তার দাঁড়ানোর ছবি বিতর্ক তুললে সরে দাঁড়ান।

সোমবার সকালে জোকোভিচ বললেন, রোববারের ফাইনালে বাবাকে পাশে না পাওয়া কষ্ট দিয়েছে তাকে। মেলবোর্ন পার্কে মিডিয়ার সঙ্গে এক আলপচারিতায় ২২টি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী এই কথা বলেন। জোকোভিচ বললেন, ‘আমি ভেবেছিলাম মিডিয়া ও সবকিছুর প্রেক্ষিতে পরিস্থিতি শান্ত হবে। কিন্তু তা হয়নি। আমাদের দুজনেরেই মনে হয়েছিল সেখানে তার না থাকা ভালো হবে। এটা আমাকে ও তাকে অনেক কষ্ট দিয়েছে, কারণ এই মুহূর্তগুলো খুব বিশেষ, অনন্য। কে জানে আবার কবে এমন কিছু হবে। তাই এটা তার জন্য সহজ ছিল না।’

ফাইনাল ম্যাচ শেষে পরে বাবার সঙ্গে দেখা করেন জোকোভিচ। তাকে খুব দুঃখী লাগছিল বললেন সার্ব তারকা, ‘তাকে দেখতে ভালো লাগছিল না, যদিও আমাকে জড়িয়ে ধরে তিনি খুশি। কিন্তু আমি দেখতে পাচ্ছিলাম, সে দুঃখ পেয়েছে। আমি মনে করি, শেষ দিকে, তিনি যা বলেছেন আমাকে, সেটা হলো কোর্টে ভালোবোধ করা গুরুত্বপূর্ণ। আমি ম্যাচ জিতলাম এবং তিনি এখন আমার সঙ্গে।’

শেষটা সুখের হওয়ায় আনন্দিত জোকোভিচ, ‘একদিক থেকে আমিও দুঃখ পেয়েছি, কারণ সে স্ট্যান্ডে ছিল না। কিন্তু সে পুরো টুর্নামেন্টে ছিল, তাই ভালো এটা। শেষ পর্যন্ত আমাদের সুখের সমাপ্তি হলো।’

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়