ঢাকা     বুধবার   ২২ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

৭৭ রানের জয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ বাংলাদেশের

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৩১, ২৯ মার্চ ২০২৩   আপডেট: ১৮:৩২, ২৯ মার্চ ২০২৩
৭৭ রানের জয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ বাংলাদেশের

বাংলাদেশ: ২০২/৩ (১৭ ওভার) 

আয়ারল্যান্ড: ১২৫/৯ (১৭ ওভার) 

বাংলাদেশ ৭৭ রানে জয়ী। 

২০৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৯ উইকেটে ১২৫ রান করেছে আয়ারল্যান্ড। ৭৭ রানে জিতে ১ ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিশ্চিত করেছে লাল সবুজের দল। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে ২২ রান। আয়ারল্যান্ডের হয়ে একাই লড়েছেন ক্যাম্পার। সর্বোচ্চ ৫- রান আসে তার ব্যাট থেকে। টেক্টর ২২ ও শেষ দিকে গ্রাহাম হুম ২০ রানে অপরাজিত থাকেন। এ ছাড়া আর কেউ দুই অঙ্কের ঘরের মুখ দেখেননি। সাকিব একাই নেন ৫ উইকেট। এ ছাড়া তাসকিন ৩টি ও হাসান নেন ১ উইকেট। ৩১ মার্চ সিরিজের শেষ ম্যাচ এখন শুধু নিয়মরক্ষার। 

সাকিবের ফাইফারে বড় জয়ের পথে বাংলাদেশ

প্রথম বলেই বাংলাদেশকে উচ্ছ্বাসে ভাসিয়েছিলেন তাসকিন। এরপর বোলিংয়ে আসেন দলীয় ১৩তম ওভারে। দ্বিতীয় বলে ফেরান হ্যান্ডকে। এলবিডব্লিউ হয়ে হ্যান্ড মাত্র ২ রানে ফেরেন সাজঘরে। পরের ওভারে এসে তাসকিন ফেরান ফিফটি করা ক্যাম্পারকে। ৬ মেরে ২৯ বলে ফিফটি করার পরের বলেই বোল্ড হয়ে ফেরেন ক্যাম্পার। ১১৬ রানে নবম উইকেট হারালো আয়ারল্যান্ড। বড় জয়ের পথে বাংলাদেশ। দুই ওভারে তাদের প্রয়োজন ৮৭। 

আক্রমণে হাসান 

সাকিবের ঘূর্ণিতে ধস আইরিশ ব্যাটিং শিবিরে। ফাইফার নিয়ে এক প্রকার শেষ করে দিয়েছেন সফরকারীদের। রাব্র আক্রমণে হাসানে। দলীয় ১১তম ওভারের দ্বিতীয় বলে মার্ক অ্যাডেয়ারকে ফেরান হাসান। উইকেটের পেছনে সহজ ক্যাচ নেন লিটন। ৬ রান করেন অ্যাডেয়ার। ৭৪ রানে সপ্তম উইকেট হারালো আয়ারল্যান্ড।  

শীর্ষে সাকিব 

আবার জোড়া উইকেটে সাকিবের ফাইফার। নিজের করা টানা তৃতীয় ঈভারে সাকিব জোড়া উইকেট তুলে নিলে সাকিব। ষষ্ঠ ওভারে সাকিব ফেরান ডকরেল-টেক্টরকে। ডকরেল ২ ও টেক্টর ২২ রান করেন। সাকিবের এটি পঞ্চম উইকেট। ৩ ওভারে ১৪ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে এই উইকেটগুলো নেন তিনি। এর আগে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ২০ রানে ৫ উইকেট। অল্পের জন্য ক্যারিয়ার সেরা হলো না। তবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে টিম সাউদিকে টপকে শীর্ষ উইকেট শিকারির কৃতিত্ব অর্জন করেন সাকিব। ১১৪ ম্যাচে ১৩৬ উইকেট নিয়ে শীর্ষে আছেন সাকিব। তার থেকে ২ উইকেট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে সাউদি। সাকিবের ঘূর্ণিতে ব্যাটিং ধসের পর এখন লড়ছেন অ্যাডেয়ার-ক্যাম্পার। 

সাকিবের জোড়া উইকেট  

এবার এক ওভারে ২ উইকেট তুলে নিলেন সাকিব। নিজের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে রস অ্যাডেয়ারকে বোল্ড করে ফেরানোর পর শেষ বলে ডিলানিকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন। অ্যাডেয়ার-ডিলানি দুজনেই ৬ রনা করে আউট হন। সাকিবের এটি তৃতীয় শিকার। সাকিবের ঘূর্ণিতে পাওয়ার প্লেতে মাত্র ৪০ রান করে আয়ারল্যান্ড। হারায় ৪ উইকেট। 

প্রথম বলে সাকিবের উইকেট 

এবার সাকিব আল হাসান এসেই প্রথম বলে টকারকে ফেরালেন সাজঘরে। সাকিবের স্লোয়ার ডেলিভারিতে সুইপ করতে চেয়েছিলেন টকার। টাইমিং হয়নি। বল চলে যায় স্কয়ার লেগে রনির হাতে। ৫ রান আসে তার ব্যাট থেকে। পরপর দুই ওভারে দুই উইকেট হারালো আইরিশরা। 

ইনিংসের প্রথম বলে তাসকিনের উইকেট 

ইনিংসের প্রথম বলেই তাসকিনের উইকেট! আউট সাইড অফে হালকা বেরিয়ে যাওয়া বলে ব্যাট চালিয়েছিলেন স্টার্লিং। বল কানায় লেগে যায় উইকেটের পেছনে। ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে দারুণ ক্যাচ নেন লিটন। বড় লক্ষ্য খেলতে নেমে প্রথম বলেই উইকেট হারালো আইরিশরা। 

১৭ ওভারেই ২০৩ রানের লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশ

আগ্রাসী ব্যাটিং করে বাংলাদেশ টানা দুই ম্যাচে দুইশ রান করলো। আজ তা হয়েছে মাত্র ১৭ ওভারেই। বৃষ্টির কারণে খেলা কমে গেছে ৩ ওভার করে। বাংলাদেশ আগে ব্যাটিং করে ৩ উইকেটে ২০২ রান করে। মাত্র ৪১ বলে সর্বোচ্চ ৮৩ রান করেন লিটন দাস। রনি ২৩ বলে খেলেন ৪৩ রানের ইনিংস। সাকিব ২৪ বলে ৩৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। ইনিংস এর এক বল বাকি থাকতে আউট হন তাওহীদ হৃদয়। ১৩ বলে ২৪ রান করেন তিনি। 

লিটন-রনির বিদায়ের পর সাকিব ঝড়

ছক্কা মারতে গিয়ে রনির বিদায়ের পর লিটনও বিদায় নেন ৮৩ রানে। আউটসাইড অফের বল খেলতে গিয়ে খোঁচা দিয়ে বসেন লিটন। মাত্র ৪১ বলে ৮৩ রানের এক নান্দনিক ঝড়ো ইনিংসের ইতি ঘটে। ১০টি চার ও ৩টি ছয়ে তার ইনিংস সাজানো ছিল। রনির আউটের পরেই ক্রিজে আসেন সাকিব। প্রথম বলেই হাঁকান চার। ক্রিজে সাকিবের সঙ্গী তাওহীদ হৃদয়। 

৪৪ রানে থামলো রনি ঝড় 

হোয়াইটের আউটসাইড অফের বল উড়িয়ে মেরেছিলেন রনি। টাইমিংয়ে গড়বড় হওয়ায় ধরা পড়েন যান লং অনে অ্যাডেয়ারের হাতে। ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় মাত্র ২৩ বলে ৪৩ রান করেন রনি। এর আগের ম্যাচে পেয়েছিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি। মাত্র ৬ রানের জন্য আজ ফিফটি পেলেন না। 

দ্রুততম ফিফটির পর জুটির রেকর্ড

লিটনের ব্যাটে দ্রুতত, ফিফটির দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ। মাত্র ১৮ বলে ফিফটি করেন লিটন। এরপর রনির সঙ্গে জুটির সেঞ্চুরি হয় মাত্র ৪৩ বলে। এর আগে ওপেনিং জুটিতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ছিল ১০২। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই রান করেছিলেন নাইম শেখ-সৌম্য সরকার। 

আশরাফুলের রেকর্ড ভেঙে ১৮ বলে লিটনের হাফ সেঞ্চুরি 

১৮ বলে হাফ সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে রেকর্ড গড়লেন লিটন দাস। ৫টি চার ও ৩টি ছয়ে তার ইনিংসটি সাজানো। এর আগে ২০ বলে ফিফটি ছিল মোহাম্মদ আশরাফুলের। সেটি ভেঙে দিয়ে নতুন রেকর্ড গড়লেন লিটন। 

পাওয়ার প্লেতে বাংলাদেশের ৭৩

ওভার কাটায় পাওয়ার প্লেও ১ ওভার কমে। তবে রান কমেনি। বাংলাদেশের দুই  ওপেনার লিটন-রনি তুলেছেন ৭৩ রান। 

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে খেলা শুরু

বৃষ্টির বাধা পেরিয়ে এক ঘণ্টা ৪০ মিনিট পর খেলা শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ প্রথম ওভারে ৮ রান নিয়েছে। 

খেলা ১৭ ওভারে, শুরু ৩.৪০ মিনিটে

চট্টগ্রামে থেমেছে বৃষ্টি, এবার খেলা শুরুর অপেক্ষা। মাঠ পর্যবেক্ষণ করে ৩টা ৪০ মিনিটে খেলা শুরুর নতুন সময় জানিয়েছেন অফিসিয়ালরা। খেলা হবে ১৭ ওভারে। পাওয়ার প্লে হবে ৫ ওভারে। সর্বোচ্চ ২ জন বোলার ৪ ওভার করে বোলিং করতে পারবেন। এর আগে ৩.১৫ মিনিটে খেলা শুরুর সময় দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আবার বৃষ্টি আসায় সম্ভব হয়নি। 

খেলা শুরুর ঘোষণার পর আবার বৃষ্টি 

বৃষ্টি থামলে খেলা শুরুর ঘোষণার পর মাঠে নেমেছিলেন ক্রিকেটাররা। প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন খেলার। মাঠ কর্মীরা মাঠ শুকানোর কাজে ব‌্যস্ত ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ আকাশের আবার মন খারাপ। শুরু হয় বৃষ্টি। মাঠ আবার কাভার করে রাখা হয়েছে। ক্রিকেটাররাও ফিরেছেন ড্রেসিংরুমে

১৯ ওভারে খেলা 

সাগরিকায় বৃষ্টি থেমেছে আরও আগে। চলছে মাঠ পরিচর্যার কাজ। খেলা শুরু হবে ৩.১৫ মিনিটে। খেলা হবে ১৯ ওভারে। 

বৃষ্টি শেষে সাগরিকায় ঝলমলে রোদ

ত্রিশ মিনিটের ঝোড়ো হাওয়া ও মুষলধারে বৃষ্টি থেমেছে সাগরিকায়। সাগর পাড়ের স্টেডিয়ামে এখন ঝলমলে রোদের দেখা মিলছে। বৃষ্টি থামায় ধীরে ধীরে গ্রাউন্ডসম‌্যানরা কাজ শুরু করছেন। মাঠের বেশিরভাগ অংশ ত্রিপল দিয়ে ঢাকা। সেগুলো থেকে পানি সরানোর পর মাঠ থেকে সরানো হবে। 

বৃষ্টিতে খেলা শুরু হতে বিলম্ব 

প্রথম ম্যাচে হানা দিয়েছিল বৃষ্টি। বাংলাদেশ ইনিংসের ৪ বল বাকি থাকতে বৃষ্টি হানা দেয়। আয়ারল্যান্ডও যথাসময়ে নামতে পারেনি। খেলা হয় ৮ ওভারে। বৃষ্টির পেটে চলে যায় ১২.৪ ওভার। এবার টসের পরেই নামে ঝুম বৃষ্টি। ২ টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বৃষ্টির বাধায় হচ্ছে না। মাঠ এখনো কাভারে ঢাকা। তবে স্বস্তির খবর আকাশ পরিস্কার হচ্ছে। বৃষ্টি এখনও আছে। মাঠের ওপর যে কালো মেঘ ছিল তা সরে গেছে। ঝড়ও নেই।

টস হতেই ঝড়ের শুরু 

সাকিব আল হাসানরা যখন টস করছিলেন তখনো জহুর আহমেদে বইছিল দমকা হওয়া। শেষ হতেই ঝড়ো বাতাসের শুরু। দ্রুত মাঠ ছাড়েন ক্রিকেটার-অফিসিয়ালরা। মিনিট কয়েকের ব্যবধানে নামে ঝুম বৃষ্টি। এখন মাঠ কাভারে ঢাকা। বাংলাদেশ এই ম্যাচেও টস হেরে ব্যাটিং করবে। 

অপরিবর্তিত বাংলাদেশের একাদশ 

বাংলাদেশ নেমেছে অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে। প্রথম ম্যাচের মতো তিন পেসার নিয়েই আইরিশদের পরীক্ষা নেবে লাল সবুজের দল। 

একাদশে যারা সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), রনি তালুকদার, নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাশ, শামীম হোসেন পাটোয়ারী, তৌহিদ হৃদয়, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ ও মোস্তাফিজুর রহমান।

এক পরিবর্তন আইরিশ একাদশে 

আয়ারল্যান্ড নেমেছে এক পরিবর্তন নিয়ে। ক্রেইগ ইয়াং এর পরিবর্তে একাদশে অলরাউন্ডার ফিয়ন হ্যান্ড। 

একাদশে যারা মার্ক অ্যাডায়ার, রস অ্যাডায়ার, কার্টিস ক্যাম্পার, গ্যারেথ ডেলানি, জর্জ ডকরেল, গ্রাহাম হুম, পল স্টার্লিং (অধিনায়ক), হ্যারি টেক্টর, লরকান টাকার, বেন হোয়াইট, ক্রেইগ ইয়াং।

টস

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। বুধবার দুপুর ২টায় চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হবে। টস জিতে ফিল্ডিং নিয়েছে আয়ারল্যান্ড। বাংলাদেশ ব্যাটিং করবে।  

জিতলেই সিরিজ 

প্রথম ম্যাচে বৃষ্টি আইনে ২২ রানে জিতে সিরিজে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। আজ জিতলেই সিরিজ পকেটে পুরবে সাকিব আল হাসানের দল। 

ঢাকা/রিয়াদ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়