ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||  ফাল্গুন ৯ ১৪৩০

৩১০ রানেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:০৪, ২৮ নভেম্বর ২০২৩   আপডেট: ০৯:৪৯, ২৯ নভেম্বর ২০২৩
৩১০ রানেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

সংক্ষিপ্ত স্কোর
নিউ জিল্যান্ড: ৬/০ (০.২ ওভার)

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৩১০/১০ (৮৫.১ ওভার)

৩১০ রানেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস
দ্বিতীয় দিনের প্রথম বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়লেন শরিফুল ইসলাম। তাতে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের ১ম ইনিংসে ৩১০ রানেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেছেন ওপেনার মাহমুদল হাসান জয়। এছাড়াও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৭ রান করেন যথাক্রমে নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হক। 

এর আগে প্রথম দিনের শুরুটা ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের অযাচিত কয়েকটি আউটে ব্যাকফুটে চলে যায়। শেষ পর্যন্ত ২৯০ রান তুলতেই হারিয়ে বসে ৯ উইকেট। শঙ্কা জাগে ৩০০ এর আগেই অলআউট হওয়ার। কিন্তু শরীফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলামের ব্যাটে ভর করে তিনশ পার করে বাংলাদেশ।

নিউ জিল্যান্ডের পক্ষে বল হাতে গ্লেন ফিলিপস ৪টি উইকেট নিয়েছেন। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন কাইল জেমিসন ও এজাজ প্যাটেল।

৩১০ রান তুলে শেষ বাংলাদেশের প্রথম দিন
শুরুটা ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের অযাচিত কয়েকটি আউটে ব্যাকফুটে চলে যায়। শেষ পর্যন্ত ২৯০ রান তুলতেই হারিয়ে বসে ৯ উইকেট। শঙ্কা জাগে ৩০০ এর আগেই অলআউট হওয়ার। কিন্তু শরীফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলামের ব্যাটে ভর করে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩১০ রান তুলে প্রথম দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ। তাইজুল ৮ ও শরীফুল ১৩ রানে অপরাজিত আছেন। তারা দুজন আগামীকাল বুধবার দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে নামবেন।

বল হাতে গ্লেন ফিলিপস ৪টি উইকেট নিয়েছেন। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন কাইল জেমিসন ও এজাজ প্যাটেল।

তাইজুল-শরীফুলে ৩০০ পেরুলো বাংলাদেশ:
২৯০ রানের মাথায় নবম উইকেট হারানোর পর তাইজুল ইসলাম ও শরীফুল ইসলামের ব্যাটে ভর করে ৩০০ পেরিয়েছে বাংলাদেশ। শরীফুল ৮ ও তাইজুল ৭ রানে ব্যাট করছেন।

নবম উইকেট হারালো বাংলাদেশ:
২৯০ রানের মাথায় নবম উইকেট হারালো বাংলাদেশ। ফিরলেন নাঈম হাসান। কাইল জেমিসনের বলে সেকেন্ড স্লিপে টম ল্যাথামের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। ২৭ বল খেলে ৩ চারে ১৬ রান আসে তার ব্যাট থেকে।

সোহানের বিদায়ে অলআউটের শঙ্কা:
২৭৬ রানের মাথায় অষ্টম উইকেট হারালো বাংলাদেশ। আউট হয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। তার বিদায়ে প্রথম দিনেই অলআউট হওয়ার শঙ্কা জেগেছে বাংলাদেশ শিবিরে। সোহান ২৮ বল খেলে ৫ চারে ২৯ রান করে ফিলিপসের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন।

সপ্তম উইকেট হারালো বাংলাদেশ:
২৬১ রানের মাথায় গিয়ে সপ্তম উইকেট হারালো বাংলাদেশ। ফিরলেন অভিষিক্ত শাহাদাত হোসেন দিপু। গ্লেন ফিলিপসের বলে শর্ট মিডউইকেটে হেনরি নিকোলসের হাতে ধরা পড়েন। ৫৪ বলে ৩টি চারে ২৪ রানের ইনিংস খেলে যান তিনি।

জেমিসনের বাউন্সারে পরাস্ত হয়ে মিরাজের বিদায়
কাইল জেমিসনের করা ইনিংসের ৬৮তম ওভার। দ্বিতীয় বলেই মিরাজের চার। তৃতীয় বলে পরাস্ত হয়ে চতুর্থ বলে নিলেন ২ রান। কিন্তু পঞ্চম বলেই ধরা! কিছুটা গতি বাড়িয়ে গুড লেংথে বল ফেলছিলেন জেমিসন। মিরাজ চাইলেন এক সাইডে সরিয়ে দিতে। ক্রস ব্যাটে খেলতে গিয়েই বল তুলে দিলেন আকাশে।সহজ ক্যাচে মিরাজকে বিদায় করেন ড্যারিল মিচেল।

আউট হওয়ার আগে ৩০ বলে ২০ রান করেন মিরাজ। উইকেটে নতুন ব্যাটার নুরুল হাসান সোহান।এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের রান ৭০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৪৩।

উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এলেন মুশফিক
দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটার তিনি। অথচ পরপর দুই বলে দুই উইকেট হারানো দলের হাল ধরতে পারলেন না মুশফিক। কেপ্রকার উইকেট বিলিয়েই দিলেন তিনি।এজাজ প্যাটেলের বল ডাউন দ্য উইকেটে এসে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিড অনে ধরা খেয়ে শেষ হয়েছে তার ২২ বলে ১২ রানের ইনিংস।

মুশফিকের আউটে নতুন ব্যাটার হিসেবে ক্রিজে এসেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের রান ৬৩ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ২২২। শাহাদাত হোসেন দিপু ৬ রানে ও মিরাজ ৯ রানে ব্যাট করছেন।

বাংলাদেশের দুইশ
দ্রুত দুই হারানোর পর বেশ দেখেশুনে খেলেন মুশফিকুর রহিম ও শাহাদাত হোসেন। মুমিনুল ও জয়ের ইনিংসে ভ রকরে এই দুজনের জুটিতে দুইশ পূর্ণ হয়েছে বাংলাদেশের। ৫৮ ওভারে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২০২ রান। মুশফিক ১১, শাহাদাত ৭ রানে অপরাজিত।

মুমিনুলের পর জয়ের বিদায়, ব্যাকফুটে বাংলাদেশ
মুমিনুলের আউটের রেশ কাটতে না কাটতেই বিদায় নিলেন মাহমুদুল হাসান জয়। ইশ সোধি বলটা ঝুলিয়ে দিয়েছিলেন। সেই সঙ্গে টার্ন। সামনে পা বাড়িয়ে ডিফেন্স করার চেষ্টা করেন জয়। ব্যাটের কানা নিয়ে চলে যায় স্লিপে থাকা ড্যারিল মিচেলের হাতে। তাতেই শেষ হয় জয়ের সেঞ্চুরির সম্ভাবনা।

ক্রিজে আছেন অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম। তাকে সঙ্গ দেওয়ার জন্য আছেন আভিষিক্ত শাহাদাত হোসেন দীপু। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৫৫ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৮৫ রান। মুশফিক ১ ও দিপু  রান নিয়ে ব্যাট করছেন।

ফাঁদে পা দিয়ে বিদায় নিলেন মুমিনুল
নাজমুল হোসেন শান্তর বিদায়ের পর ভালোই খেলছিলেন মাহমুদুল হাসান জয় ও মুমিনুল হক। দুজন মিলে পঞ্চাশ রানের জুটিও গড়েন। তাদের ব্যাটে দেড়শ পার করে বাংলাদেশ। কিন্তু গ্লেন ফিলিপসের ফাঁদটা বুঝেও স্বেচ্ছায় ধরা দিলেন মুমিনুল।

আগের বলটাও একইভাবে এসেছিল, অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছিলেন মুমিনুল। পরের বলটাই একইভাবে করলেন গিলিপস।৫৩তম ওভারের পঞ্চম বলটা অফ স্টাম্পের দিকে খানিকটা নিচু হয়ে গিয়েছিল, কাট করতে গিয়েই সর্বনাশ।মুমিনুলের ব্যাটের কানায় লেগে বল আশ্রয় নেয় কিপারের গ্লাভসে।জয়ের সঙ্গে মুমিনুলের জুটি শেষ হলো ৮৮ রানে।

জয়-মুমিনুলের জুটিতে বাংলাদেশের দেড়শ
নাজমুল হোসেন শান্তর বিদায়ের পর রানের গতি কমলেও দেখেশুনে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিচ্ছেন মাহমুদুল হাসান জয়  ও মুমিনুল হক।এই দুজনের জুটি ফিফটি পেরোলেও বাংলাদেশ পেরিয়ে গেছে দেড়শ রানের ঘর। তার আগে তৃতীয় উইকেটে দুই জনে ১০৪ বলে গড়েছেন পঞ্চাশ রানের জুটি।

এই দুজনের জুটিতে ভর করে  শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৫২ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৮০ রান। জয় ৮২ ও মুমিনুল ৩৭ রানে ব্যাট করছেন।

জয়ের দায়িত্বশীল ফিফটিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ
শুরু থেকেই ধরে খেলছিলেন মাহমুদুদল হাসান জয়।যাকে বলে প্রকৃত টেস্ট খেলা। অপরপ্রান্তে দুই উইকেট পড়লেও একপ্রান্ত আগলে ফিফটি তুলে নিয়েছেন এই তরুণ ওপেনার। এজাজ প্যাটেলের বলে দারুণ কাভার ড্রাইভে বাউন্ডারি মেরে ৯৩ বলে পঞ্চাশে পা রাখেন জয়।এটি তার ক্যারিয়ারের দশম টেস্টে চতুর্থ ফিফটি। সেঞ্চুরিও আছে একটি।

সবশেষ টেস্টেও পঞ্চাশের দেখে পেয়েছিলেন জয়। গত জুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে মিরপুরে ৭৬ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। পাঁচ মাস পর খেলতে নেমেও ফর্ম ধরে রেখেছেন ২৩ বছর বয়সী ব্যাটার।

জয়ের ফিফটিতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩৯ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৩৪ রান। জয় ৬২ ও মুমিনুল ১৩ রানে ব্যাট করছেন।

আক্রমণাত্মক হতে গিয়ে উইকেট বিলিয়ে দিলেন শান্ত
একেই বলে ছক্কা মারতে গিয়ে অক্কা পাওয়া।এজাজ প্যাটেলের বলে ছক্কা মেরে রানের খাতা খোলা নাজমুল হোসেন শান্ত বিদায়ও নিলেন ছক্কা মারতে গিয়ে।গ্লেন ফিলিপসের ফুল টস ক্রিজ উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিড-অনে কেন উইলিয়ামসনের তালুবন্দী হয়ে বিদায় নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

আউট হওয়ার আগে ২ চার ও ৩ ছক্কায় ওয়ানডে স্টাইলে ৩৫ বলে ৩৭ রান করেন শান্ত। তার বিদায়ে ভাঙল ৫৩ রানের দ্বিতীয় উইকেট জুটি। মাহমুদুল হাসান জয়ের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন চার নম্বর ব্যাটার মুমিনুল হক।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২৭ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০৪ রান। মাহমুদুল হাসান জয় ৪২ ও মুমিনুল ৩ রানে ব্যাট করছেন।

সাবধানী শুরুর পর বাংলাদেশের ফিফটি
জাকির হাসানের আউটের পর উইকেটে আসেন নাজমুল হোসেন শান্ত। এসেই আক্রমণাত্মক মনোভাবে খেলতে থাকেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।প্রথমেই ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে লং অন দিয়ে উড়িয়ে মারলেন এজাজ প্যাটেলকে। এক বল পর আবার এগিয়ে মারলেন শান্ত। এবার বলে গন্তব্য বাউন্ডারি।আর তাতেই দলীয় পঞ্চাশের ঘর পার হলো বাংলাদেশ।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২০ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৭০ রান। মাহমুদুল হাসান জয় ২৫ ও শান্ত ২৪ রানে ব্যাট করছেন।

জাকিরের বিদায়ে ভাঙল জুটি
ইনিংসের শুরুতেই নিউ জিল্যান্ড বোলারদের বিপক্ষে বেশ অস্বস্তিতে ভুগতে দেখা যায় জাকিরকে।তাও টিকে ছিলেন। এদিকে পেসারদের সঙ্গে স্পিনারদের এনেও একটা জুয়া খেললেন টিম সাউদি। তাতে দেরিতে হলেও বাজিটা জিতে গেলেন কিউই অধিনায়ক।

ম্যাচের ১৩তম ওভারে ওভারে এজাজ প্যাটেলের অস স্টাম্পের বল, ব্যাকফুটে গিয়ে কাট করতে চেয়েছিলেন জাকির। কিন্তু বল ঘুরে ছত্রখান করে দেয় তার অফ স্টাম্প।এর আগে ১ চারে ৪১ বলে ১২ রান করেছেন বাঁহাতি ওপেনার। তার বিদায়ে ভাঙল ৩৯ রানের উদ্বোধনী জুটি। জাকিরের বিদায়ে জয়ের সঙ্গে জুটি বেধেছেন অধিনায়ক শান্ত।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৫ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫০ রান। মাহমুদুল হাসান জয় ১৯ ও শান্ত ১০ রানে ব্যাট করছেন।

জয়-জাকিরের ব্যাটে সাবধানী শুরু
নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সাবধানী শুরু করেছেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় ও জাকির হাসান। দুজন মিলে দেখেশুনে এগিয়ে নিচ্ছেন রানের চাকা। কিউইরা ছয় ওভার পেস আক্রমণ করার পর সপ্তম ওভারে স্পিন এনেও ভাঙতে পারেনি এই জুটি। এক পাশে স্পিন, আরেক পাশে পেস আক্রমণ সামলে এখন পর্যন্ত উইকেট অক্ষত রেখেছেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১২ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩৪ রান। জাকির ১২ ও মাহমুদুল হাসান জয় ১৪ রানে ব্যাট করছেন।

নিউ জিল্যান্ডের ব্যর্থ রিভিউ
দিনের শুরুতেই রিভিউ নিয়ে ব্যর্থ হয়েছে নিউ জিল্যান্ড।দ্বিতীয় ওভারে কাইল জেমিসনের ডেলিভারি খেলতে গিয়ে প্যাডে লাগান জাকির হাসান। জোড়ালো আবেদন করে নিউ জিল্যান্ড। কিন্তু সাড়া দিলেন না আম্পায়ার।বেশ কিছুক্ষণ ভেবে রিভিউ নিলেন নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক টিম সাউদি।টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বল জাকিরের ব্যাটের ভেতরের কানা ছুঁয়ে গেছে।

এখন পর্যন্ত ৩ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ কোনো উইকেট না হারিয়ে ৫ রান। জাকির ১, মাহমুদুল হাসান জয় ৪ রানে খেলছেন।

শাহাদাত হোসেন দিপুর অভিষেক
ঘরের মাঠে বাংলাদেশ শেষ টেস্ট খেলেছে গত জুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। সেই টেস্ট সিরিজের স্কোয়াডে রাখা হয়েছিল শাহাদাত হোসেন দিপুকে। যুব বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটারের মাথায় সেবার টেস্ট ক্যাপ ওঠেনি। সেই অপেক্ষা ফুরাল সিলেটে।

২১ বছর বয়সী শাহাদাতের ২০২১ সালে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক। ২০২০ সালে যুব বিশ্বকাপ জিতেছিলেন মিডল অর্ডার ব‌্যাটসম‌্যান। ঠাণ্ডা মাথায় ব‌্যাটিং করতে পারেন বলে নির্বাচকদের নজর কেড়েছেন। ব‌্যাটিং পরিসংখ‌্যানও প্রশংসনীয়।

২২টি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ম‌্যাচে ১৩৮৩ রান করেছেন ২টি সেঞ্চুরি ও ১১টি হাফ সেঞ্চুরিতে। টেস্ট ম্যাচ খেলতে যে মানসিকতা, যেমন ধৈর্য্য প্রয়োজন তার সবটুকুই রয়েছে শাহাদাতের ঝুলিতে। নিজের শক্তি, সামর্থ্য এবার বড় মঞ্চে দেখানোর পালা তার। 

বাংলাদেশের একাদশ: মাহমুদুল হাসান জয়, জাকির হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), মুমিনুল হক, শাহাদাত হোসেন দীপু, মুশফিকুর রহিম, নুরুল হাসান (উইকেটরক্ষক), মেহেদি হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: টম ল্যাথাম, ডেভন কনওয়ে, কেন উইলিয়ামসন, হেনরি নিকোলস, ড্যারিল মিচেল, টম ব্লান্ডেল (উইকেটরক্ষক), গ্লেন ফিলিপস, কাইল জেমিসন, ইশ সোধি, টিম সাউদি (অধিনায়ক) ও আজাজ প্যাটেল।

টস
দুই ম্যাচের টেস্টের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। বাংলাদেশের আমন্ত্রণে ফিল্ডিং করবে বাংলাদেশ নিউ জিল্যান্ড। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকাল নয়টায় ম্যাচটি শুরু হবে।

পাঁচ মাস পর সাদা পোশাকে মাঠে বাংলাদেশ
দীর্ঘদিন পর সাদা পোশাকে মাঠে নামছে বাংলাদেশ।  টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের এই চক্রে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নিউ জিল্যান্ড। কিউইদের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে পাঁচ মাস পর লাল বলের ক্রিকেটে লড়াইয়ে নামছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। দুই টেস্টের এই সিরিজ দিয়ে আরেকটি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের চক্রে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ২০২৩-২০২৫ চক্রে নিউ জিল্যান্ডেরও এটি প্রথম সিরিজ। 

ঢাকা/বিজয়/আমিনুল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়