Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ০৭ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ২২ ১৪২৭ ||  ২২ রজব ১৪৪২

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলল আড়াই কোটি টাকা

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:১১, ২৩ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২২:১৪, ২৩ জানুয়ারি ২০২১
পাগলা মসজিদের দানবাক্সে মিলল আড়াই কোটি টাকা

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানবাক্স খুলে পাওয়া গেলো প্রায় আড়াই কোটি টাকা। 

করোনা পরিস্থিতিতে পাঁচ মাস চার দিন পর খোলা হয় মসজিদের আটটি দানসিন্দুক। সিন্দুকে সবমিলিয়ে নগদ দুই কোটি ৩৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৫ টাকা পাওয়া গেছে।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) বিকেলে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আব্দুল্লাহ আল মাসউদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে মসজিদের আটটি দানসিন্দুক খোলা হয়। প্রথমে দানসিন্দুক থেকে টাকা বস্তায় ভরা হয়। ১৪ বস্তা টাকা ছিল সিন্দুকে। পরে বস্তা খুলে শুরু হয় টাকা গণনার কাজ। এসময় নগদ টাকা ছাড়াও বিভিন্ন বৈদেশিক মুদ্রা ও বেশ কিছু স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া গেছে। 

টাকা গণনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদ-মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষক ছাড়াও রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তাগণ অংশ নেন।

সাধারণত তিন মাস পর পর পাগলা মসজিদের দান সিন্দুক খোলা হয়। করোনাভাইরাসের কারণে এবার পাঁচ মাস চার দিন পর দান সিন্দুক খোলা হয়েছে। 

এর আগে সর্বশেষ গত ২০২০ সালের ২২ আগস্ট মাসে দান সিন্দুক খোলা হয়েছিল। তখন দানসিন্দুকে এক কোটি ৭৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭১ টাকা পাওয়া গিয়েছিল।

নগদ টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার ছাড়াও প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ মসজিদে গবাদিপশু, হাঁস-মুরগিসহ বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র দান করেন। 

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আব্দুল্লাহ আল মাসউদের তত্ত্বাবধানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শফিকুল ইসলাম, মো. উবায়দুর রহমান সাহেল, জুলহাস হোসেন সৌরভ ও মো. ইব্রাহীম, পাগলা মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি খলিলুর রহমান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শওকত উদ্দীন ভূঞা, রূপালী ব্যংকের এজিএম অনুফ কুমার ভদ্র প্রমুখ টাকা গণনার কাজ তদারকি করেছেন।

রুমন চক্রবর্তী/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়