Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ০৫ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ২০ ১৪২৭ ||  ২০ রজব ১৪৪২

এখন নতুন ক্রাচে হাঁটতে পারবেন টুকু মিয়া 

আনোয়ার শাহীন, মাগুরা  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩২, ২৪ জানুয়ারি ২০২১  
এখন নতুন ক্রাচে হাঁটতে পারবেন টুকু মিয়া 

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার সড়ক দুর্ঘটনায় এক পা হারানো টুকু মিয়া (৪০) এখন নতুন ক্রাচে ভর করে হাঁটতে পারবেন।

জনপ্রিয় নিউজপোর্টাল রাইজিংবিডিতে ‘ক্রাচের অভাবে হাঁটতে পারছেন না টুকু মিয়া’- শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। এই প্রতিবেদন পড়ে একজন পাঠক রোববার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে এক জোড়া নতুন ক্রাচ টুকুর হাতে পৌঁছে দেন।

টুকু মিয়ার বাড়ি মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা রায়পুর গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের লতিফ শেখের ছেলে। সড়ক দুর্ঘটনায় পা হারান টুকু মিয়া। অভাবে পড়ে তিনি এক জোড়া ক্রাচ কেনার জন্য ২ হাজার টাকা যোগাড় করতে পারছিলেন না। এতে তাকে অনেক কষ্টে চলাচল করতে হতো। 

টুকু মিয়া ঢাকায় পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। ২০১৩ সালে ঢাকা থেকে বাড়ি আসার পথে চলন্ত বাস থেকে পড়ে যান। পরে ডান পা উরু থেকে কেটে ফেলতে হয় তার। 

ঢাকার হাসপাতালে চিকিৎসার পর টুকুকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। এক পা হারিয়ে নানা প্রতিকূলতার মধ্যে পড়ে যান তিনি। সেই থেকে ক্রাচই তার সঙ্গী। বগলের নিচে ক্রাচ দিয়ে চলাফেরা করেন। সঙ্গে টুকটাক কাজও করেন। কিন্তু সম্প্রতি পুরনো সেই ক্রাচের একটি ভেঙে যায়। ফলে বন্ধ হয়ে যায় টুকু মিয়ার কাজ; সেই সঙ্গে রোজগারও। কাজ করতে না পারায় পরিবার নিয়ে কষ্টে আছেন তিনি। 

তার বড় ছেলে মনির অষ্টম শ্রেণিতে ও মেয়ে মিম প্রথম শ্রেণিতে পড়ে। স্ত্রী রহিমা বেগম অন্যের বাড়িতে কাজ করেন। সন্তানদের লেখাপড়ার খরচ চালাতে টুকু মিয়া স্থানীয় এনজিও থেকে ২০ হাজার টাকা ঋণ নেন। নিজে ও স্ত্রী যা আয় করেন, তা ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে গিয়ে অর্ধেকের বেশি ফুরিয়ে যায়। বাকি টাকায় সংসার আর ছেলেমেয়ের লেখাপড়া চালাতে হিমশিম খেতে হয় তাকে।

টুকু মিয়া বলেন, পুরনো ক্রাচ ভেঙে যাওয়ায় তিনি খুব সমস্যায় পড়েন। নতুন ক্রাচ পাওয়ায় তার বড্ড উপকার হলো। এখন তিনি চলাফেরা করে টুকটাক কিছু করতে পারবেন। 

ঢাকা/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়