ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৫ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ১০ ১৪৩১

ঘূর্ণিঝড় রেমাল: জোয়ারে নিঝুম দ্বীপ প্লাাবিত

নোয়াখালী প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১৭, ২৬ মে ২০২৪   আপডেট: ২০:১৯, ২৬ মে ২০২৪
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: জোয়ারে নিঝুম দ্বীপ প্লাাবিত

নিঝুম দ্বীপের সব এলাকা জোয়ারে প্লাবিত হয়

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ-উপজেলা হাতিয়ার নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়ন জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে। রোববার (২৬ মে) দুপুর থেকে শুরু হওয়া জোয়োরে নিঝুম দ্বীপের নিচু এলাকা পানিতে তালিয়ে যায়।

নিঝুম দ্বীপের চারপাশে মেঘনা নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৮-১০ ফুট পানি বেড়েছে। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ৯ ওয়ার্ডের ৫০ হাজার মানুষ। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় রেমাল সন্ধ্যায় বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হেনেছে।

স্থানীয়রা জানান, টানা বর্ষণ, অস্বাভাবিক জোয়ারের পানিতে পুরো নিঝুম দ্বীপ প্লাবিত হয়েছে। ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। পানি ঢুকে পড়েছে বাড়িতে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিঝুম দ্বীপের বন্দর কিল্লা, নামার বাজার, ইসলামপুর ও মোল্লা গ্রামের মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারছে না। পানিতে ভেসে গেছে গবাদিপশুর খাদ্য ও মাছের ঘের। তলিয়ে গেছে শাকসবজিসহ নানা ফসলের ক্ষেত। 

নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য কেফায়েত হোসেন বলেন, অস্বাভাবিক জোয়ারের ফলে মেঘনা নদীর পানি দ্রুত বাড়ছে। বেড়িবাঁধ না থাকায় নিঝুম দ্বীপের সব এলাকা তলিয়ে গেছে। বিভিন্ন কৃষি জমিসহ লাখ লাখ টাকার ফসল তলিয়ে গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ইউনিয়নের ৫০ হাজার বাসিন্দা।

নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. দিনাজ উদ্দিন বলেন, পুরো নিঝুম দ্বীপ মেঘনা নদী ও বঙ্গোপসাগর দিয়ে বেষ্টিত। প্রাকৃতিক দূর্যোগে এই দ্বীপ সহজে প্লাবিত হয়। মানুষ পানিবন্দির পাশাপাশি সুপেয় পানির সংকটে পড়ে। এবারও রাস্তাঘাট সব তলিয়ে গেছে। দ্বীপের সকল ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শুভাশীষ চাকমা বলেন, ‘এখনও ক্ষতির পরিমাণ বলতে পারছি না। আমরা খোঁজ রাখছি। কোথাও কোনো ক্ষতি হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 

নোয়াখালী জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান বলেন, নিঝুম দ্বীপে বেড়িবাঁধ নেই। জোয়ারে সহজে প্লাবিত হয়। পানিবন্দি মানুষকে সাইক্লোন সেল্টারে নিয়ে আসা হচ্ছে। 
 

সুজন/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়