ঢাকা     শুক্রবার   ১২ এপ্রিল ২০২৪ ||  চৈত্র ৩০ ১৪৩০

বুয়েটে রাজনীতি শুরুর দাবিতে ছাত্রলীগের মানববন্ধন

ক্যাম্পাস ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৩৫, ২ এপ্রিল ২০২৪  
বুয়েটে রাজনীতি শুরুর দাবিতে ছাত্রলীগের মানববন্ধন

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) নিয়মতান্ত্রিক ছাত্ররাজনীতি চালু ও বুয়েট শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ হোসেন রাহিম রাব্বির আবাসিকতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এ কর্মসূচি পালন করে। রাইজিংবিডির বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতাদের পাঠানো খবরে থাকছে বিস্তারিত-

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)

দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার সংলগ্ন সড়কে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে জাবি শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

জাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান লিটন বলেন, গত পাঁচ বছর আগে বুয়েটে একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে গেছে। সেখানে আবরার ফাহাদের লাশের উপর একটি মৌলবাদী গোষ্ঠী রাজনীতি শুরু করেছে। সেদিন বুয়েটের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন করলেও তাদের পিছনে একটি চক্র কাজ করেছে। বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক দেশ। এখানে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গণতান্ত্রিক চর্চা অব্যাহত থাকবে। প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে রাজনীতির মাধ্যমেই নিজেদের মতামত প্রকাশ করে। বুয়েট তো বাংলাদেশের বাইরে নয়। আমাদের দাবি বুয়েটের ছাত্র রাজনীতি সঠিক প্রক্রিয়ায় চলবে। হাইকোর্ট ইতোমধ্যে বলেছে এখানে ছাত্র রাজনীতিতে বাধা নেই। আমরা এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই।

শাখা সভাপতি আকতারুজ্জামান সোহেল বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতায় ৩০ লাখ মানুষ আত্মত্যাগ করেছে। সেখানে বুয়েটের অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীও ছিল। বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করে দেওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের সবচেয়ে মেধাবীদের কণ্ঠ স্তব্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এটা কোনোভাবেই কাম্য নয়। সেখানে আবরার হত্যায় জড়িত প্রত্যেককে শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে। সুনামগঞ্জের হাওরে যারা ধরা পড়েছে তাদের নিয়ে তো কোনো কথা নেই। বুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীরাও চায় ছাত্র রাজনীতি চালু থাকুক। বাংলাদেশের প্রত্যেকটি কোনায় ছাত্র রাজনীতির চর্চা থাকতে হবে।

এসময় শাখা ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি)

কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ি বেলা ১১টায় ইবির মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ম্যূরালের পাদদেশে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় শাখা সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত এবং সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয়ের নেতৃত্বে সহ-সভাপতি তন্ময় সাহা টনি এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলামসহ প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয় বলেন, বুয়েট শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ হোসেন রাহিম রাব্বির আবাসিক হলের যে সিট বাতিল করে, বুয়েট প্রশাসন কর্তৃক স্বাধীনতা দিবসে ফুল দেওয়ায় বাধা প্রদান করে তার প্রতিবাদ এবং নিন্দা জানিয়ে সারা বাংলাদেশের ছাত্রসমাজ আজ জেগে উঠেছে। তারই প্রতিবাদে আজকে আমরা এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছি। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ১৭ হাজার নেতাকর্মী শহীদ হয়েছিল। সেই ছাত্র রাজনীতিকে গলাচিপে হত্যা করার জন্য বুয়েট প্রশাসন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। আপনারা জানেন মহামান্য হাইকোর্ট বুয়েট প্রশাসনের এ নোংরা সিদ্ধান্ত বাতিল করে ছাত্র রাজনীতির নতুন দিক উন্মোচন করেছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা চাই একটি প্রতিষ্ঠানে নিয়মতান্ত্রিকভাবে ছাত্ররাজনীতি চালু থাকবে। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলন করবে এবং ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবি আদায়ে পাশে থাকবে। দেশসেরা প্রতিষ্ঠান বুয়েটে যদি এই ছাত্র রাজনীতি তথা যারা মুক্তিযুদ্ধের ধারক এবং বাহক, তাদের চর্চা না থাকে, তবে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠবে।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি)

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) নিয়মতান্ত্রিক ছাত্ররাজনীতি চালু, বুয়েট শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ রাহিম রাব্বির আবাসিক হলে সিট ফিরিয়ে দেওয়া এবং স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে বাধাদানকারী বুয়েট শিক্ষার্থীদের বিচারের আওতায় আনার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) শাখা ছাত্রলীগ।

বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বেরোবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়া ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান শামীমের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল মিডিয়া চত্বরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান শামীম বলেন, বুয়েটের মতো প্রতিষ্ঠানে সংবিধান পরিপন্থী কাজ করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। যেকোনো মূল্যে এ দেশের ছাত্র সমাজ বুয়েটকে হিজবুত তাহরীর মতো নিষিদ্ধ সংগঠন ও শিবিরের মতো স্বাধীনতাবিরোধী সংগঠনের হাত থেকে রক্ষা করবে। যেসব শিক্ষার্থী রাজনীতি নিষিদ্ধের আড়ালে অন্ধকারের রাজনীতি প্রতিষ্ঠিত করতে চায়, তাদের প্রতিহত করতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা মোতাবেক বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সর্বাদা মাঠে থাকতে প্রস্তুত রয়েছে।

সভাপতি পোমেল বড়ুয়া বলেন বলেন, বুয়েটে রাজনৈতিক ও সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত এবং মেধাবী শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ রাব্বীর ব্যাপারে বুয়েট প্রশাসনের হঠকারী সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। এ দেশের ছাত্রসমাজ কোনোভাবেই মেধাবীদের শিক্ষাঙ্গন বুয়েটে স্বাধীনতা বিপক্ষের শক্তিকে মাথাচাড়া দিতে দিবে না। যারা ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়, তাদের বিষদাঁত ভেঙ্গে না ফেলা পর্যন্ত ছাত্রসমাজ মাঠে থাকবে।

মানবন্ধনটি সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ নেতা বাবুল হোসেন। এ সময় ছাত্রলীগের প্রায় ২০০ নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

/মেহেদী/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়