ঢাকা     সোমবার   ২৩ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯ ||  ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

শূন্য থেকে শুরু, বছরে আয় প্রায় ৫ লাখ টাকা

উদ্যোক্তা/ই-কমার্স ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫১, ১৬ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ২০:৫১, ১৬ জানুয়ারি ২০২২
শূন্য থেকে শুরু, বছরে আয় প্রায় ৫ লাখ টাকা

মৌমিতা সুলতানা, পরিবারের ছোট সন্তান। জন্ম-বেড়ে উঠা দিনাজপুর জেলাতে। ২০১১ সালে দিনাজপুর ডিগ্রি কলেজ থেকে পলিটিকাল সাইন্সে মাস্টার্স শেষ করেছেন তিনি। শৈশব ও পড়াশোনা দিনাজপুরে হলেও স্বামীর চাকরিসূত্রে চট্টগ্রামেই তার বসবাস। বর্তমানে স্বামী-সংসার সামলে দেশীয় পণ্যের একজন ই-কমার্স উদ্যোক্তা মৌমিতা। ফেসবুক পেজ ‘মৌমিতাস বুটিক’ ঘিরেই এখন তার স্বপ্ন। সম্প্রতি মৌমিতা তার উদ্যোগের গল্প বলেছেন রাইজিংবিডিকে। শুনেছেন এসএস এগ্রো প্রোডাক্টের স্বত্বাধিকারী ও রাইজিংবিডির উদ্যোক্তা/ই-কমার্স পাতার চট্টগ্রাম বিভাগীয় কন্ট্রিবিউটর লেখক শিরীন সুলতানা।

ব্যবসার শুরুর গল্পটা যদি বলতেন...   

মৌমিতা সুলতানা: আমার উদ্যোক্তা জীবন শুরু হয় ২০০৭ সালে দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ থানায় ছোট্ট একটি বিউটি পার্লারের মাধ্যমে। তখন আমাদের অবস্থা তেমন ভালো ছিলো না। ছেলেকে মানুষ করার জন্য আমাকে কিছু না কিছু করতে হতো। তাই উদ্যোক্তা জীবনটাই বেছে নিয়েছিলাম। তখন আমার ছেলের বয়স ছিলো ৭ মাস। সেই ছোট বাচ্চাকে নিয়ে অনেক কষ্ট করে পার্লারে কাজ করেছি। সারে ৩ বছর সফলভাবে পার্লারের ব্যবসার পর ২০১১ সালে ঢাকায় আল হুমায়রা হেলথ সেন্টারে আমার চাকরি হয়, তারপর সেখানে চলে যাই। এরপর নানান সমস্যার কারণে পার্লার বন্ধ করে দিতে হয়।

যখন পার্লার চালাতাম তখনও শুরুটা সহজ ছিলো না। এরপর চাকরির পাশাপাশি ২০১৮ সাল থেকে পুনরায় পোশাক ও আমার নিজ হাতে তৈরি অর্গানিক পণ্য নিয়ে ব্যবসা শুরু করি। সেটাও শুরুতে সহজ ছিলো না।

কী কী পণ্য নিয়ে ব্যবসা করছেন?  

মৌমিতা সুলতানা: আমার পেজের সিগনেচার পণ্য নিজস্ব রেসিপিতে তৈরি অর্গানিক হেয়ার অয়েল। এছাড়াও রয়েছে  চুলের যত্নে প্রোটিন প্যাক, ফেসিয়াল ফেসপ্যাক, ময়েশ্চারাইজার, সিরাম, ব্রাইটিনিং ক্রিম ইত্যাদি। পোশাক আইটেমের মধ্যে রয়েছে দেশীয় থ্রি-পিস, বেডশিট এবং খাবারের মধ্যে পেজে যুক্ত করেছি দিনাজপুরের বিখ্যাত মুগ ডালের পাঁপড় ও  কাটারীভোগ চিড়ার মতো পণ্য।  

ঠিক কোন ধরনের চিন্তা থেকে এমন পণ্য নিয়ে কাজ করার পরিকল্পনা ছিল?   

মৌমিতা সুলতানা: আমি যেহেতু একজন মেয়ে আর মেয়েদের স্কিন ও চুল নিয়ে বিভিন্ন রকমের সমস্যা হয়। তাই হেয়ার এবং স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করার কথা চিন্তা করি। যেহেতু আমার পার্লারের ট্রেনিং আছে তাই ঘরোয়া পদ্ধতিতে স্কিন এবং হেয়ার কেয়ারের কিছু টেকনিক আমার জানা ছিলো। তাই সেই জানা এবং নিজের কিছু অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আমি স্কিন ও হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট নিয়ে ব্যবসা করার সিদ্ধান্ত নিই। বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যালযুক্ত পণ্য স্কিন এবং চুলের জন্য নানান রকমের সমস্যা দেখা দেয়। আর যাদের এলার্জির সমস্যা আছে তাদের তো আরও বেশি সমস্যা দেখা দেয় স্কিনে। তাই সবার হাতে ভালো কিছু পণ্য তুলে দেওয়ার জন্য আমি এসব প্রোডাক্ট নিয়ে ব্যবসা করছি। আর তার সাথে সামঞ্জস্য রেখেই মেয়েদের জন্য থ্রি-পিস ও বেডশিট নিয়ে কাজ করছি। এছাড়াও যেহেতু আমি দিনাজপুর জেলার মেয়ে তাই ভাবলাম আমার এলাকার বিখ্যাত কিছু পণ্য নিয়ে কাজ করি। সেই চিন্তা থেকেই মুগ ডালের পাঁপড় আর কাটারীভোগ চিড়া।
 
ব্যবসার শুরুটা কি অনলাইন নাকি অন্য কোন উপায়ে ছিল?

মৌমিতা সুলতানা: ব্যবসার শুরুটা অনলাইনেই ছিলো প্রথম থেকেই।

ব্যবসা করতে গিয়ে কখনো সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন?  

মৌমিতা সুলতানা: কখনো তেমন বিব্রতকর পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়নি। তবে যখন পার্লারের কাজ করতাম তখন অনেকে আমাকে মহিলা নাপিত বলে ডাকতো। আর এখন যখন কাপড়, অর্গানিক হেয়ার অয়েল আরও বিভিন্ন অর্গানিক পণ্য নিয়ে ব্যবসা শুরু করেছি তখন অনেকে বলে কাপড় ব্যবসায়ী, তেলওয়ালী ইত্যাদি। সবকিছু উপেক্ষা করেই সামনে এগিয়ে যাচ্ছি। ইনশা আল্লাহ লম্বা পথ পাড়ি দেবো।

নতুন উদ্যোক্তারা এই পেশায় আসতে চাইলে, তাদের জন্য পরামর্শ কী?

মৌমিতা সুলতানা: নতুন যারা উদ্যোক্তা হতে চান তাদের জন্য আমার পরামর্শ হল, যে পণ্য নিয়ে আপনি কাজ করতে চান আগে নিজে সেই পণ্য সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন। আগে আপনি নিজে বুঝুন আপনি কোন কাজটা ভালো করতে পারবেন। কোন বিষয়টা সম্পর্কে ভালো জানেন আপনি। যা আপনি খুব ভালোভাবে জানেন সেটা নিয়েই উদ্যোগ শুরু করুন। শুরু করার আগে ব্যবসা কী, কীভাবে করতে হয়, মূলধন কী, লাভ-লস কী?- এসব বিষয়ে ভালোভাবে ধারণা নিতে হবে। 

উদ্যোক্তা জীবনে সফল হতে কাদের ভূমিকা বেশি ছিল?

মৌমিতা সুলতানা: উদ্যোক্তা জীবন সফল করতে প্রথম ভূমিকাটা ছিলো আমার মায়ের। আমি যখন পার্লার দিই তখন আমার সেই ৭ মাসের বাচ্চাকে সামলেছেন আমার মা। তারপরের ভূমিকা আমার স্বামীর। জীবনের প্রতিটা ক্ষেত্রে তারা প্রতিনিয়ত আমার পাশে থেকে সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছেন।

ব্যবসা নিয়ে পরিকল্পনা কী?

মৌমিতা সুলতানা: বর্তমান প্রেক্ষাপটে ব্যবসা নিয়ে পরিকল্পনা হলো, আমার সেই শুরুর পার্লারটা আবারও দিতে চাই একটু বড় পরিসরে। যেখানে কিছু মেয়ে কাজ করবে। আর একটা কর্নার থাকবে অর্গানিক পণ্যের। পার্লারে ফেসিয়ালে, হেয়ার ট্রিটমেন্টে কোন রকম কেমিক্যাল ব্যবহার করা হবে না। সব থাকবে আমার নিজ হাতে তৈরি অর্গানিক পণ্য। আর একটা কর্নারে থাকবে দেশীয় থ্রি-পিস ব্লক, বাটিক।

আপনার উদ্যোগের সফলতার কথা জানতে চাই...  

মৌমিতা সুলতানা: আমার উদ্যোগের সফলতা বলতে ব্যবসা নির্ভর ফেসবুক গ্রুপ উই (উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরাম)। যেখান থেকে আমি দুই মাসে অনলাইনেই লাখ টাকার পণ্য বিক্রি করেছি। এবছর উই থেকে আমি ‘বিজনেস অফ দ্য ইয়ার ২০২১’ পেয়েছি।

উদ্যোক্তা জীবনের শুরু কতদিন ধরে এবং আয় কেমন?

মৌমিতা সুলতানা: ২০০৭ সাল থেকে শূন্য থেকে উদ্যোক্তা জীবন শুরু হয়। মাঝে কয়েক বছর বন্ধ থাকার পর আবারও কাজ শুরু করি। সেই হিসেবে আমার মাসিক আয় ৩৫/৪০ হাজার আর বছরে প্রায় ৫ লাখের মতো।

চট্টগ্রাম/সিনথিয়া/এনএইচ   

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়