RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১০ ১৪২৭ ||  ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রোনালদোকে চুক্তির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিল বার্সা!

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০৮, ১৩ জানুয়ারি ২০২১  
রোনালদোকে চুক্তির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিল বার্সা!

লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো একই ক্লাবে খেলছেন, এটা এখন কল্পনাতীত ব্যাপার। তবে বাস্তব হতে পারতো। ২০০৩ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে তিনি পা রাখার তার সঙ্গে চুক্তির প্রস্তাব পেয়েছিল বার্সেলোনা। সাবেক প্রেসিডেন্ট হোয়ান লাপোর্তা করেছেন এমন দাবি। ভাগ্যিস, প্রস্তাবটা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন! নয়তো এই সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলারের দ্বৈরথ কি এত জমতো?

অবশ্য পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডকে হাতছাড়া করায় একদম অনুতপ্ত নন লাপোর্তা। ফের কাতালান জায়ান্টদের প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকা এই প্রার্থী জানান, ওই সময়ের ১৮ বছর বয়সী রোনালদো তাদের টানেনি। বরং টগবগে তরুণ রোনালদিনহোর প্রতি তাদের ছিল বেশি আগ্রহ। মূলত ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গারের কারণে পর্তুগিজকে চুক্তির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিল বার্সা।

স্পোর্তিং থেকে বার্সায় যেতে না পারলেও ম্যানইউয়ে যোগ দেন রোনালদো এবং গ্রেটদের পাশে থাকার পথ তৈরি করে নেন। ম্যানইউ ও রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে পাঁচটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন। ৩৫ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড এখন ইতালিতেও দ্যুতি ছড়াচ্ছেন। তারপরও পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে পাওয়ার সুযোগ হারানোয় কষ্ট নেই লাপোর্তার।

রোনালদোকে চুক্তির প্রস্তাব পাওয়ার ব্যাপারটি লাপোর্তা জানিয়েছেন ইনিয়েস্তাজোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে, ‘আমরা রোনালদিনহো ও রাফা মার্কেজের সঙ্গে চুক্তি করতে যাচ্ছিলাম। মার্কেজের লোকজন আমাদের কাছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে প্রস্তাব করেছিল। ওই সময় সে ছিল স্পোর্তিংয়ে।’

এক কোটি ৯০ লাখ ইউরোতে ম্যানইউ কিনে নেয় রোনালদোকে। আরও কম দামে তাকে বার্সার কাছে বিক্রি করতে চেয়েছিল তার এক এজেন্ট। লাপোর্তা বলেছেন, ‘তার এজেন্টদের একজন বলেছিল, তাদের কাছে একজন খেলোয়াড় আছে যাকে তারা ১ কোটি ৯০ লাখ ইউরোতে (ম্যানচেস্টার) ইউনাইটেডের কাছে বিক্রি করেছে। কিন্তু আমাদের কাছে তাকে ১ কোটি ৭০ লাখ ইউরোতে বিক্রি করবে।’

কিন্তু কেন হয়নি, সাবেক প্রেসিডেন্টের উত্তর, ‘কিন্তু আমরা ওই সময় রোনালদিনহোর পেছনে বিনিয়োগ সেরে ফেলেছিলাম। সেন্টার থেকে বেশ বাইরে ক্রিস্টিয়ানো খেলতো। আমরা মনে করেছিলাম আমাদের চাহিদা পূরণ হয়েছে, তাই তাকে ফিরিয়ে দিয়েছিলাম। কিন্তু আমি এ নিয়ে অনুতপ্ত নই।’

বার্সার এই সিদ্ধান্তে রোনালদিনহো, রোনালদো উভয়েরই লাভ হয়েছে। ব্রাজিলিয়ান গ্রেটের সংস্পর্শে মেসি যেমন উদ্ভাসিত হয়েছেন, তেমনই স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের অধীনে রোনালদো ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে হয়েছেন বিকশিত। যেখানে তিনি জেতেন তিনটি প্রিমিয়ার লিগ ও একটি চ্যাম্পিয়নস লিগ। পরে রিয়ালে যোগ দিয়ে তো সময়ের অন্যতম সেরার খেতাব জুটিয়েছেন, আর তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মেসিও।

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়