ঢাকা     শুক্রবার   ০১ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

শান্তর সব ভাবনা এখন বিশ্বকাপকে ঘিরে

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৩৮, ১৭ মে ২০২৩   আপডেট: ১২:৩৯, ১৭ মে ২০২৩
শান্তর সব ভাবনা এখন বিশ্বকাপকে ঘিরে

নাজমুল হোসেন শান্ত

নাজমুল হোসেন শান্ত তার দুর্দান্ত ফর্ম ধরে রাখেন আয়ারল‌্যান্ড সিরিজে। পেয়েছেন সেঞ্চুরি, ম‌্যাচ সেরার পুরস্কার, সিরিজ সেরার খেতাব। ব‌্যাটিংয়ে রান পাওয়ার পাশাপাশি বোলিংয়েও দ্যুতি ছড়িয়েছেন।

সবচেয়ে চোখে পড়ার বিষয়, ফিল্ডিং ছিল তুখোড়। গ্রাউন্ড ফিল্ডিংয়ে গোটা দলের সঙ্গে শান্তও ছিলেন এক’শতে এক’শ। সব মিলিয়ে ছোট্ট সিরিজে বড় প্রাপ্তি তার। দেশে ফেরার পর সিরিজ নিয়ে কথা বলেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার। তার কথা শুনেছেন এই প্রতিবেদকও।

আয়ারল‌্যান্ড সফর তো দুর্দান্ত কাটল?
নাজমুল হোসেন শান্ত:
আলহামদুলিল্লাহ। আমরা দল হিসেবে ভালো ক্রিকেট খেলেছি আমার মনে হয়। পুরো সময়টা সবাই দলের জন্য অবদান রাখার চেষ্টা করেছে। খুব ভালো একটা অভিজ্ঞতা ছিল। এটা যদি কন্টিনিউ করতে পারি তাহলে সামনের দিকে আরও ভালো কিছু করতে পারবো।

ব‌্যাটিং তো ভালো করেছেন। সেঞ্চুরি পেয়েছেন। এবার বোলিং করেও পেয়েছেন উইকেট…
নাজমুল হোসেন শান্ত:
আমাকে জাস্ট বোলিং করার আগের ওভারে বলেছিল বোলিং করা লাগবে। ওভাবেই কথা হয়েছে। বেশির ভাগ কথা হয়েছে মিরাজের সঙ্গে, ও কীভাবে দশ ওভারের স্পেল শেষ করেছে। ওই পরিকল্পনায় বল করার চেষ্টা করেছি।

আপনি কঠিন সময় পেরিয়ে এখন সুসময় কাটাচ্ছেন…
নাজমুল হোসেন শান্ত:
আলহামদুলিল্লাহ। ভালো হচ্ছে, ভালো যাচ্ছে। কিন্তু আমার মনে হয় উন্নতির আরও জায়গা আছে। আরও ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে। এই ফর্ম কন্টিনিউ করতে পারলে আমার ও দলের জন্য ভালো। 

মাঠে আপনাকে এবার খুব ভোকাল লেগেছে। অধিনায়কের সঙ্গে মাঠ সাজানো নিয়ে বেশ কথাও বলেছেন…
নাজমুল হোসেন শান্ত:
আমার মনে হয় দলে যখনই ফিল্ডিং করি, আমরা সবাই চেষ্টা করি সাহায‌্য করার। যদি কোনো আইডিয়া থাকে ওটা বোলার বা অধিনায়ককে দেওয়া। ওটা সবসময়ই চেষ্টা করি। আলহামদুলিল্লাহ করতে পেরেছি। এতে যদি দলের উপকার হয়ে থাকে তাহলে ভালো লাগে অবশ্যই। সবসময় চিন্তা থাকে ওটা কীভাবে দলের হয়ে অবদান রাখতে পারি অথবা ভালো ফিডব্যাক দিতে পারি। 

বোলিং নিয়ে এখন থেকে ভাববেন?
নাজমুল হোসেন শান্ত:
বোলিংটা খুব ভালো হয়েছে বলবো না। তিন ওভার বল করেছি। অধিনায়ক বল দিলে চেষ্টা করবো আবারও ভালো বল করার। এটা নিয়ে খুব মাতামাতি করার কিছু নেই যে আমি একদিন তিন ওভার বল করে অনেক কিছু করে ফেলেছি।

সামনে বিশ্বকাপ। নিশ্চয়ই এখন থেকে মাথায় ভাবনা শুরু হয়ে গেছে?
নাজমুল হোসেন শান্ত:
আমরা যেটা ৩২০ চেজ করলাম, আমার মনে হয় এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। যে ম্যাচটা আমরা ডিফেন্ড করলাম। দুটা ম্যাচই বিশ্বকাপের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এ ধরনের পরিস্থিতি বিশ্বকাপে আসতেই পারে। বড় দলের বিপক্ষে। দুই ধরনের অনুভূতিই পেলাম কীভাবে চেজ করতে হয় বা ডিফেন্ড করতে হয়। এই জিনিস মনে রেখে সামনে ম্যাচ খেলতে পারলে দলের জন্য ভালো হবে।

ইয়াসিন/আমিনুল

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়