ঢাকা, শনিবার, ২ পৌষ ১৪২৪, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘অপ্রাপ্তবয়স্ক স্ত্রীর সঙ্গে মিলন ধর্ষণ’

শাহেদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১০-১১ ৪:২৪:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১০-১৩ ৬:৩০:৪১ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, ১৫ নয়, স্ত্রীর বয়স ১৮ এর নীচে হলেই যৌনমিলন ধর্ষণ বলে গণ্য হবে । ধর্ষণের সাজার ক্ষেত্রে ফৌজদারি দণ্ডবিধিতে একটি ধারার বৈধতা নিয়ে দায়ের করা এক মামলায় বুধবার  সুপ্রিম কোর্ট এই রায় দেয়।

রায়ে আদালত জানায়, যদি কোনও পুরুষ তার ১৮ বছরের কম বয়সী স্ত্রীর সঙ্গে যৌনসম্পর্কে লিপ্ত হন, তাহলে আইনের চোখে তিনি অপরাধী। এমন ঘটনা ঘটার এক বছরের মধ্যে অপ্রাপ্তবয়স্ক স্ত্রী স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে পারেন।

ভারতীয় দণ্ডবিধি অনুযায়ী কোনও পুরুষ ১৮ বছরের কম বয়সের কোনও মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হলে তা অপরাধের আওতায় পড়ে। কিন্তু যদি সেই মেয়ে তার বিবাহিতা স্ত্রী হয় তা হলে মেয়েটির ইচ্ছা না থাকলেও তা ধর্ষণ হিসেবে গ্রাহ্য হত না।

ভারতের আইনে বাল্যবিয়ে নিষিদ্ধ। মেয়েদের ১৮ এবং ছেলেদের ২১ না হলে ভারতীয় আইনে বিয়ে বৈধতা পায় না।

দ্য প্রোটেকশন ফ্রম সেক্সুয়াল অ্যাক্ট (পস্কো)অনুযায়ী ১৮ বছরের নীচের মেয়েদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক ধর্ষণ। তাই বাল্যবিয়ের ক্ষেত্রে আইনে এই ছাড় দেওয়ার বিষয়টি চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল ভারতের মানবাধিকার সংগঠন ইনডিপেনডেন্ট থট।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ অক্টোবর ২০১৭/শাহেদ

Walton
 
   
Marcel