ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘আমি কখনো নীরব হব না’

শাহেদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-১৪ ১১:৩১:৩২ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-১৪ ১:৫৮:১৪ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : টুইন টাওয়ারে হামলা নিয়ে একটি মন্তব্যের জের ধরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, রিপাবলিকান পার্টি ও ডানপন্থি গণমাধ্যমগুলোর কড়া সমালোচনার মুখে পড়েছেন মিনেসোটা অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত কংগ্রেস সদস্য ইলহান ওমর। মার্কিন কংগ্রেসে প্রথম হিজাব পরিহিত এই নারী সাফ জানিয়েছেন, তিনি চুপ থাকবেন না এবং ‘আমেরিকার প্রতি তার অবিচল ভালোবাসাকে’ কেউ হুমকি দিতে পারবে না।

২৩ মার্চ কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্স (কাইর) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ইলহান ওমর যুক্তরাষ্ট্রের ইসলাম ভীতি ও নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার নিন্দা জানিয়েছিলেন।

তিনি বলেছিলেন, দীর্ঘদিন ধরে দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক হিসেবে আমরা অস্বস্তির সঙ্গে বসবাস করছি এবং খোলাখুলিভাবে বলছি, আমি এতে ক্লান্ত। এ দেশের প্রত্যেকটি মুসলমানেরই এতে বিরক্ত হওয়া উচিৎ। ৯/১১ এর পর কাইর প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। কারণ তারা বুঝতে পেরেছিল কিছু লোক কিছু একটা করেছে এবং আমরা প্রত্যেকে আমাদের নাগরিক স্বাধীনতা হারাতে শুরু করেছি।’

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, রিপাবলিকান পার্টি ও ডানপন্থি গণমাধ্যমগুলোর আপত্তি ইলহান ওমরের এই ‘কিছু লোক কিছু একটা করেছে’-মন্তব্যে। তাদের দাবি এতে ৯/১১ এর পরিস্থিতিকে খাটো করা হয়েছে। শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। এতে টুইন টাওয়ার বিধ্বস্তের চিত্র রয়েছে। এর নিজে সম্পাদনা করে হিজাব পরিহিত ইলহান ওমরের ছবি যুক্ত করে ট্রাম্প লিখেছেন, ‘আমরা কখনো ভুলব না।’ এই মন্তব্যের মাধ্যমে পরোক্ষভাবে ইলহান ওমর তথা মুসলিমদের প্রতি সমালোচনার বাণ হেনেছেন ট্রাম্প।

শনিবার টুইটারে ওরহান লিখেছেন, ‘আমি নীরব থাকার জন্য কংগ্রেসে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করিনি। কোনো ব্যক্তি যে যতোটা দুর্নীতিগ্রস্থ, নির্বোধ কিংবা দুশ্চরিত্রের হোক না কেন আমেরিকার প্রতি তার অবিচল ভালোবাসার প্রতি হুমকি দিতে পারবে না।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ এপ্রিল ২০১৯/শাহেদ

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge