ঢাকা     বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ২ ১৪২৯ ||  ১৮ মহরম ১৪৪৪

প্রথম দিনেই পদ্মা সেতুতে গাড়ির চাপ

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:০৭, ২৬ জুন ২০২২   আপডেট: ১৬:১৫, ২৬ জুন ২০২২
প্রথম দিনেই পদ্মা সেতুতে গাড়ির চাপ

পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে টোল আদায়ে ধীরগতির কারণে যানবাহনের দীর্ঘ সারি তৈরি হয়

যান চলাচলের জন্য রোববার (২৬ জুন) ভোরে খুলে দেওয়া হয়েছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু। এতে সেতুর মাওয়া প্রান্তের টোল প্লাজার কাছে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। 

শনিবার উদ্বোধনের পর আজ (রোববার) সকাল থেকে পদ্মা সেতুতে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। ভোর থেকে মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্ত হয়ে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উদ্দেশে যানবাহন ছেড়ে যেতে শুরু করে।  তবে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে সেতু এলাকায় টোল পরিশোধে সময় লাগছে পরিবহনগুলোর। ফলে সেতু পারাপার অপেক্ষাকৃত গাড়ির সংখ্যা বাড়তে শুরু করে। রোববার দুপুর পর্যন্ত সেতুর টোল প্লাজায় যানজট অব্যাহত ছিল।

রোববার ভোর ৬টা থেকে থ্রি হুইলার ছাড়া সব ধরনের যান চলাচল শুরু হয়েছে পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে। ভোর থেকেই সেতুর দুই প্রান্তে ব্যক্তিগত গাড়ি, বাইক, ভাড়া করা গাড়ি, পণ্যবাহী ট্রাক ও যাত্রীবাহী বাসের দীর্ঘ সারি সৃষ্টি হয়। এতে সেখানে ৮ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। 

প্রথমদিন স্বপ্নের এই সেতু পার হতে রাত থেকেই ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে সেতুর কাছাকাছি অপেক্ষা করছিলেন কেউ কেউ। অনেকেই মাওয়া ঘাটে রাতে এসে আড্ডাও দিয়েছেন। ভোরে সূর্যের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই টোল দিয়ে পাড়ি দিয়েছেন ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটারে দ্বিতল এই সেতু।

ঢাকা থেকে আসা মোটরসাইকেল আরোহী রাফি রোববার সকালে বলেন, ‘মূলত সেতু দেখার জন্যই এসেছি। ওপারে যাবো, কিছুক্ষণ ঘোরাঘুরি করে আবার ফিরে আসবো। আসলে পদ্মা সেতু তো আমাদের আবেগের স্থাপনা। স্বাধীনতার পরে সবচেয়ে বড় এই অর্জন নিজের চোখে উপভোগ করার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করা কঠিন।’

দীর্ঘ যানজটের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘যানজটে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। তবে এটাও উপভোগ করছেন সবাই। ভিড় হচ্ছে জেনেও সবাই আসছেন, ইতিহাসের সাক্ষী হতেই কিছুটা বিড়ম্বনা হলেও তা মেনেই আসছেন অনেকে।’

প্রথম দিনে পদ্মা সেতু দিয়ে পার হচ্ছে বেশ কিছু পণ্যবাহী ট্রাকও। জাজিরা প্রান্ত থেকে আসা কাঁচামালবাহী ট্রাকের চালক মল্লিক মিয়া বলেন, ‘আগে দুই-তিন ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হতো ফেরিতে। আবার কোনো কোনো দিন আরো বেশি সময় ফেরি ঘাটে লাগতো। সেই তুলনায় আজকের জ্যাম কিছুই না। ভালো লাগছে, এখন থেকে ঢাকায় দিনে দিনে মালামাল বহন করা যাবে। এখন সবজি নিয়ে যাচ্ছি, বিকেলে ঢাকা থেকে আবার মালামাল নিয়ে ফিরে আসবো।’

এদিকে দুই প্রান্তের ১৪টি টোল গেট চালু করেছে সেতু কর্তৃপক্ষ। সবকয়টিতে ম্যানুয়ালি টোল আদায় করা হচ্ছে। তবে প্রথম দিনে অনেকেই টোলের পরিমাণ না জানায় কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে বলে জানান টোল প্লাজার কর্মীরা।

জাজিরা প্রান্তের টোল ম্যানেজার কামাল হোসেন বলেন, ‘যানবাহনের চাপ কিছুটা বেশি। তবে এখন পর্যন্ত তেমন কোনো সমস্যা হয়নি। আসলে অনেকেই জানেন না টোল কতো, সেকারণেও কিছুটা সময় লাগছে। দুই-একদিনের মধ্যে চাপ কমে আসবে আশা করছি।’

টোল দিয়ে পদ্মা সেতু পার হতে দেখা গেছে বিভিন্ন পণ্যবাহী ট্রাককে

পদ্মা সেতু প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী তোফাজ্জল হোসেন বলেন, সেতু নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ থাকায় যান চলাচল শুরুর দিন ভোর থেকেই ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে ভিড় জমায় শত শত যানবাহন। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা করা হচ্ছে। কর্তৃপক্ষও যথাযথ প্রস্তুতি রেখেছে, সেনাবাহিনীর পাশাপাশি অন্যান্য বাহিনীর সদস্যরাও কাজ করছেন।’

রতন/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়