ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৪ ১৪৩১

বগুড়ায় গাড়িতে আগুন-ককটেল বিস্ফোরণ, সংঘর্ষ 

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২৫, ৩১ অক্টোবর ২০২৩   আপডেট: ১৮:০৬, ৩১ অক্টোবর ২০২৩
বগুড়ায় গাড়িতে আগুন-ককটেল বিস্ফোরণ, সংঘর্ষ 

বগুড়ায় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসে ভাঙচুর চালায় অবরোধকারীরা

বিএনপি-জামায়াতের ডাকা অবরোধের প্রথম দিন মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বগুড়ায় সকাল থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটি কুরিয়ার সার্ভিসের গাড়ি এবং তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দিয়েছে অবরোধ সমর্থকরা। এছাড়া, শাহ ফতেহ আলী পরিবহনের তিনটি বাস, শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস, পণ্যবাহী কার্গো ট্রাকসহ অন্তত ৮টি যানবাহনে ভাঙচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পওয়া গেছে। 

এদিকে, বগুড়ার ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক এবং বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে আওয়ামী লীগের সঙ্গে বিএনপিসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয়পক্ষ একে অপরের দিকে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। বিস্ফোরণ ঘটানো হয় কয়েকটি ককটেলও। পরিস্থিতি সামাল দিতে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে অবরোধকারীরা ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে এবং ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি রক্ষায় পুলিশ টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। আটক করা হয় কয়েকজনকে। পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থলে বিজিবি এবং র‌্যাব সদস্যরা রয়েছেন।

অবরোধের সমর্থনে আজ সকাল থেকেই ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের মাটিডালি, বাঘোপাড়া-গোকুল এলাকায় লাঠি নিয়ে অবস্থান নেয় বিএনপিসহ অঙ্গ সংগঠনের কয়েকশ’ নেতাকর্মী। অন্যদিকে বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কের বনানী এলাকার লিচুতলা দ্বিতীয় বাইপাস মোড়ে অবস্থান নেয় শত শত অবরোধকারী। এ সময় তারা ওষুধ পরিবহনকারী গাড়ি এবং অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া সব প্রকার যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। অবরোধের কারণে ঢাকা থেকে আসা একাধিক যানবাহন আটকা পড়ে। একপর্যায়ে পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট সেখানে অবস্থান নেয়। সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শাজাহানপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহরাব হোসেন ছান্নু মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে বনানী দ্বিতীয় বাইপাস এলাকায় আসেন। তারা সেখানে আসামাত্র অবরোধকারীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতাদের সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। এ সময় উভয়প‌ক্ষ ইট পাটকেল নি‌ক্ষেপ ক‌রে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ইটপাকেটেলের মুখে তাদের তিনটি মোটরসাইকেল দ্বিতীয় বাইপাস মোড়ে ফেলে রেখে চলে যান। পরে মোটরসাইকেলগুলোতে আগুন ধরিয়ে দেয় অবরোধকারীরা। পাশাপা‌শি তারা তিন‌টি যানবাহন ভাঙচুর চালায়। এ সময় পু‌লিশ ছত্রভঙ্গ কর‌তে গে‌লে অবরোধকারীরা ইটপাটকেল নি‌ক্ষেপ ক‌রতে কর‌তে ২য় বাইপাস সড়‌কের দি‌কে চলে যায় এবং সেখানে অবস্থান নেয়।

ঘটনাস্থলে থাকা বগুড়া জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রশিদ বলেন, অবরোধকারীদের ছত্রভঙ্গ করা হয়েছে।

অন্যদিকে, সকালে শহরের মাটিডালী ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এবং এরুলিয়া এলাকায় বগুড়া-নওগাঁ আঞ্চলিক সড়কে শাহ ফতেহ আলী পরিবহনের তিনটি বাস ভাঙচুর করার ঘটনা ঘটে। এ সময় আহত হয়েছেন অন্তত পাঁচ জন যাত্রী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শাহ ফতেহ আলী পরিবহনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং জেলা বাস মিনিবাস ও কোচ পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম। মাটিডালি এলাকায় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস ভাঙচুর করা হয়।

এর আগে সকালে মাটিডালিতে জেলা বিএনপির সভাপতি ও পৌর মেয়র রেজাউল করিম বাদশার নেতৃত্বে একটি দল সেখানে অবরোধ করে।  অবরোধকারীরা মহাসড়কে ইট-পাটকেল ফেলে টায়ারে আগুনে জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকেন। এছাড়া দুপুরের দিকে বাঘোপাড়া এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এজেআর কুরিয়ার সার্ভিসের একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি গাড়ি ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভায়।

শাজাহানপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহরাব হোসনে ছান্নু বলেন, অবরোধকারীদের ছোড়া ককটেল ও ইটপাটকেলের আঘাতে তিনি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল হক আরজু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আসাদুজ্জামান লিটন আহত হয়েছেন।  ককটেল বিস্ফোরণে যুবলীগের শাকিল রানার হাত ঝলসে গেছে এবং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি কাজলের নখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। 

যে তিনটি মোটরসাইকেল পোড়ানো হয়েছে সেগুলো কাদের জানতে চাইলে তিনি বলেন, মোটরসাইকেল তিনটির মধ্যে একটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য তারেক হোসেনের, একটি উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শামিম রানার এবং অন্যটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজের।

জেলা যুবদলের দপ্তর সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন সোহাগ বলেন, বনানীতে আমাদের যুবদলের ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আখতার বলেন, জেলার গুটিকয়েক স্থানে দুর্বৃত্তরা চোরাগুপ্ত হামলা চালিয়ে মানুষের জানমালের ক্ষতির চেষ্টা করেছে। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছি। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। সব মহাসড়কে যানচলাচল করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে ককটেল বিস্ফোরণে আমাদের সদর থানার এসআই জহুরুল আহত হয়েছেন। মাটিডালি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এনাম/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়