ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৬ ১৪৩১

আদালতে ক্ষমা চাইলেন মাহিকে হুমকি দেওয়া নৌকার সমর্থক

রাজশাহী প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১৬, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৫:২৩, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩
আদালতে ক্ষমা চাইলেন মাহিকে হুমকি দেওয়া নৌকার সমর্থক

নিজের প্রতীক হাতে মাহি

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে হুমকি দিয়ে ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করেন নৌকার প্রার্থীর এক সমর্থক। মাহাবুর রহমান মাহাম নামে এই যুবককে তলব করা হয় আদালতে। বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) আদালতে হাজির হয়ে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

দুপুর ১২টার দিকে রাজশাহী-১ আসনের নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান রাজশাহীর যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ (দ্বিতীয় আদালত) মো. আবু সাঈদের আদালতে হাজির হন মাহাম। এ সময় তিনি আইনজীবীর মাধ্যমে কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দেন। এতে তিনি নিজের ভুল স্বীকার করে ক্ষমতা প্রার্থনা করেন।

শুনানি শেষে মাহাম সাংবাদিকদের কাছেও নিজের ভুল স্বীকার করেন। সাংবাদিকদের মাধ্যমে তিনি মাহিয়া মাহির কাছেও ক্ষমা চান। আদালতের পেশকার মো. সাহাবুদ্দিন সোহাগ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আদালত মাহামকে কঠোরভাবে সতর্ক করেছেন যেন ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ড তিনি না করেন।

গত শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) রাত ১১টার দিকে জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাম নিজের ফেসবুক আইডিতে ভিডিও পোস্ট করেন। এতে তিনি মাহিকে উদ্দেশ করে জুতা দেখান এবং তার সম্পর্কে নানা আপত্তিকর কথা বলেন। স্থানীয় এমপি ও নৌকার প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরীকে নিয়ে আর একটা কথা বললে মাহিকে জুতা মারার হুমকি দেন তিনি। মাহাম এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত।

বিষয়টি নজরে এলে এ আসনের নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান রাজশাহীর যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মো. আবু সাঈদ তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ে আদালতে তলব করেন।

আর ওই ভিডিও মাহাম পোস্ট করার কিছুক্ষণ পর মুছে ফেললেও রাতেই থানায় যান মাহি। এ সময় মাহির পক্ষে মাহামের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করা হয়।

তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রহিম জানান, তদন্তের অনুমতি চেয়ে অভিযোগটি আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালত অনুমতি দিলে তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নির্বাচনি অনুসন্ধান কমিটির কার্যক্রম ও এই অভিযোগের বিষয়টি সম্পূর্ণ আলাদা। আলাদাভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কেয়া/বকুল 

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়