Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১ ||  চৈত্র ২৮ ১৪২৭ ||  ২৭ শা'বান ১৪৪২

পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করলেন অধ্যাপক প্রহল্লাদ চন্দ্র দাস 

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৫৪, ৬ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১০:৫৪, ৬ মার্চ ২০২১
পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করলেন অধ্যাপক প্রহল্লাদ চন্দ্র দাস 

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগ থেকে ‘ঋণ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক গবেষণা করে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক প্রহল্লাদ চন্দ্র দাস এফসিএমএ।

শনিবার (৬ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে এতথ্য জানা যায়। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) অনুষ্ঠিত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ ডিগ্রির অনুমোদন দেওয়া হয়।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য একাডেমিক কাউন্সিলেও গৃহীত হয় গবেষণাটি। এর তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের অধ্যাপক ও সাবেক বিভাগীয় প্রধান বর্তমানে বিইউবিটির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহা. আলী নূর।

ড. দাস বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের ফেলোশিপসহ তার পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। তার গবেষণার গুরুত্বপূর্ণ পর্যবেক্ষণ হলো, ব্যাংকি়ং সেক্টরে সু-শাসনের অভাবে ঋণ ঝুঁকি ক্রমবর্ধমান। তিনি উল্লেখ করেন, সু-শাসন নিশ্চিত করতে পারলে ঋণ ঝুঁকি কাম্য সীমার মধ্যে থাকবে এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে।

বর্তমানে সহযোগী অধ্যাপক পদে কর্মরত ড. প্রহল্লাদ চন্দ্র দাস এফসিএমএ রায়চাঁদ উদয় চন্দ্র মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৯৯৯ সালে যশোর শিক্ষাবোর্ড থেকে এসএসসি পাস করেন। এরপর ভর্তি হন চরফ্যাশন মহাবিদ্যালয়ে। সেখান থেকে ২০০১ সালে বরিশাল শিক্ষাবোর্ড থেকে এইচএসসি পাস করেন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগ থেকে ২০০৫ সালে অনুষ্ঠিত বি.কম (অনার্স) হিসাববিজ্ঞান পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে দ্বিতীয় স্থান লাভ করেন এবং একই বিভাগ থেকে ২০০৬ সালে অনুষ্ঠিত এমবিএস (হিসাববিজ্ঞান) পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

ড. দাস একই বিভাগ হতে ২০০৮ সালে অনুষ্ঠিত এমবিএ (এআইএস) পরীক্ষায় ও প্রথম স্থান লাভ করেন। তিনি ICMAB হতে CMA ডিগ্রি লাভ করেন এপ্রিল-২০১৪ এর চূড়ান্ত পরীক্ষায় । বর্তমানে তিনি এ প্রতিষ্ঠানের একজন সন্মানিত ফেলো সদস্য হিসেবে হিসাব পেশার মান উন্নয়নে তার মেধা ও শ্রম দিয়ে অবদান রেখে যাচ্ছেন।

জাককানইবি/ফাহাদ/মাহি  

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়