RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭ ||  ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

৩০ বছর পর নাগরনো-কারাবাখে প্রবেশ আজারবাইজানের বাহিনীর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:১৯, ২০ নভেম্বর ২০২০  
৩০ বছর পর নাগরনো-কারাবাখে প্রবেশ আজারবাইজানের বাহিনীর

৩০ বছর পর নাগরনো-কারাবাখে প্রবেশ করলো আজারবাইজানের বাহিনী। রাশিয়ার মধ্যস্থতায় শান্তিচুক্তির আওতায় আর্মেনিয়া যে তিনটি এলাকা আজারবাইজানকে ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তার প্রথমটির হস্তান্তর হলো শুক্রবার।

আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘২০ নভেম্বর আজারবাইজানের বাহিনী আঘদাম এলাকায় প্রবেশ করলো।’

বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এএফপির সাংবাদিক জানিয়েছেন, আঘদাম ছেড়ে যাওয়ার আগে আর্মেনিয়ার সেনারা তাদের সদরদপ্তর ধ্বংস করে গেছে। হস্তান্তরের কয়েক ঘণ্টা আগেও সেখানকার আর্মেনীয় বংশোদ্ভূতরা তাতদের বাড়িঘর আগুনে পুড়িয়ে দিয়ে এলাকা ছেড়ে চলে গেছে।

আন্তর্জাতিকভাবে আজারবাইজানের এলাকা বলে স্বীকৃত হলেও গত কয়েক দশক ধরে নাগরনো-কারাবাখ দখল করে রেখেছিল আর্মেনীয় বংশোদ্ভূতরা। প্রায় ছয় সপ্তাহ ধরে এই অঞ্চলটি নিয়ে লড়াইয়ের পর আজারবাইজানের সঙ্গে শান্তিচুক্তি করে আর্মেনিয়া। কয়েক দফা চুক্তি ভঙ্গের পর গত মাসে নাগরনো-কারাবাখে শান্তিরক্ষী বাহিনী মোতায়েন করে রাশিয়া। নতুন চুক্তির আলোকে যুদ্ধের মাধ্যমে আজারবাইজান নাগরনো-কারাবাখের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর শুশাসহ যেসব এলাকা দখলে রেখেছে সেগুলো তাদের দখলেই থাকবে। আর আর্মেনীয় বংশোদ্ভূত নাগরনো-কারাবাখের বাহিনী যেসব স্থানে হামলা চালিয়েছে সেসব স্থান থেকে তাদেরকে নভেম্বরের মাঝামাঝি থেকে পহেলা ডিসেম্বরের মধ্যে সরে যেতে হবে।

আল-জাজিরার স্থানীয় সংবাদদাতা বলেছেন, সরকারকে আর্মেনিয়ার সব সেনার ফিরে যাওয়া, অবকাঠামো পুনর্নির্মাণ, মাইন অপসারণ এবং বিস্ফোরিত পদার্থ দ্রুত অপসারণ নিশ্চিত করতে হবে, যাতে লোকজন তাদের এলাকায় ফিরতে পারে এবং তাদের জীবনযাপন পুনরায় শুরু করতে পারে।’
 

ঢাকা/শাহেদ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়