ঢাকা     বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ২ ১৪২৯ ||  ১৮ মহরম ১৪৪৪

‘আবরার হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে আসামিদের সাজা’

নিজস্ব প্রতিবেদক  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৪২, ৮ ডিসেম্বর ২০২১  
‘আবরার হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে আসামিদের সাজা’

আবরার ফাহাদ (ফাইল ফটো)

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে আর কখনও না ঘটে তা রোধকল্পে আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালত আবরার হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ২০ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। রায় ঘোষণার আগে পর্যবেক্ষণে এসব কথা বলেন বিচারক।

রায় ঘোষণার নির্ধারিত দিনে আজ সকাল সোয়া ৯টার দিকে আসামিদের কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। তাদের ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের হাজতখানায় রাখা হয়। বেলা ১১টা ৪০ মিনিটের দিকে আসামিদের এজলাসে তোলা হয়। ১১টা ৫৮ মিনিটের বিচারক এজলাসে ওঠেন। এরপর রায় পড়া শুরু হয়।

পর্যবেক্ষণে বিচারক বলেন, ‘২০১৯ সালের ৪ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে বুয়েট এর শেরে বাংলা আবাসিক হলের ক্যান্টিনে এবং পরদিন রাত ১০টার পর আসামিরা দফায় দফায় মিটিং করেন। তারা ৬ অক্টোবর রাত ৮টা থেকে ৭ অক্টোবর ভোর পর্যন্ত শেরে বাংলার আবাসিক হলের ২০১১ ও ২০০৫ নম্বর রুমে আবরার ফাহাদকে চড়, থাপ্পড়, লাথি, কিল, ঘুষি মেরে, কনুই দিয়ে পিঠে, ক্রিকেট স্ট্যাম্প, স্কিপিং রোপ দিয়ে নির্মম ও নিষ্ঠুরভাবে পিটিয়ে হত‌্যা করা হয়।’ 

পর্যবেক্ষণে বলা হয়, ‘আবরারের সঙ্গে এমন নির্মম, নিষ্ঠুর আচরণ বাংলাদেশের সব মানুষকে ব্যথিত করেছে। মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে আর কখনো না ঘটে তা রোধে আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হলো।’

ঢাকা/মামুন/ইভা 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়