Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রস্তুতি ম্যাচে ফিফটির ছড়াছড়ি

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪০, ২০ মে ২০২১   আপডেট: ১৮:১০, ২০ মে ২০২১
প্রস্তুতি ম্যাচে ফিফটির ছড়াছড়ি

ফিফটি পাওয়া পাঁচ ব্যাটসম্যান: মুশফিক, তামিম, মাহমুদউল্লাহ, সৌম্য ও আফিফ

ব্যাটসম্যানদের ব্যাটে রানের ফোয়ারা। বোলাররা অনেকটাই নিষ্প্রভ। আন্তঃদলীয় প্রস্তুতি ম্যাচে দাপট দেখালেন ব্যাটসম্যানরা। দুই ইনিংস মিলিয়ে রান হলো ৫৭২। আগে ব্যাটিং করা মাহমুদউল্লাহ, সাকিবদের বিসিবি সবুজ দল করলো ২৮৪ রান। তামিম, মুশফিকদের বিসিবি লাল দল তাদের টপকে করে ২৮৮ রান।   

ম্যাচে ফিফটির ছড়াছড়ি। দুই দলের পাঁচ ব্যাটসম্যান পেয়েছেন ফিফটির স্বাদ। ব্যাটসম্যানদের দিনে বোলাররা পথ ভুলেছেন বারবার। প্রস্তুতি ম্যাচের মূল লক্ষ্য ছিল ঝালিয়ে নেওয়া। মূল মঞ্চে মাঠে নামার আগে ম্যাচের আবহে অনুশীলনের সুযোগ করে দেওয়া। 

ব্যাটসম্যানরা সেই সুযোগটি লুফে নিয়েছেন দুই হাত ভরে। সৌম্য, মাহমুদউল্লাহ ও আফিফের পর তামিম ও মুশফিকের ব্যাট থেকে এসেছে ফিফটির ইনিংস। পাঁচ ব্যাটসম্যানের মধ্যে বিসিবি লাল দলের অধিনায়ক তামিম করেন সর্বোচ্চ ৮০ রান। মুশফিক অপরাজিত ছিলেন ৬৪ রানে। এর আগে বিসিবি সবুজ দলের সৌম্য ৬০ রান করেন। পরের ব্যাটসম্যানদের খেলার সুযোগ করে দিতে স্বেচ্ছা অবসরে যান টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান।

সবুজ দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে আসে ৬২ রান। সঙ্গী আফিফ হোসেন করেছেন ৬৪ রান। দুজনের ইনিংসে ছিল চার-ছক্কার শট। মাহমুদউল্লাহ ৬ চার ও ২ ছক্কা হাঁকান। আফিফের ব্যাট থেকে আসে ৭ চার ও ৩ ছক্কা।   

ব্যাটসম্যানদের রান ফোয়ারার দিনে ইনিংস বড় করতে পারেননি সাকিব, লিটন, মিথুন এবং চূড়ান্ত দলে জায়গা হারানো ইমরুল। সবুজ দলের হয়ে তিনে নামা সাকিব ২০ বলে ২৮ রানের বেশি করতে পারেননি। ২টি চারের একটি পেয়েছিলেন ওভার থ্রো থেকে। স্পিনার মাহেদীর বল ইনসাইড আউট শট খেলতে গিয়ে বোল্ড হন এ ব্যাটসম্যান। এছাড়া মিথুন ৩ রানে মাহেদীর বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। লাল দলের হয়ে ইনিংস উদ্বোধন করা লিটন ১৫ রানে এলবিডব্লিউ হন সাকিবের বলে। বল হাতে সাকিব ৪৫ রান দিয়ে নিয়েছেন ১ উইকেট। ইমরুল স্পিনার মাহমুদউল্লাহর বলে সাজঘরে ফেরার আগে ৩২ বলে ৩৩ রান করেন ১ চার ও ২ ছক্কায়। 

লাল দলের মাহেদী ২ উইকেট নিয়ে ছিলেন সেরা। শরিফুল পেয়েছেন ১ উইকেট। মোস্তাফিজুর ৭ ওভারে ৪৮ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। সবুজ দলে তাসকিন ৭ ওভারে খরচ করেন ৪৫ রান। শহিদুল ৩ ওভারে ২৩, মিরাজ ৭ ওভারে ৫২ রান দিয়েছেন। এ দলের মাহমুদউল্লাহ ৫ ওভারে ২৯ রান দিয়ে ২ উইকেট পান। 

২৩ মে অতিথি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ। এর আগে দুদিন অনুশীলনে নিশ্চয়ই প্রস্তুতি ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে নেবেন ক্রিকেটাররা। 
 

ঢাকা/ইয়াসিন 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়